19

লিভইন বা গোপনে প্রেম, সুস্মিতার বর্ণময় রোম্যান্সের জীবন জুড়ে কেবলই একাধিক পুরুষের আনাগোনা। কখনও কয়েকমাস, কখনও আবার বছর চারেক স্থায়ী হওয়া সম্পর্ক ভেঙেছে বারে বারে, আর ততবারই অন্য কারুর মাঝে প্রেম খুঁজে নিয়েছেন তিনি। 

Subscribe to get breaking news alerts

29

একপ্রকার রহমানের সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করছিলেন সুস্মিতা সেন (Sushmita Sen)। প্রতিটা পোস্টেই (Viral Post) সেই ইঙ্গিত ছিল স্পষ্ট।  একের পর এক পোস্টে কেবলই যেখন সুস্মিতার ঘনিষ্ট দৃশ্য ভাইরাল, হলিডে ট্রিপ থেকে শুরু করে পারিবারিক গেট টুগেটার, সেখানেই   ঘটল ছন্দ পতন। 

39

টানা তিন বছর প্রেমের পর এবার সম্পর্ক ভাঙল রহমানের সঙ্গেও। সুস্মিতার অ্যাপার্টমেন্ট ছেড়ে বৃহস্পতিবারই রহমানের  বেরিয়ে যাওয়ার খবর সামনে আসে। কেবল রহমানই নয়, একাধিক পুরুষ ঝড় তুলেছিল সুস্মিতার জীবনে। 

49

ওয়াসিম আক্রমঃ পাকিস্তানি এই ক্রিকেটারের সঙ্গে সুস্মিতার প্রেমালাপ চলেছিল বহু বছর। বিয়ের খবরও ছড়িয়ে গিয়েছিল চারিদিকে। কারণ তখন ওয়াসিম আক্রম বিবাহিত। সেই জন্যই তাঁদের মধ্যে থাকা সম্পর্ক গোপনেই থেকে যায়। 

59

অনিল অম্বানিঃ সূত্রের খবর অনিল এবং টিনার সম্পর্কে চিড় ধরে যখন অনিল মিস ইউনিভার্সের সৌন্দর্যের কাছে মন দিয়ে বসেন। গুজবে কান দিলেন রেনে আদপে অনিল এবং সুস্মিতারই মেয়ে, ঘনিষ্ঠ সূত্র থেকে জানা গেছে, অনিলকে ডিভোর্স দিতে রাজি ছিলেন না টিনা।

69

সবীর ভাটিয়াঃ সুস্মিতা এই হটমেল ডট কমের মালিকের সঙ্গে প্রেম করেছিলেন বেশ কিছুদিন। ছড়িয়ে ছিল সম্পর্কের নানা জল্পনা থেকে গুজব। বেশ কয়েকদিন ধরেই চলেছিল এই সম্পর্ক। কিন্তু তাতেও ইতি টানতে ভোলেননি এই সেলেব। 

79

রণদীপ হুডাঃ শ্যুটিং সেট থেকে আলাপ এই দুই স্টারের। 'কর্মা' ও 'হোলি' ছবি দু'টির শ্যুটিং চলাকালীন রণদীপের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে সুস্মিতার। তবে সেই সম্পর্ক ছিল না বেশি দিন। ব্রেক আপের পরও তাঁদের মধ্যে বন্ধুত্ব বজায় থাকার খবর মেলে। 

89

ঋত্বিক ভাসিনঃ কেবল সিনে জগত থেকে নয়, বিভিন্ন সেক্টর থেকে সম্পর্কের জেরে একাধিক প্রেম উঁকি দিয়েছে তাঁর জীবনে। মুম্বইয়ের এক রেস্তোরাঁর মালিক তিনি। চার বছর সুস্মিতা তাঁকে ডেট করেন। তবে এই সম্পর্কও টিকে থাকেনি। কেন সম্পর্ক ভেঙে যায় তবে কারণ প্রকাশ্যে আসেনি।

 

99

বিক্রম ভাটঃ পরিচালক বিক্রম ভাটের সঙ্গে তাঁর নাম জড়িয়ে বেশ কিছুদিনের মধ্যে তা ভাইরাল। ১৯৯৬ সালে দস্তক ছবির সেটে প্রেমালাপ শুরু হয় তাঁদের। সেখান থেকেই বাড়তে থাকে সম্পর্কের পারদ। সুস্মিতার জন্য নিজের পরিবারকেও ছেড়ে দিয়েছিলেন বিক্রম। কিন্তু এই সম্পর্কও টেকেনি বেশি দিন।