সস্তায় গ্রাহকরা পেয়েছিল ইন্টারনেট ব্যবহারের সুবিধা, মুকেশ আম্বানির সংস্থা কী কী প্ল্যান নিয়ে হাজির লকডাউনে

First Published 19, Apr 2020, 5:20 PM

রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ এনএসই এর চেয়ারম্যান মুকেশ আম্বানি বলেছিলেন, আগামী এক দশকে ভারত বিশ্বের অর্থনৈতিক ভাবে শীর্ষ এমন তিনটি দেশের মধ্যে থাকবে। আর এই স্থানে পরিণত হওয়ার জন্য আগামী দশকে ২.৫ মিলিয়ন ডলার অর্থনীতির থেকে ৭ ট্রিলিয়ন ডলারে পৌঁছতে হবে দেশকে। যার জন্য সবথেকে আগ্রণী ভূমিকা নিতে হবে দেশের আইটি সংস্থাগুলির। এর জন্য দেশের টেলিকম এবং আইটি শিল্পের প্রয়োজনীয় ডিজিটাল পরিকাঠামো তৈরি করা প্রয়োজন। সেই পরিকাঠামো মজবুতির স্বপ্ন দেখেই টেলিকম দুনিয়ায় মাত্র কিছু সময়ের মধ্যেই সবার প্রথম সারিতে নিজের জায়গা করে নিয়েছে আম্বানি গ্রুপ।

<p>২০১২ সালে ফোর্বস তাকে সবচেয়ে ধনী ক্রীড়াদলের মালিক করে উল্লেখ করে। তিনি বিশ্বের অন্যতম ব্যয়বহুল বাড়ি আন্তিলিয়ায় বাস করেন। এই বাড়িটির মূল্য প্রায় ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। &nbsp;২০১৬ সালে তিনি ফোর্বস ম্যাগাজিনের করা বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তির তালিকায় ৩৮তম স্থান অধিকার করেন, এবং এই তালিকায় তিনিই একমাত্র ভারতীয়।</p>

২০১২ সালে ফোর্বস তাকে সবচেয়ে ধনী ক্রীড়াদলের মালিক করে উল্লেখ করে। তিনি বিশ্বের অন্যতম ব্যয়বহুল বাড়ি আন্তিলিয়ায় বাস করেন। এই বাড়িটির মূল্য প্রায় ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।  ২০১৬ সালে তিনি ফোর্বস ম্যাগাজিনের করা বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তির তালিকায় ৩৮তম স্থান অধিকার করেন, এবং এই তালিকায় তিনিই একমাত্র ভারতীয়।

<p>২০১৮ সাল পর্যন্ত মুকেশ আম্বানি টানা ১২ বছর ফোর্বস&nbsp;তালিকায় ভারতের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি স্থান ধরে রাখেন। ২০১৯ সালে ফোর্বসের বিশ্বজোড়া কোটিপতি তালিকায় ১৩তম তিনি। তাঁর মোট সম্পত্তির পরিমাণ ৫০০০ কোটি মার্কিন ডলার।</p>

২০১৮ সাল পর্যন্ত মুকেশ আম্বানি টানা ১২ বছর ফোর্বস তালিকায় ভারতের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি স্থান ধরে রাখেন। ২০১৯ সালে ফোর্বসের বিশ্বজোড়া কোটিপতি তালিকায় ১৩তম তিনি। তাঁর মোট সম্পত্তির পরিমাণ ৫০০০ কোটি মার্কিন ডলার।

<p>করোনা আতঙ্কে গৃহবন্দী গ্রাহকদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করেছে জিও। যাতে গ্রাহরা ঘরে থেকেই আরও বেশি সময় করতে পারবেন নেট সার্ফিং। এছাড়াও লক ডাউনের কারণে বেশিরভাগ কাজ হচ্ছে বাড়ি থেকে। ফলে লকডাউনে বেশ কিছুটা বেড়ে গিয়েছে ইন্টারনেট এর ব্যবহার। এর আগেও গ্রাহকদের বিশেষ সুবিধা দিতে সেরা অফার এনেছিল দেশের সেরা টেলিকম সংস্থা রিলায়েন্স জিও। এবারে লকডাউনের ফলে প্রিপেইড পরিষেবা মেয়াদ ৩ মে পর্যন্ত বাড়ানোর কথা ঘোষনা করেছে।</p>

