বলিউড হিরোর ক্রাইটেরিয়া নেই, অভিনয়ের দাপটে ইরফান রাজ করলেন দর্শকের মণিকোঠায়

First Published 29, Apr 2020, 10:21 PM

টল, ডার্ক/ফেয়ার, হ্যান্ডসাম। এই হল বলিউডে হিরো হওয়ার এলিজিবিলিটি ক্রাইটেরিয়া। এই শব্দগুলির মধ্যে প্রতিভা শব্দটা হারিয়ে গিয়েছে। অতি সাধারণ চেহারা, ভারতীয় গায়ের রঙ নিয়ে অভিনয় জগতে এসেছিলেন ইরফান খান। তথাকথিত লুকস নেই তবুও রিস্ক নিয়ে অভিনয়ের দুনিয়ায় পা রাখলেন তিনি। দু হাত জুড়ে কেবল অফুরন্ত প্রতিভা। তাই দিয়েই নজর কাড়লেন তিনি। ছোটপর্দা থেকে বড়পর্দা। যাত্রাপথ অবশ্যই সহজ ছিল না, ওই, লুকস। চেহারা তেমন না হওয়ায়, সুন্দরী অভিনেত্রীদের পাশে কোমড় নাচানোর সুযোগ হয়নি তাঁর। সত্যি কথা বলতে ইরফানও কোনওদিনই তেমনটা চাননি। নয়তো কোনও ছবিতে পাঁচ মিনিটের চরিত্রের জন্য সাইন করতে না।

<p><br />
সেই পাঁচ মিনিটে নিজের অভিনয়ের, প্রতিভার ছাপ ফেলে যাওয়ার মত ক্ষমতা ছিল তাঁর।</p>


সেই পাঁচ মিনিটে নিজের অভিনয়ের, প্রতিভার ছাপ ফেলে যাওয়ার মত ক্ষমতা ছিল তাঁর।

<p>ছিল বললে ভুল হবে, আজও রয়েছে। এমন প্রতিভা কখনও শেষ হয়ে যায় না।&nbsp;</p>

ছিল বললে ভুল হবে, আজও রয়েছে। এমন প্রতিভা কখনও শেষ হয়ে যায় না। 

<p>ইহ জগৎ নাই বা হল, ওই যে ফিল্মি জগতটা আছে, ওখানে তো বারে বারে পাব ইরফানকে।</p>

ইহ জগৎ নাই বা হল, ওই যে ফিল্মি জগতটা আছে, ওখানে তো বারে বারে পাব ইরফানকে।

<p>প্রতিটি চরিত্রে সাবলিল অভিনয়। অথচ হতবাক করে দিচ্ছেন দর্শকদের।&nbsp;</p>

প্রতিটি চরিত্রে সাবলিল অভিনয়। অথচ হতবাক করে দিচ্ছেন দর্শকদের। 

<p>এমনটাও সম্ভব? ইরফানের খানের পক্ষে অবশ্যই সম্ভব। প্রত্যেক চরিত্রকে জীবন্ত করে তোলা।&nbsp;</p>

এমনটাও সম্ভব? ইরফানের খানের পক্ষে অবশ্যই সম্ভব। প্রত্যেক চরিত্রকে জীবন্ত করে তোলা। 

<p>কেবল জীবন্তই নয়, আজকালকার চেনা ভাষায় যাকে বলে রিলেটেবল করে তোলা।</p>

কেবল জীবন্তই নয়, আজকালকার চেনা ভাষায় যাকে বলে রিলেটেবল করে তোলা।

<p>সাধারণ মানুষ, তাঁর প্রতিটি চরিত্র, অভিনয়ের সঙঅগে রিলেট করতে পারতেন।&nbsp;</p>

সাধারণ মানুষ, তাঁর প্রতিটি চরিত্র, অভিনয়ের সঙঅগে রিলেট করতে পারতেন। 

<p>সিনে দুনিয়ার সঙ্গে সাধারণ মানুষের যে ব্যবধান ছিল তা মেটাতে সক্ষম হয়েছিলেন ইরফান।</p>

সিনে দুনিয়ার সঙ্গে সাধারণ মানুষের যে ব্যবধান ছিল তা মেটাতে সক্ষম হয়েছিলেন ইরফান।

<p><br />
বলিউড এক সময় ছিল অবাস্তব, এ কথা স্বীকার কোনও ক্ষেদ নেই। সেই অবাস্তব দুনিয়াকে বাস্তব করে দেখিয়েছিলেন তিনি।</p>


বলিউড এক সময় ছিল অবাস্তব, এ কথা স্বীকার কোনও ক্ষেদ নেই। সেই অবাস্তব দুনিয়াকে বাস্তব করে দেখিয়েছিলেন তিনি।

<p><br />
বলিউড এক সময় ছিল অবাস্তব, এ কথা স্বীকার কোনও ক্ষেদ নেই। সেই অবাস্তব দুনিয়াকে বাস্তব করে দেখিয়েছিলেন তিনি।</p>


বলিউড এক সময় ছিল অবাস্তব, এ কথা স্বীকার কোনও ক্ষেদ নেই। সেই অবাস্তব দুনিয়াকে বাস্তব করে দেখিয়েছিলেন তিনি।

loader