110

দুটো বিপরীত মানসিকতার মানুষের বিয়ে হলে সে সম্পর্কে অশান্তি হবে তা স্বাভাবিক। প্রথম দিকে সকলেই মানিয়ে নিতে চেষ্টা করে থাকেন। কিন্তু ধীরে ধীরে সম্পর্কে অশান্তি বাড়তে। মানিয়ে নেওয়া কিংবা শুধু ত্যাগ করে কোনও সম্পর্ক সুখের হয় না তা সকলেরই জানা। সে কারণে দ্বন্দ্ব, অশান্তি, কলহ। শেষে বিচ্ছেদ। 

Subscribe to get breaking news alerts

210

প্রতিটি মানুষ একে অন্যের থেকে আলাদা। কারও সঙ্গে কারও মিল নেই। কেউ শান্ত তো কেউ চঞ্চল। কেউ নির্ভীক তো কেউ ভিতু। এমন হাজারটা পার্থক্য রয়েছে একে অন্যের সঙ্গে। তেমনই আবার মিলও রয়েছে বিস্তর। জ্যোতিষ মতে, কিছু রাশির সঙ্গে কিছু রাশির মানসিকতার মিল হয়। আর সেই সকল রাশির বিয়ে হলে দাম্পত্য সুখ বজায় থাকে। 

310

একটা সময় বিয়ের আগে হবু বর ও বউ-এর কুষ্ঠি মিলিয়ে দেখা হত। দুজনের জন্ম সময়, নক্ষত্র ইত্যাদি মিলিয়ে জানার চেষ্টা করা হত যে সে বিয়ের সুখের হবে কিনা। বর্তমানে এর চল কমে গিয়েছে। তবে, এতেবারে বিলুপ্ত হয়ে গিয়েছে এমন নয়। এখনও বহু পরিবারে বিয়ের আগে হবু বর ও বউ-এর কুষ্ঠি মিলিয়ে দেখেন। 

410

শাস্ত্র মতে, কুষ্ঠি যদি দেখা সম্ভব নাও হবে, অন্তত রাশির মিল আছে কিনা দেখে নেওয়া উচিত। জ্যোতিষ শাস্ত্রে ১২টি রাশির উল্লেখ আছে। এদের মধ্যে কারও কারও মনের ও মানসিকতার মিল ঘটে। আবার কারও কারও কোনও মিলই নেই। এমন কিছু রাশি আছে যাদের বিয়ে হলে দাম্পত্য জীবনে অশান্তি লেখে থাকে। আজ রইল এমনই চার জোড়া রাশির কথা।       

510

মেষ ও কর্কট রাশির কখনও মিল হয় না। মেশ হল অগ্নি চিহ্ন আর কর্কট হল জলের প্রতীক। কর্কট হল আবেগপ্রবণ ও সংবেদনশীল স্বভাবের আর মেষ হল বাস্তববাদী ও তেজী। এই দুই রাশির মধ্যে মানসিকতার ফারাক রয়েছে বিস্তর। তাই বিবাহ বন্ধনে এরা না বাঁধাই ভালো। মতের মিল না থাকার জন্য সম্পর্ক ভেঙে যেতে পারে এদের।  

610

কুম্ভ ও বৃষ রাশির বিয়ে সুখের হয় না। কুম্ভ হল বায়ু চিহ্ন আর বৃষ রাশির সঙ্গে এর কোনও সামঞ্জস্য নেই। কুম্ভ রাশির ছেলে মেয়েরা হল কোমল, স্থিতিশীল আর কামুক। আর বৃষ রাশি সম্পূর্ণ বিপরীত। সে কারণে কুম্ভ ও বৃষ রাশির কোনও মিল হয় না। এদের দাম্পত্য জীবন অশান্তির মধ্যে দিয়ে কাটে। 

710

সিংহ ও ধনুর মতের মিল হয় না। সিংহ সাহসী ও দৃঢ়। নতুন জিনিসে আগ্রহ পায়। আর ধনু পরিবর্তনে ভয় পায়। ফলে সব ক্ষেত্রে এদের মতের অমিল লক্ষ্য করা যায়। এরা কেউ নত স্বীকার করতে পছন্দ করেন না। সে কারণে অশান্তি আরও তীব্র আকার নেয়। ফলে সিংহ ও ধনুর দাম্পত্য অশান্তি বাড়তে থাকে। 

810

মিথুন ও বৃশ্চিক রাশির বিয়ে না হওয়াই বালো। জ্যোতিষ মতে, মিথুন রাশি স্বাধীন মনষ্ক। এরা কারও প্রতি নির্ভরশীল হতে পছন্দ করে না। তেমনই কেউ এদের ওপর নির্ভর করুক তা পছন্দ নয়। অন্য দিকে আবার, বৃশ্চিক আবার এমন সঙ্গীর মধ্যে নিরাপত্তা খোঁজে। মিথুন ও বৃশ্চিক রাশি দুজনেই বিপরীত ধর্মী দুটি মানুষ। যে কারণে এদের দাম্পত্য জীবনে নানা অশান্তি দেখা দেয়। 

910

দাম্পত্য জীবন সুখের হোক তা সকলেরই কাম্য। তাই বিয়ের আগে দুজনের রাশি মিলিয়ে নিন। মানসিতার মিল থাকলে সম্পর্ক সুখের হবে। আর রাশি দেখলে বোঝা যাবে মানসিকতার মিল হবে কি না। সে কারণে বিয়ের আগে রাশি মিলিয়ে নেওয়া প্রয়োজন। চাইলে কুষ্ঠিও মিলিয়ে দেখতে পারেন।  

1010

কথায় আছে, জন্ম-মৃত্যু-বিয়ে, তিন বিধাতা নিয়ে। তাই আমাদের জীবনের এই তিন বিষয়ের ওপর আমাদের হাত নেই। হিন্দুদের মধ্যে প্রচলিত আছে এমন ধারণা। তবে, জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল বিবাহ। দাম্পত্য জীবন সুখের হোক তা সকলেরই কাম্য। আর দুজনের মন ও মানসিকতার মিল হলে তবেই সম্পর্ক সুখের হবে। তাই বিয়ের আগে দুজনের রাশি জেনে নিন।