গুজবই ভাঙনের কারণ, যাব উই মেট ছবির শেষ অংশই প্রমাণ দিয়েছিল শাহিদ-করিনার বিচ্ছেদের

First Published 25, Feb 2020, 6:57 PM IST

ফিদা থেকে শুরু সম্পর্ক। এরপরই বদলাতে থাকে সমীকরণ। ক্রমেই একে ্ন্যের প্রেম হাবুডুবু খেতে শুরু করেন শাহিদ-করিনা। টিভির পর্দায় এসে সেই খবহর নিজেরাই জানিয়েছিলেন শাহিদ কাপুর ও করিনা কাপুর।

বলিউডে এক সময় শাহিদ কাপুর ও করিনা কাপুর মানেই ছিল লাভ বার্ড জুটি। একে অন্যকে চোখে হারাতেন। অভিনয় জগতের শুরু থেকেই এই দুই তারকা একে অন্যের কাছে আসতে থাকে।

বলিউডে এক সময় শাহিদ কাপুর ও করিনা কাপুর মানেই ছিল লাভ বার্ড জুটি। একে অন্যকে চোখে হারাতেন। অভিনয় জগতের শুরু থেকেই এই দুই তারকা একে অন্যের কাছে আসতে থাকে।

ফিদা ছবিতে প্রথম একে অন্যের প্রতি ভালোবাসা অনুভব করেছিল শাহিদ কাপুর ও করিনা কাপুর। ছবির শ্যুটিং চলাকালিনই একে অন্যের প্রেমে পড়ে।

ফিদা ছবিতে প্রথম একে অন্যের প্রতি ভালোবাসা অনুভব করেছিল শাহিদ কাপুর ও করিনা কাপুর। ছবির শ্যুটিং চলাকালিনই একে অন্যের প্রেমে পড়ে।

২০০৪ সালের ডিসেম্বর সামে প্রকাশ্যে কারিনা কাপুর টিভির পর্দায় জানান যে তিনি শাহিদের সঙ্গে প্রেম করছেন।

২০০৪ সালের ডিসেম্বর সামে প্রকাশ্যে কারিনা কাপুর টিভির পর্দায় জানান যে তিনি শাহিদের সঙ্গে প্রেম করছেন।

তাঁদের প্রায়সই একই সঙ্গে দেখা যেত। তবে পরিবারের কেউ এই বিষয়ে মুখ খোলেননি তখনও। সবটাই চলছিল তাঁদের অলক্ষে।

তাঁদের প্রায়সই একই সঙ্গে দেখা যেত। তবে পরিবারের কেউ এই বিষয়ে মুখ খোলেননি তখনও। সবটাই চলছিল তাঁদের অলক্ষে।

এরপর শাহিদ করিনার সম্পর্কের কথা জানতে পারে তাঁদের পরিবার। সেখানে শুরু হয় নয়া জল্পনা।

এরপর শাহিদ করিনার সম্পর্কের কথা জানতে পারে তাঁদের পরিবার। সেখানে শুরু হয় নয়া জল্পনা।

করণ জোহারের একটি শো-তে এসে প্রথম করিনা কাপুর জানান যে তাঁরা বিয়ে করতে চলেছেন। এরপর ছিল শুধুই দিন ঘোষণার অপেক্ষা।

করণ জোহারের একটি শো-তে এসে প্রথম করিনা কাপুর জানান যে তাঁরা বিয়ে করতে চলেছেন। এরপর ছিল শুধুই দিন ঘোষণার অপেক্ষা।

কয়েকদিনে মধ্যেই হাতে আসে যাব উই মেট ছবির শ্যুটিং। তখন ছবির কাজ শেষ বাকি ছিল শেষ একটা সিক্যুয়েন্স।

কয়েকদিনে মধ্যেই হাতে আসে যাব উই মেট ছবির শ্যুটিং। তখন ছবির কাজ শেষ বাকি ছিল শেষ একটা সিক্যুয়েন্স।

কিসমত কনেকশনের শ্যুটিং করতে শাহিদ যান বাইরে। সেখানেই গুজব ছড়ায় বিদ্যার সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন শাহিদ। এই সময় ভেঙে পড়েন করিনা।

কিসমত কনেকশনের শ্যুটিং করতে শাহিদ যান বাইরে। সেখানেই গুজব ছড়ায় বিদ্যার সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন শাহিদ। এই সময় ভেঙে পড়েন করিনা।

পাশে পেয়েছিলেন সইফ আলি খানকে। তসন ছবির সেটে একে অন্যের সঙ্গে ঘনিষ্ট হয়ে ওঠেন। এর কিছুদিন পর দেশে ফেরেন শাহিদ।

পাশে পেয়েছিলেন সইফ আলি খানকে। তসন ছবির সেটে একে অন্যের সঙ্গে ঘনিষ্ট হয়ে ওঠেন। এর কিছুদিন পর দেশে ফেরেন শাহিদ।

একে অন্যের মুখ দেখা দেখি বন্ধ হয়ে যায়। যাব উই মেট ছবির শেষ অংশ শ্যুটিং করতে আলাদা আলাদা গাড়িতে আসেন তাঁরা।

একে অন্যের মুখ দেখা দেখি বন্ধ হয়ে যায়। যাব উই মেট ছবির শেষ অংশ শ্যুটিং করতে আলাদা আলাদা গাড়িতে আসেন তাঁরা।

এখান থেকেই সমাজের কাছে স্পষ্ট হয়ে যায় শাহিদ করিনার সম্পর্কের বিচ্ছেদের খবর।

এখান থেকেই সমাজের কাছে স্পষ্ট হয়ে যায় শাহিদ করিনার সম্পর্কের বিচ্ছেদের খবর।

loader