করণ জোহারের সম্মান নষ্ট করতেই 'ধর্মা'র কর্মীকে বিনা কারণে নেয় NCB, দাবি কর্মীর

First Published 27, Sep 2020, 11:48 PM

বলিউডের চাকচিক্কো বাইরে থেকে যেমন লাগে, ভিতর থেকে ততটাই ভিন্ন এই ইন্ডাস্ট্রি। এই কথা কারও জানতে বাকি নেই। নিজেদের 'ইমেজ' থেকে শুরু করে নিজেদের সুপরিচিতি বজায় রাখতে বলিউড সেলেব্রিটিদের রয়েছে আলাদা এক টিম। যারা তারকাদের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল থেকে তাঁদের পাব্লিক অ্যাপিয়ারেন্সের দেখভাল করে। তবে মাঝে মধ্যে তারকাদের ভুল সিদ্ধান্তে তাঁদের নিজেদেরই ইমেজ নষ্ট হয়ে যায় নিমেষে। যা বছরখানেক আগে হয়েছি বলিউডের প্রথম সারির অভিনেতা অভিনেত্রীদের সঙ্গে। জড়িয়ে পড়েছিলেন কয়েকজনের স্ত্রী এবং প্রেমিকারাও। সেই পুরনো ঘটনার রেশ রয়ে গিয়েছে আজও। 

<p>করণ জোহারের অ্যালেজেড 'ড্রাগ পার্টি' নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে। করণের কথায় সেই পার্টিতে মাদকের সেবন করা হয়নি। তেমনটা হলে তিনি কখনই নিজে ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতেন না।</p>

করণ জোহারের অ্যালেজেড 'ড্রাগ পার্টি' নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে। করণের কথায় সেই পার্টিতে মাদকের সেবন করা হয়নি। তেমনটা হলে তিনি কখনই নিজে ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতেন না।

<p>এনসিবি গ্রেফতার করে করণ জোহারের ধর্মা প্রযোজনা সংস্থার কর্মী ক্ষীতিজ প্রসাদকে। যদিও করণ নিজের একটি অফিসিয়াল স্টেটমেন্টে জানান, ক্ষীতিজ তাঁর প্রযোজনা সংস্থার কর্মী নন।&nbsp;</p>

এনসিবি গ্রেফতার করে করণ জোহারের ধর্মা প্রযোজনা সংস্থার কর্মী ক্ষীতিজ প্রসাদকে। যদিও করণ নিজের একটি অফিসিয়াল স্টেটমেন্টে জানান, ক্ষীতিজ তাঁর প্রযোজনা সংস্থার কর্মী নন। 

<p>গ্রেফতার হওয়া ক্ষীতিজ বসলেন বেঁকে। এনসিবি-র কর্মকর্তাদের দোষারোপ করে তিনি আদালতে বলেন, এনসিবি তাঁকে জোরজবরদস্তি করণের সম্মান নষ্ট করতে বাধ্য করেছিল।&nbsp;</p>

গ্রেফতার হওয়া ক্ষীতিজ বসলেন বেঁকে। এনসিবি-র কর্মকর্তাদের দোষারোপ করে তিনি আদালতে বলেন, এনসিবি তাঁকে জোরজবরদস্তি করণের সম্মান নষ্ট করতে বাধ্য করেছিল। 

<p>যদিও এনসিবি এই দাবিকে পুরোপুরি মিথ্যে বলেই উড়িয়ে দেয়। তাদের বক্তব্য অত্যন্ত পেশাগত ভাবেই ক্ষীতিজের তদন্ত চালাচ্ছে এনসিবি-র কর্মকর্তারা।<br />
&nbsp;</p>

যদিও এনসিবি এই দাবিকে পুরোপুরি মিথ্যে বলেই উড়িয়ে দেয়। তাদের বক্তব্য অত্যন্ত পেশাগত ভাবেই ক্ষীতিজের তদন্ত চালাচ্ছে এনসিবি-র কর্মকর্তারা।
 

