নবাব পুত্রের জন্মদিনে করিনা-নবাব প্রেম কাহিনি দেখুন ছবিতে ছবিতে

First Published 16, Aug 2019, 6:39 PM

১৬ই অগাস্ট সইফ আলি খানের জন্মদিন উপলক্ষ্যে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতা ভরে উঠল শুভেচ্ছা বার্তায়। একই ভাবে তাঁকে শুভেচ্ছা জানালেন করিনা কাপুরও। এদিন অভিনেতার জন্মদিন উপলক্ষ্যে নবাব পরিবারে দিনভর হুল্লোরে মেতে থাকেন সকলেই। তবে তাঁর করিনার সঙ্গে সম্পর্কের শুরুটা কোথায়! কী ভাবে দানা বেঁধেছিল এই সম্পর্ক, আজ নবাব পুত্রের জন্মদিনে দেখে নেওয়া যাক করিনা কাপুরের সঙ্গে তাঁর প্রেমপর্ব। 

 

২০০৯ সালে করিনা কাপুর শহিদ কাপুরের সঙ্গে সম্পর্ক বিচ্ছেদ করে সইফ আলি খানের হাত ধরেন। তবে থেকেই এই জুটি বলিউডের অন্যতম সেরা জুটি নামেই পরিচিত। বি চাউনের পার্ফেক্ট জুটিও বলে থাকেন অনেকে।

২০০৯ সালে করিনা কাপুর শহিদ কাপুরের সঙ্গে সম্পর্ক বিচ্ছেদ করে সইফ আলি খানের হাত ধরেন। তবে থেকেই এই জুটি বলিউডের অন্যতম সেরা জুটি নামেই পরিচিত। বি চাউনের পার্ফেক্ট জুটিও বলে থাকেন অনেকে।

তসন ছবির শ্যুটিং-এর সময় সইফ আলি খানকে দেখে মুগ্ধ হয়েছিলেন করিনা কাপুর। প্রায়সই তাঁরা একসঙ্গে সময় কাটাতেন। শ্যুটিং সেরে বেড়িয়ে পড়তেন ঘুরতে। জল্পনার শুরু তখন থেকেই।

তসন ছবির শ্যুটিং-এর সময় সইফ আলি খানকে দেখে মুগ্ধ হয়েছিলেন করিনা কাপুর। প্রায়সই তাঁরা একসঙ্গে সময় কাটাতেন। শ্যুটিং সেরে বেড়িয়ে পড়তেন ঘুরতে। জল্পনার শুরু তখন থেকেই।

পর পর দুবার করিনা কাপুর সইফ আলি খানকে রিজেক্ট করে দিয়েছিলেন। তিনি নিজেই প্রকাশ্যে জানান এই খবর। প্রথমবার তাঁকে প্রপোজ করা হয় প্যারিসে। সেখানে স্পষ্ট ভাষায় না বলেছিলেন করিনা কপুর।

পর পর দুবার করিনা কাপুর সইফ আলি খানকে রিজেক্ট করে দিয়েছিলেন। তিনি নিজেই প্রকাশ্যে জানান এই খবর। প্রথমবার তাঁকে প্রপোজ করা হয় প্যারিসে। সেখানে স্পষ্ট ভাষায় না বলেছিলেন করিনা কপুর।

দ্বিতীয়বার করিনা কাপুরকে প্রপোজ করা হয় চার্চে। সেখানে না বললেও ততদিনে বেবো-র মন গলে জল। নবাবপুত্রকে দুদিনের সময় দিয়ে বসলেন তিনি। আর তারপরই সম্পর্কে শিলমোহর দেন করিনা কাপুর।

দ্বিতীয়বার করিনা কাপুরকে প্রপোজ করা হয় চার্চে। সেখানে না বললেও ততদিনে বেবো-র মন গলে জল। নবাবপুত্রকে দুদিনের সময় দিয়ে বসলেন তিনি। আর তারপরই সম্পর্কে শিলমোহর দেন করিনা কাপুর।

তাঁদের সম্পর্কের খবর প্রকাশ্যে আসা মাত্রই বেশ খুশি হয়েছিলেন শর্মিলা ঠাকুর। তিনি মহা সমারহে করিনা কাপুরকে বাড়িতে বরণ করে তুলেছিলেন। ছেলের বিয়ে নিয়ে তাঁর যা যা স্বপ্ন ছিল সবই তিনি পূরণ করেছিলেন এই সময়।

তাঁদের সম্পর্কের খবর প্রকাশ্যে আসা মাত্রই বেশ খুশি হয়েছিলেন শর্মিলা ঠাকুর। তিনি মহা সমারহে করিনা কাপুরকে বাড়িতে বরণ করে তুলেছিলেন। ছেলের বিয়ে নিয়ে তাঁর যা যা স্বপ্ন ছিল সবই তিনি পূরণ করেছিলেন এই সময়।

মন্ত্র পড়ে নয়, কেবল রেজিস্ট্রি করেই বিয়ে সেরেছিলেন সইফ-করিনা। তারপর থেকেই তাঁদের সুখী দাম্পত্য জীবনে আসও আঁচ আসেনি।

মন্ত্র পড়ে নয়, কেবল রেজিস্ট্রি করেই বিয়ে সেরেছিলেন সইফ-করিনা। তারপর থেকেই তাঁদের সুখী দাম্পত্য জীবনে আসও আঁচ আসেনি।

বর্তমানে তাঁদের পুত্র সন্তান তৈমুরকে নিয়ে বেজায় খুশি সইফ করিনা। কাজের ফাঁকে হলিডে ট্রিপও সেরে ফেলেন দুজনে।

বর্তমানে তাঁদের পুত্র সন্তান তৈমুরকে নিয়ে বেজায় খুশি সইফ করিনা। কাজের ফাঁকে হলিডে ট্রিপও সেরে ফেলেন দুজনে।