'কারও মৃত্যুর জন্য মহেশকে দোষারোপ করা ঠিক নয়', সুশান্ত মামলায় মুখ খুললেন সোনি রাজদান

First Published 8, Jul 2020, 1:37 PM

অবশেষে সুশান্ত সিং রাজপুত বনাম মহেশ ভাট নিয়ে মুখ খুললেন সোনি রাজদান। মহেশ ভাটের বিরুদ্ধে পরোক্ষভাবে সুশান্তের মৃত্যুর দায়, আবার পূর্বপরিকল্পিত খুনের অভিযোগ, সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক, এমন নানা ধরণের অভিযোগ উঠে এসেছে মহেশ ভাটের বিরুদ্ধে। করণ জোহার নানা অভিযোগে ভেঙে পড়লেও এক ফোটাও ভেঙে পড়েননি মহেশ ভাট। বরং বহাল তবিয়তে ট্যুইটারে নিজের আগামী ছবি সড়ক টু-এর প্রচারে লেগে রয়েছেন। মহেশ নিজের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে কিছউ না বললেও অবশেষে মুখ খুলেছেন সোনি রাজদান। 

<p>সুশান্তের মৃত্যুর জেরে মহেশ ভাটের বিরুদ্ধে যা যা অভিযোগ এসেছে সবকিছুকে মিথ্যে দাবি করেছেন সোনি। তাঁকে অকারণে দোষারোপ করা হচ্ছে বলে দাবি করেছেন সোনি। </p>

সুশান্তের মৃত্যুর জেরে মহেশ ভাটের বিরুদ্ধে যা যা অভিযোগ এসেছে সবকিছুকে মিথ্যে দাবি করেছেন সোনি। তাঁকে অকারণে দোষারোপ করা হচ্ছে বলে দাবি করেছেন সোনি। 

<p>নিজের ট্যুইটারে তিনি প্রতিবাদের ঝড় তুলেছেন সোনি। স্বামীর বিরুদ্ধে কোনও কথা শুনতে নারাজ আলিয়ার মা। বরং রুখে দাঁড়াচ্ছেন সে সকল নেটিজেনদের বিরুদ্ধে। </p>

নিজের ট্যুইটারে তিনি প্রতিবাদের ঝড় তুলেছেন সোনি। স্বামীর বিরুদ্ধে কোনও কথা শুনতে নারাজ আলিয়ার মা। বরং রুখে দাঁড়াচ্ছেন সে সকল নেটিজেনদের বিরুদ্ধে। 

<p>সুশান্তের ভক্ত এবং প্রতিবাদীরা সোনির বিরুদ্ধে সুর তুললেও তিনি নিজের বিরোধিতায় অনড়। মহেশ ভাটকে অকারণে দোষারোপ করা অর্থহীন, বর্বরতা। তাঁর দাবি, সঠিক তথ্য না নিয়েই মহেশকে দুষছে সকলে। </p>

সুশান্তের ভক্ত এবং প্রতিবাদীরা সোনির বিরুদ্ধে সুর তুললেও তিনি নিজের বিরোধিতায় অনড়। মহেশ ভাটকে অকারণে দোষারোপ করা অর্থহীন, বর্বরতা। তাঁর দাবি, সঠিক তথ্য না নিয়েই মহেশকে দুষছে সকলে। 

<p>মহেশ সম্বন্ধে এক ব্যক্তি লিখেছেন, "আসল সমস্যা লুকিয়ে রয়েছে স্বজনপোষণে। আপনার তথাকথিত স্বামী এবং আপনার মেয়ের গডফাদার করণ জোহার স্বজনপোষণের ধ্বজাধারী।"</p>

মহেশ সম্বন্ধে এক ব্যক্তি লিখেছেন, "আসল সমস্যা লুকিয়ে রয়েছে স্বজনপোষণে। আপনার তথাকথিত স্বামী এবং আপনার মেয়ের গডফাদার করণ জোহার স্বজনপোষণের ধ্বজাধারী।"

<p>এতেই ক্ষোভ উগরে দিয়ে সোনি লেখেন, "আপনার কাছে যে তথ্যগুলি রয়েছে তা সম্পূর্ণ ভুল। আমার স্বামী এই ইন্ডাস্ট্রিতে এত বহিরাগত শিল্পীদের সুযোগ দিয়েছে যা বলিউডের কোনও প্রযোজক-পরিচালক দেননি। একটা সময় ছিল যখন তিনি দীর্ঘকাল কোনও তারকাদের সঙ্গে কাজ করেননি। যার জেরে তাঁকে এও শুনতে হয় যে তিনি তারকাদের সঙ্গে কাজ করতে নারাজ। তাঁকে দোষারোপ করা হয়।"</p>

এতেই ক্ষোভ উগরে দিয়ে সোনি লেখেন, "আপনার কাছে যে তথ্যগুলি রয়েছে তা সম্পূর্ণ ভুল। আমার স্বামী এই ইন্ডাস্ট্রিতে এত বহিরাগত শিল্পীদের সুযোগ দিয়েছে যা বলিউডের কোনও প্রযোজক-পরিচালক দেননি। একটা সময় ছিল যখন তিনি দীর্ঘকাল কোনও তারকাদের সঙ্গে কাজ করেননি। যার জেরে তাঁকে এও শুনতে হয় যে তিনি তারকাদের সঙ্গে কাজ করতে নারাজ। তাঁকে দোষারোপ করা হয়।"

<p>তিনি এও লেখেন, আসল বিষয়টি মানসিক অবসাদ নিয়ে। হলিউডের তাবড় তাবড় শিল্পীরা যেমন রবিন উইলিয়ামস, কেট স্পেড, অ্যান্টনি বোর্ডেন সহ অনেকেই নিজেদের সফল জীবনের পরও মানসিক অবসাদে ভুগে আত্মহত্যা করেছিলেন। </p>

তিনি এও লেখেন, আসল বিষয়টি মানসিক অবসাদ নিয়ে। হলিউডের তাবড় তাবড় শিল্পীরা যেমন রবিন উইলিয়ামস, কেট স্পেড, অ্যান্টনি বোর্ডেন সহ অনেকেই নিজেদের সফল জীবনের পরও মানসিক অবসাদে ভুগে আত্মহত্যা করেছিলেন। 

<p>মানুষের মধ্যে কী চলছে তা আমরা কেউই জানি না। মানসিক ভাবে সে কীভাবে ভুগছে সেটাই মানসিক অবসাদের মূল কারণ। তাই শুধু শুধু একজনের মৃত্যুর জন্য, অবসাদের জন্য অন্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা ঠিক নয়। </p>

মানুষের মধ্যে কী চলছে তা আমরা কেউই জানি না। মানসিক ভাবে সে কীভাবে ভুগছে সেটাই মানসিক অবসাদের মূল কারণ। তাই শুধু শুধু একজনের মৃত্যুর জন্য, অবসাদের জন্য অন্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা ঠিক নয়। 

loader