<p>ক্ষীতিজের বাড়িতে রোল করা গাঁজা অর্থাৎ জয়েন্টের উচ্ছ্বিষ্ট পাওয়া যায়। যার জেরে তিনি গ্রেফতার হয়। এবং তাঁর বাড়িও এখন এনসিবি নিজের আয়ত্তে রেখেছে।&nbsp;</p>

ক্ষীতিজের বাড়িতে রোল করা গাঁজা অর্থাৎ জয়েন্টের উচ্ছ্বিষ্ট পাওয়া যায়। যার জেরে তিনি গ্রেফতার হয়। এবং তাঁর বাড়িও এখন এনসিবি নিজের আয়ত্তে রেখেছে। 

<p>এই বছর মে ও জুলাই নাগাদ ক্ষীতিজ প্রায় সাত হাজারেরও বেশি টাকা ব্যয় করেছিলেন গাঁজা কেনার জন্য। কিছু টাকা ক্যাশে এবং কিছু টাকা অনলাইন পেমেন্ট করেছিলেন।&nbsp;</p>

এই বছর মে ও জুলাই নাগাদ ক্ষীতিজ প্রায় সাত হাজারেরও বেশি টাকা ব্যয় করেছিলেন গাঁজা কেনার জন্য। কিছু টাকা ক্যাশে এবং কিছু টাকা অনলাইন পেমেন্ট করেছিলেন। 

<p>অন্যদিকে সতীশ মানসিন্দে, ক্ষীতিজের আইনজীবী, জানান, "এনসিবি-র পক্ষ থেকে ক্ষীতিজকে প্রথমে জানানোই হয়নি যে তাঁকে গ্রেফতার করা হতে পারে।"</p>

অন্যদিকে সতীশ মানসিন্দে, ক্ষীতিজের আইনজীবী, জানান, "এনসিবি-র পক্ষ থেকে ক্ষীতিজকে প্রথমে জানানোই হয়নি যে তাঁকে গ্রেফতার করা হতে পারে।"

<p>তিনি আরও জানান, ক্ষীতিজকে এনসিবি-র দফতরে একরকম হুমকি দেওয়া হয়, তিনি যদি করণের বিরুদ্ধে বয়ান দেন তবে তারা তাঁকে ছেড়ে দেবে।&nbsp;</p>

তিনি আরও জানান, ক্ষীতিজকে এনসিবি-র দফতরে একরকম হুমকি দেওয়া হয়, তিনি যদি করণের বিরুদ্ধে বয়ান দেন তবে তারা তাঁকে ছেড়ে দেবে। 

<p>মানসিন্দের কথায়, ক্ষীতিজ করণ কিংবা ধর্মা প্রযোজনা সংস্থার কাউকে ব্যক্তিগতভআবে চেনেন না তাই তাঁদের বিরুদ্ধে বয়ান দেওয়ার কথা ক্ষীতিজ ভাবেওনি।</p>

মানসিন্দের কথায়, ক্ষীতিজ করণ কিংবা ধর্মা প্রযোজনা সংস্থার কাউকে ব্যক্তিগতভআবে চেনেন না তাই তাঁদের বিরুদ্ধে বয়ান দেওয়ার কথা ক্ষীতিজ ভাবেওনি।

<p>আপাতত ক্ষীতিজ এবং এনসিবি-র দ্বন্দ্ব তুঙ্গে। যার জেরে করণের নাম জড়িয়ে গিয়েছে। করণ সাফ জানান, তাঁর বিরুদ্ধে কোনও প্রমাণ ছাড়াই এমন অর্থহীন দোষারোপ করা হলে তিনি আইনি ব্যবস্থা নেবেন।</p>

আপাতত ক্ষীতিজ এবং এনসিবি-র দ্বন্দ্ব তুঙ্গে। যার জেরে করণের নাম জড়িয়ে গিয়েছে। করণ সাফ জানান, তাঁর বিরুদ্ধে কোনও প্রমাণ ছাড়াই এমন অর্থহীন দোষারোপ করা হলে তিনি আইনি ব্যবস্থা নেবেন।

loader