করোনা আতঙ্কে গৃহবন্দী গ্রাহকদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করেছে জিও। যাতে গ্রাহরা ঘরে থেকেই আরও বেশি সময় করতে পারবেন নেট সার্ফিং। এছাড়াও লক ডাউনের কারণে বেশিরভাগ কাজ হচ্ছে বাড়ি থেকে। ফলে লকডাউনে বেশ কিছুটা বেড়ে গিয়েছে ইন্টারনেট এর ব্যবহার। এর আগেও গ্রাহকদের বিশেষ সুবিধা দিতে সেরা অফার এনেছিল দেশের সেরা টেলিকম সংস্থা রিলায়েন্স জিও। এবারে লকডাউনের ফলে প্রিপেইড পরিষেবা মেয়াদ ৩ মে পর্যন্ত বাড়ানোর কথা ঘোষনা করেছে।

<p>আর এবার মুকেশ আম্বানি সংস্থা জিও তাদের প্রিপেইড গ্রাহকদের জন্য আনল লকডাউনে এই বিশেষ সুবিধা। কারেন্ট প্রিপেইড প্ল্যানের বৈধতার মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও ইনকামিং কলগুলি চালু থাকবে গ্রাহকদের নম্বরে। এমনটাই &nbsp;সিদ্ধান্ত নিয়েছে রিলায়েন্স জিও।&nbsp;</p>

আর এবার মুকেশ আম্বানি সংস্থা জিও তাদের প্রিপেইড গ্রাহকদের জন্য আনল লকডাউনে এই বিশেষ সুবিধা। কারেন্ট প্রিপেইড প্ল্যানের বৈধতার মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও ইনকামিং কলগুলি চালু থাকবে গ্রাহকদের নম্বরে। এমনটাই  সিদ্ধান্ত নিয়েছে রিলায়েন্স জিও। 

<p>এমন পরিস্থিতিতে যাঁদের আয় কম ও যারা বাইরে গিয়ে রিচার্জ করাতে পারছেন না তাদেরও সুবিধা হবে ৷ যে উপভোক্তারা লকডাউনের ফলে রিচার্জ করাতে পারেনি তারা লকডাউন শেষ হওয়া পর্যন্ত ইকামিং কলের সুবিধা পাবেন ৷&nbsp;</p>

এমন পরিস্থিতিতে যাঁদের আয় কম ও যারা বাইরে গিয়ে রিচার্জ করাতে পারছেন না তাদেরও সুবিধা হবে ৷ যে উপভোক্তারা লকডাউনের ফলে রিচার্জ করাতে পারেনি তারা লকডাউন শেষ হওয়া পর্যন্ত ইকামিং কলের সুবিধা পাবেন ৷ 

<p>ভোডাফোন, আইডিয়া লকডাউনের কারণে প্রিপেইড গ্রাহকদের প্ল্যানের বৈধতা বাড়ানোর ঘোষণা করেছে। যা প্রাথমিকভাবে এপ্রিল ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত রাখা হয়েছিল তবে এখন বাড়িয়ে ৩ মে করা হয়েছে। সমস্ত টেলিকম সংস্থাগুলি তাদের নম্বর রিচার্জ করার জন্য নতুন সুযোগ প্রদান করেছে।&nbsp;</p>

ভোডাফোন, আইডিয়া লকডাউনের কারণে প্রিপেইড গ্রাহকদের প্ল্যানের বৈধতা বাড়ানোর ঘোষণা করেছে। যা প্রাথমিকভাবে এপ্রিল ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত রাখা হয়েছিল তবে এখন বাড়িয়ে ৩ মে করা হয়েছে। সমস্ত টেলিকম সংস্থাগুলি তাদের নম্বর রিচার্জ করার জন্য নতুন সুযোগ প্রদান করেছে। 

