করিনার নগ্নতা ভেসে উঠল ছবির পোস্টারে, সম্মান রক্ষার্থে শাড়ি 'ছুঁড়ে' মারল শিবসেনা

First Published 25, Aug 2020, 12:35 PM

করিনা কাপুর খান সাধারণত নিজের বেফাঁস মন্তব্যের কারণেই বিতর্কে জড়িয়ে থাকেন। কখনও প্রিয়ঙ্কা চোপড়াকে খারাপ অভিনেত্রী বলা তো কখনও ঐশ্বর্য রাইকে অন্য প্রজন্মের অভিনেত্রী বলে ব্যঙ্গ করা। করিনার মুখ যেন কাঁচির মত। নন ফিল্টার অ্যাটিটিউড নিয়েই আজ পর্যন্ত টিকে আছে বলউডে। এমনকি তাঁর বিরুদ্ধে কোনও বিতর্কের প্রসঙ্গ এলেও ফুঁ মেরে উড়িয়ে দিয়েছেন সেসব। তেমনই ২০০৯ সালের ছবি কুরবান নিয়েও এমনই আচরণ করেছিলেন করিনা। 

<p>ছবিটি বিলো অ্যাভারেজের তকমা পেয়েছিল সেই সময়। পরবর্তীকালে দর্শক সেই ছবি বেশ পছন্দ করে।&nbsp;</p>

ছবিটি বিলো অ্যাভারেজের তকমা পেয়েছিল সেই সময়। পরবর্তীকালে দর্শক সেই ছবি বেশ পছন্দ করে। 

<p style="text-align: justify;">কুরবান ছবির বিষয়বস্তুত ছিল ড্রামা, থ্রিলার এবং অ্যাকশন। করিনা এবং সইফকে পর্দায় একসঙ্গে দেখে মুগ্ধ হয়েছিল দর্শকমহল।&nbsp;</p>

কুরবান ছবির বিষয়বস্তুত ছিল ড্রামা, থ্রিলার এবং অ্যাকশন। করিনা এবং সইফকে পর্দায় একসঙ্গে দেখে মুগ্ধ হয়েছিল দর্শকমহল। 

<p style="text-align: justify;">সেই সময় তাঁদের প্রেমালাপও তুঙ্গে। ছবিটির চিত্রনাট্য নিয়ে কারও কোনও সমস্যা না থাকলেও সমস্যা ছিল ছবির পোস্টার নিয়ে।&nbsp;</p>

সেই সময় তাঁদের প্রেমালাপও তুঙ্গে। ছবিটির চিত্রনাট্য নিয়ে কারও কোনও সমস্যা না থাকলেও সমস্যা ছিল ছবির পোস্টার নিয়ে। 

<p style="text-align: justify;">প্রথম পোস্টার মুক্তি পেতেই চোখ কপালে একাংশ দর্শকের। অনেকেই নানা মন্তব্য ও সমালোচনা করতে থাকে।&nbsp;</p>

প্রথম পোস্টার মুক্তি পেতেই চোখ কপালে একাংশ দর্শকের। অনেকেই নানা মন্তব্য ও সমালোচনা করতে থাকে। 

<p>শার্টলেস সইফ এবং নগ্ন করিনাকে দেখা যাচ্ছে পোস্টারে। উন্মুক্ত পিঠ ফ্লন্ট করে সইফের সামনে পিছন ঘুরে দাঁড়িয়ে করিনা।&nbsp;</p>

শার্টলেস সইফ এবং নগ্ন করিনাকে দেখা যাচ্ছে পোস্টারে। উন্মুক্ত পিঠ ফ্লন্ট করে সইফের সামনে পিছন ঘুরে দাঁড়িয়ে করিনা। 

<p>এতেই আইনি অভিযোগ করার প্রচেষ্টা শুরু করল শিবসেনা। খোলা পিঠ কেন দেখানো হবে পোস্টারে।&nbsp;</p>

এতেই আইনি অভিযোগ করার প্রচেষ্টা শুরু করল শিবসেনা। খোলা পিঠ কেন দেখানো হবে পোস্টারে। 

<p>শুরু হল সাংঘাতিক বিতর্ক। করিনাকে শাড়ি একরকম 'ছুঁড়ে' মারে শিবসেনা। তাদের আদেশ ছিল 'নিজের সম্মান ঢাকুন।'</p>

শুরু হল সাংঘাতিক বিতর্ক। করিনাকে শাড়ি একরকম 'ছুঁড়ে' মারে শিবসেনা। তাদের আদেশ ছিল 'নিজের সম্মান ঢাকুন।'

<p>এতেই বেজায় চটেন বেগম। তবে জনসমক্ষে একটিও বেফাঁস মন্তব্য করেননি তিনি।&nbsp;</p>

এতেই বেজায় চটেন বেগম। তবে জনসমক্ষে একটিও বেফাঁস মন্তব্য করেননি তিনি। 

<p>বরং প্রতিটি প্রচারে এই বিষয় প্রশ্ন করা হলে সম্পূর্ণ এড়িয়ে গিয়েছেন। অন্যদিকে সই জবাব দিয়ে বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন।&nbsp;</p>

বরং প্রতিটি প্রচারে এই বিষয় প্রশ্ন করা হলে সম্পূর্ণ এড়িয়ে গিয়েছেন। অন্যদিকে সই জবাব দিয়ে বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন। 

loader