ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন আমির-কিরণও, ফিরে এসেছিলেন গুরুতর অসুস্থতার মুখ থেকে

First Published 15, Mar 2020, 9:41 AM IST

বিশ্ব জুড়ে এখান সতর্কতা আর আতঙ্ক। করোনা ভাইরাসের জেড়ে নাজেহাল গোটা বিশ্বের মানুষ। কীভাবে ভাইরাসের সঙ্গে করবেন তাঁরা মোকাবিলা, কীভাবেই তাঁরা সতর্কতা অবলম্বণ করবেন তা নিয়েই এখন সচেতনতা তুঙ্গে। তবে কেবলই করোনার প্রকোপ নয়, পাশাপাশি এইচ ওয়ান এন ওয়ার ভাইরাসের সমস্যার দেখা দিচ্ছে বেশ কিছু এলাকাতে। এই রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন আমির খান ও কিরণ রাও। 

এইচ ওয়ান এন ওয়ার ভাইরাস যা সোয়াইন ফ্লু নামেই পরিচিত। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন আমির খান ও তাঁর স্ত্রী।

এইচ ওয়ান এন ওয়ার ভাইরাস যা সোয়াইন ফ্লু নামেই পরিচিত। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন আমির খান ও তাঁর স্ত্রী।

২০১৭ সালে এই দুই তারকার শরীরেই উপসর্গ দেখা দেয় সোয়াইন ফ্লু-র।

২০১৭ সালে এই দুই তারকার শরীরেই উপসর্গ দেখা দেয় সোয়াইন ফ্লু-র।

সোয়াইন ফ্লু ভিষণ পরিমাণে ছোঁয়াচে। তবুও সাবধানতা অবলম্বণ করেই রোগ মুক্ত হয়েছিলেন এই তারকা জুটি।

সোয়াইন ফ্লু ভিষণ পরিমাণে ছোঁয়াচে। তবুও সাবধানতা অবলম্বণ করেই রোগ মুক্ত হয়েছিলেন এই তারকা জুটি।

বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা চলেছিল আমির খান ও কিরণ রাওয়ের।

বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা চলেছিল আমির খান ও কিরণ রাওয়ের।

এই সময় আমির খানে হাতে ছিল বেশকিছু পরিকল্পিত কাজ। কিন্তু সেগুলোতে উপস্থিত থাককে পারেননি আমির খান।

এই সময় আমির খানে হাতে ছিল বেশকিছু পরিকল্পিত কাজ। কিন্তু সেগুলোতে উপস্থিত থাককে পারেননি আমির খান।

একটি এনজিও-র অনুষ্ঠানে যাওয়ার কথা ছিল আমির খানের। কিন্তু সেখানে যেতে না পাড়ায় তার পরিবর্তে উপস্থিত হন শাহরুখ খান।

একটি এনজিও-র অনুষ্ঠানে যাওয়ার কথা ছিল আমির খানের। কিন্তু সেখানে যেতে না পাড়ায় তার পরিবর্তে উপস্থিত হন শাহরুখ খান।

একটি ভিডিও-তে আমির খান জানান তাঁদের এই লড়াইয়ের কথা। ভক্তদের উদ্দেশ্যে তিনি জানিয়েছিলেন এত দিনের অপেক্ষার পর তোমাদের কাছে পৌঁছতে পারলাম না। সোয়াইন ফ্লু হয়েছে। এটি খুব সহজেই ছড়িয়ে পড়।

একটি ভিডিও-তে আমির খান জানান তাঁদের এই লড়াইয়ের কথা। ভক্তদের উদ্দেশ্যে তিনি জানিয়েছিলেন এত দিনের অপেক্ষার পর তোমাদের কাছে পৌঁছতে পারলাম না। সোয়াইন ফ্লু হয়েছে। এটি খুব সহজেই ছড়িয়ে পড়।

তাঁদের এক পারিবারিক বন্ধুই জানিয়েছিলেন ঘরের মধ্যে থাকাই সোয়াইন ফ্লু ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কাকে কমিয়ে দেয়।

তাঁদের এক পারিবারিক বন্ধুই জানিয়েছিলেন ঘরের মধ্যে থাকাই সোয়াইন ফ্লু ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কাকে কমিয়ে দেয়।

বাইরে না বেরলেই তা আর অন্যের সংক্রমণের কারণ হয়ে দাঁড়ায় না।

বাইরে না বেরলেই তা আর অন্যের সংক্রমণের কারণ হয়ে দাঁড়ায় না।

এত ব্যস্ত জুটি এভাবেই এই রোগকে নিরাময় করেছিলেন, যা এক কথায় প্রশংসার দাবি রাখে।

এত ব্যস্ত জুটি এভাবেই এই রোগকে নিরাময় করেছিলেন, যা এক কথায় প্রশংসার দাবি রাখে।

loader