<p>রিলায়েন্স জিওর যেই গ্রাহকদের ডিজিটাল মাধ্যমটি ব্যবহার করতে সক্ষম নয়, এমন গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টগুলি রিচার্জ করতে এনেছে বিশেষ সুবিধা। এর ফলে গুগল প্লে স্টোর থেকে জিওপিওএস লাইট অ্যাপ্লিকেশন আনা হয়েছে যা অন্যান্য গ্রাহকদের প্রতিটি রিচার্জের জন্য জিও ৪ শতাংশ কমিশন দেবে&nbsp;যেই নম্বর থেকে রিচার্জ করা হবে সেই গ্রাহককে।</p>

রিলায়েন্স জিওর যেই গ্রাহকদের ডিজিটাল মাধ্যমটি ব্যবহার করতে সক্ষম নয়, এমন গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টগুলি রিচার্জ করতে এনেছে বিশেষ সুবিধা। এর ফলে গুগল প্লে স্টোর থেকে জিওপিওএস লাইট অ্যাপ্লিকেশন আনা হয়েছে যা অন্যান্য গ্রাহকদের প্রতিটি রিচার্জের জন্য জিও ৪ শতাংশ কমিশন দেবে যেই নম্বর থেকে রিচার্জ করা হবে সেই গ্রাহককে।

<p>টেলিকম সংস্থাগুলি গ্রাহকদের ফোন রিচার্জের জন্য সরাসরি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট মাধ্যমেও রিচার্জের সুবিধা এনেছে। রিলায়েন্স জিও এটিএমের মাধ্যমে নম্বর রিচার্জের বিকল্গুলি সরবরাহ করতে নির্বাচিত ব্যাংকগুলির সঙ্গে ইতিমধ্যেই যুক্ত হয়েছে। এক্সিস এবং এইচডিএফসি ব্যাংক ব্যবহার করে এসএমএসের মাধ্যমে রিচার্জের বিকল্প ব্যবস্থা করেছে আম্বানি সংস্থা জিও।</p>

টেলিকম সংস্থাগুলি গ্রাহকদের ফোন রিচার্জের জন্য সরাসরি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট মাধ্যমেও রিচার্জের সুবিধা এনেছে। রিলায়েন্স জিও এটিএমের মাধ্যমে নম্বর রিচার্জের বিকল্গুলি সরবরাহ করতে নির্বাচিত ব্যাংকগুলির সঙ্গে ইতিমধ্যেই যুক্ত হয়েছে। এক্সিস এবং এইচডিএফসি ব্যাংক ব্যবহার করে এসএমএসের মাধ্যমে রিচার্জের বিকল্প ব্যবস্থা করেছে আম্বানি সংস্থা জিও।

<p>মেয়াদ বাড়ানোর প্রেক্ষিতে সেলুলার অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া (সিওএআই) ট্রাইকে জানিয়েছে যে, দেশের এমন পরিস্থিতিতে গ্রাহকদের কোনও নিয়ম ছাড়াই মোবাইল পরিষেবার ক্ষেত্রে আরও বিশেষ সুবিধা দিতে হলে,&nbsp;অন্যান্য প্রয়োজনীয় পরিষেবার মতো টেলিকম খাতে ভর্তুকি দেওয়ার বিষয়ে চিন্তা ভাবনা করা প্রয়োজন।</p>

মেয়াদ বাড়ানোর প্রেক্ষিতে সেলুলার অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া (সিওএআই) ট্রাইকে জানিয়েছে যে, দেশের এমন পরিস্থিতিতে গ্রাহকদের কোনও নিয়ম ছাড়াই মোবাইল পরিষেবার ক্ষেত্রে আরও বিশেষ সুবিধা দিতে হলে, অন্যান্য প্রয়োজনীয় পরিষেবার মতো টেলিকম খাতে ভর্তুকি দেওয়ার বিষয়ে চিন্তা ভাবনা করা প্রয়োজন।

loader