গতকাল লা লিগায় নিজেদের অষ্টম ম্যাচে ভ্যালেন্সিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। করোনা সংক্রমণের কারণে ইডেন হ্যাজার্ড এবং ক্যাসেমিরোকে ছাড়াই মাঠে নেমেছিল রিয়াল। কিন্তু র‍্যামোস, ভারান, মার্সেলোদের ভয়াবহ পারফরম্যান্সের ফলে চার গোল হজম করতে হয় মাদ্রিদকে। শেষ দশ বছরে রিয়াল মাদ্রিদ ভ্যালেন্সিয়ার কাছে এত জঘন্য ভাবে হারেনি। ২৩ মিনিটে গোল করে রিয়াল লিড নিয়েছিল। গোল করেছিলেন অভিজ্ঞ বেনজেমা। কিন্তু তারপর প্রথমার্ধে দুটি এবং দ্বিতীয়ার্ধে আরও দুটি গোল করে রিয়ালকে লজ্জার হার উপহার দেয় ভ্যালেন্সিয়া। 

ভ্যালেন্সিয়ার চারটি গোলের মধ্যে তিনটিই আসে পেনাল্টি থেকে। অপর গোলটি ফ্রেঞ্চ ডিফেন্ডার রাফায়েল ভারানের আত্মঘাতী গোল। চলতি মরশুমে দুটি আত্মঘাতী গোল করেছেন তিনি দলের বিরুদ্ধে। ম্যাচে রিয়ালের ডিফেন্সের অবস্থা এতই শোচনীয় ছিল যে মোট ৪ টি পেনাল্টি পায় ভ্যালেন্সিয়া। তার মধ্যে একটি মিস ও তিনটি থেকে গোল করে হ্যাটট্রিক করেন কার্লোস সোলার। 

নভেম্বরের ইন্টারন্যাশনাল ব্রেকের আগে এটাই ছিল রিয়াল মাদ্রিদের শেষ ম্যাচ। এর দু সপ্তাহ পর ভিলারিয়েলের বিরুদ্ধে মাঠে নামবে বেনজেমারা। আশা করা যায় ততদিনে হ্যাজার্ড, ক্যাসেমিরোরা ততদিনে সুস্থ হয়ে ফিরে আসবেন। যদিও কালকের ম্যাচ খেলতে গিয়ে চোট পেয়েছেন বেনজেমা। তিনি কবে ফিরতে পারবেন তা এখনও অস্পষ্ট। লিগ জিততে গেলে কঠিন পরিশ্রম করতে হবে জিদানের দলকে। তার সাথে সাথেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও নিজেদের অবস্থার উন্নতি করতে হবে তাদের।