Asianet News BanglaAsianet News Bangla

নেশন লিগে স্পেনের বিরুদ্ধে ড্র পর্তুগালের, দ্বিতীয়ার্ধে রোনাল্ডোকে নামানোর কারণ জানালেন পর্তুগীজ কোচ

স্পেনের (Spain)বিরুদ্ধে উয়েফা নেশনস লিগের (UEFA nations League)ম্য়াচে ১-১ গোলে ড্র পর্তুগালের (Portugal)। ম্য়াচের দ্বিতীয়ার্ধে রোনাল্ডোকে নামিয়ে বিতর্কে কোচ। অবশেষে এই বিষয়ে মুখ খুললেন ফার্নান্ডো স্যান্টোস।

Portugal coach explains why he bring Cristiano Ronaldo in 2nd half of the match against Spain in UEFA nations League spb
Author
Kolkata, First Published Jun 3, 2022, 11:04 PM IST

উয়েফা নেশনস লিগে স্পেনের বিরুদ্ধে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে ম্য়াচের দ্বিতীয়ার্ধে নামানো নিয়ে বিতর্কের মাঝে অবশেষে মুখ খুললেন পর্তুগাল কোচ ফার্নান্দো স্যান্টোস। 
লিগ এ-র গ্রুপ টু-এর প্রথম ম্যাচে খেলতে নেমেছিল দুই প্রাক্তন ইউরো জয়ী দল। ম্য়াচ ১-১ গোলে ড্র হয়।  রোনাল্ডো হীন পর্তুগাল ম্য়াচের প্রথমার্ধেই গোল হজম করতে হয়। যা শোধ করতে পর্তুগীজদের অপেক্ষা করতে হয় ম্যাচর শেষ ৮ মিনিট পর্যন্ত। স্প্যানিশ আর্মাডার হয়ে ম্যাচে গোল করেন আলভারো মোরাতা। পর্তুগালের হয়ে গোল করেন রিকার্ডো হোর্তা। ম্য়াচে ৬০ মিনিটের পরে রোনাল্ডোকে নামান পর্তুগাল কোচ ফার্নান্দো স্যান্টোস।  যা নিয়েই তৈরি হয় বিতর্ক। অবশেষে নিজের সাফাই পেশ করলেন পর্তগালের হয়ে ২০১৬-তে ইউরো জয়ী কোচ। 

স্পেনের বিরুদ্ধে ম্য়াচে ১ পয়েন্ট পর্তুগালের ঘরে আসলেও দলের প্রধান তারকাকে কেন শুরু থেকে নামানো হয়নি তা নিয়ে ক্ষোভ জন্মায় সমর্থকদের মধ্যে। উঠতে শুরু করে প্রশ্ন। যেই বিষয়ে ফাসিআর সেভেনকে পরে নামানোর প্রসঙ্গে স্যান্টোস ম্যাচের পর বলেন, "ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো? প্রায়শই জিজ্ঞাসা করা হয় যে, কেন ও স্টার্টার? এটা মিলিয়ন ডলার প্রশ্ন। আমার মনে হয়েছিল এই ম্যাচের জন্য যাদের ভাল মনে হয়েছিল, তাদেরই ব্যবহার করেছি। টেকনিক্যাল ও টেকটিক্যাল বিকল্প বলতে পারেন। এভাবেই খেলাটা খেলতে চেয়েছিলাম আমরা। এর সঙ্গে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর কোয়ালিটির কোনও প্রশ্নই নেই। ম্যাচে এমন কিছু মুহূর্ত থাকে যখন অন্য ভাবে ভাবতে হয়। আমরা বিশ্বাস করেছিলাম যে, দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচ বার করতে পারব।" 

আরও পড়ুনঃবিশ্বের পয়লা নম্বর বনাম পরবর্তী 'সেরেনা উইলিয়ামস', ফ্রেঞ্চ ওপেনের মহিলা ফাইনালে আগে কী বললেন দুই তারকা

আরও পড়ুনঃছোট পোষাকে ধরছে না স্তনযুগল, শরীরি মোচরে উষ্ণতার হাতছানি, চিনে নিন মেসির সতীর্থের বন্ধবীকে

প্রসঙ্গত, ম্যাচের শুরু থেকেই হাড্ডাহাড্ডি লড়াই  লড়াই হয় স্পেন ও পর্তুগালের মধ্যে। ম্য়াচের শুরুর দিকে দুই দলই একটু জল মেপে এগোনের চেষ্টা করেন। এরপর ধীরে ধীরে খোলস খুলে বেরোয় দুই দল। তবে ম্য়াচের প্রথমার্ধে আক্রমণের মাত্র বেশি ছিল স্পের। যার ফলও মেলে ম্যাচের ২৫ মিনিটে। স্পেনকে গোল করে এগিয়ে দেন আলভারো মোরাতা। এরপর ম্য়াচের প্রথমার্ধে একাধিক গোল করার সুযোগ তৈরি করলেও দুই দলই গোলের মুখ খুলতে পারেনি। ১-০ এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় স্পেন। দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণের মাত্রা বাড়ায় পর্তুগাল। ম্য়াচের ৬২ মিনিটে  মাঠে নামেন রোনাল্ডো। তারপর আক্রমণের ঝাঁঝ আরও বাড়ে। অবশেষে ম্য়াচে ৮২ মিনিটে রিকার্ডো হোর্তার গোলে ম্য়াচে সমতা ফেরায় পর্তুগাল। শেষ পর্যন্ত ১-১  গোলে ড্র হয় ম্যাচ। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios