ঘরে বসেই শুরু করুন এই ১০ ব্যবসা, যাতে প্রয়োজন নেই পুঁজির

First Published Dec 9, 2020, 10:14 AM IST

ব্যবসা করার ইচ্ছে থাকে অনেকেরই। তবে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ইনভেস্টমেন্টের কথা ভেবে পিছিয়ে যান সকলে। ব্যবসা করার ক্ষেত্রে যে সব সময়েই প্রচুর পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন, এমনটা ভাবা একেবারেই ভুল। কোনওরকম অর্থ ব্যয় না করেও ঘরে বসেই ব্যবসা শুরু করা সম্ভব। সেক্ষেত্রে কোন ব্যবসা করবেন সেটাই বুঝে উঠতে পারেননা অনেকেই। এমন অনেক ব্যবসা আছে যার জন্য খুব সামান্য অর্থ বা কোনওরকম অর্থ ব্যয়ের প্রয়োজন নেই। 

<p>Dog Sitter- কুকুর পছন্দ করেন এমন মানুষের সংখ্যা নেহাত কম নয়। কুকুরের প্রতি ভালোবাসাকে কাজে লাগিয়েই ঘরে বসেই শুরু করতে পারেন এই ব্যবসা। এই ব্যবসার জন্য কোনওরকম খরচের কোনও প্রয়োজনই নেই। তবে এই নিয়ে একটি কোর্স করে নিলে আরও ভালো।&nbsp;</p>

Dog Sitter- কুকুর পছন্দ করেন এমন মানুষের সংখ্যা নেহাত কম নয়। কুকুরের প্রতি ভালোবাসাকে কাজে লাগিয়েই ঘরে বসেই শুরু করতে পারেন এই ব্যবসা। এই ব্যবসার জন্য কোনওরকম খরচের কোনও প্রয়োজনই নেই। তবে এই নিয়ে একটি কোর্স করে নিলে আরও ভালো। 

<p style="text-align: justify;">Private Tutor- প্রাইভেট টিউটর বা গৃহশিক্ষকতা করে এখন অনেকেই প্রচুর পরিমাণ আয় করেন। পড়াশোনা করতে যদি আপনার ভালোলাগে এবং ছোটদের পড়াতে, তবে ঘরে বসেই আপনি পড়ানো শুরু করতে পারেন। যা থেকে&nbsp;এখন ভালোই আয় হয়। পাশাপাশি অনলাইনেও পড়াতেই পারেন।</p>

<p style="text-align: justify;"><br />
&nbsp;</p>

Private Tutor- প্রাইভেট টিউটর বা গৃহশিক্ষকতা করে এখন অনেকেই প্রচুর পরিমাণ আয় করেন। পড়াশোনা করতে যদি আপনার ভালোলাগে এবং ছোটদের পড়াতে, তবে ঘরে বসেই আপনি পড়ানো শুরু করতে পারেন। যা থেকে এখন ভালোই আয় হয়। পাশাপাশি অনলাইনেও পড়াতেই পারেন।


 

<p>T-shirt designer- যদি আপনার মধ্যে ক্রিয়েটিভিটি বা সৃজনশীলতা থাকে তবে তা কাজে লাগিয়ে এই টি-শার্ট ডিজাইনিং -এর ব্যবসাও আপনি শুরু করতে পারেন। সে ক্ষেত্রে আপনাকে প্রথমে গ্রাফিক্স ডিজাইনিং সফ্টওয়ারের মাধ্যমে প্রথমে টি-শার্টে ডিজাইন করে নিতে হবে। তারপরে সেটাকে আপনি বিক্রি করতে পারেন। এই ব্যবসা থেকেও এখন ভালোই আয় হয়।&nbsp;<br />
&nbsp;</p>

T-shirt designer- যদি আপনার মধ্যে ক্রিয়েটিভিটি বা সৃজনশীলতা থাকে তবে তা কাজে লাগিয়ে এই টি-শার্ট ডিজাইনিং -এর ব্যবসাও আপনি শুরু করতে পারেন। সে ক্ষেত্রে আপনাকে প্রথমে গ্রাফিক্স ডিজাইনিং সফ্টওয়ারের মাধ্যমে প্রথমে টি-শার্টে ডিজাইন করে নিতে হবে। তারপরে সেটাকে আপনি বিক্রি করতে পারেন। এই ব্যবসা থেকেও এখন ভালোই আয় হয়। 
 

<p style="text-align: justify;">Blogging- ব্লগার কথাটার সঙ্গে এখন অনেকেই পরিচিত। এই ব্লগিং থেকেও প্রচুর পরিমণ অর্থ উপার্জন করা সম্ভব। তবে সেক্ষেত্রে আপনার লেখায় দক্ষতা থাকাটা বেশ প্রয়োজন।&nbsp;ট্রাভেল ব্লগ বা ফুড&nbsp;ব্লগ এমনকি কসমেটিক্স রিভিউ নিয়েও অনেকেই ব্লগ লেখেন। সেক্ষেত্রে আপনার পছন্দের বিষয়টি বেছে নিয়ে ব্লগ লেখা শুরু করতেই পারেন।</p>

Blogging- ব্লগার কথাটার সঙ্গে এখন অনেকেই পরিচিত। এই ব্লগিং থেকেও প্রচুর পরিমণ অর্থ উপার্জন করা সম্ভব। তবে সেক্ষেত্রে আপনার লেখায় দক্ষতা থাকাটা বেশ প্রয়োজন। ট্রাভেল ব্লগ বা ফুড ব্লগ এমনকি কসমেটিক্স রিভিউ নিয়েও অনেকেই ব্লগ লেখেন। সেক্ষেত্রে আপনার পছন্দের বিষয়টি বেছে নিয়ে ব্লগ লেখা শুরু করতেই পারেন।

<p>Youtuber- ইউটিউব থেকে&nbsp;এখন অনেকেই ভালো আয় করছেন। ইউটিউবের ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই কনটেন্টের ওপরে জোড় দিতে হবে, যা দর্শকরা পছন্দ করবেন। ঘরে বসে কোনওরকম খরচা না করেই এই ব্যবসা আপনি শুরু করতে পারেন। চ্যানেল ভালো চললে তা থেকে ভালোই উপর্জন হবে।</p>

Youtuber- ইউটিউব থেকে এখন অনেকেই ভালো আয় করছেন। ইউটিউবের ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই কনটেন্টের ওপরে জোড় দিতে হবে, যা দর্শকরা পছন্দ করবেন। ঘরে বসে কোনওরকম খরচা না করেই এই ব্যবসা আপনি শুরু করতে পারেন। চ্যানেল ভালো চললে তা থেকে ভালোই উপর্জন হবে।

<p>Bakery- এখন কম বেশি এখন কেক বিস্কুটের চাহিদা থাকে সারাবছরই। আর সেই কেক বিস্কুট বানানোই যদি আপনার পছন্দের কাজ হয় তাবে তা থেকেই শুরু করতে পারেন আপনার ব্যবসা।&nbsp;</p>

Bakery- এখন কম বেশি এখন কেক বিস্কুটের চাহিদা থাকে সারাবছরই। আর সেই কেক বিস্কুট বানানোই যদি আপনার পছন্দের কাজ হয় তাবে তা থেকেই শুরু করতে পারেন আপনার ব্যবসা। 

<p>Voice Over Artist- যদি আপনি মনে করেন আপনার কন্ঠস্বর আকর্ষনীয়, যা মন কারবে সকলের তবে আপনি নিজের কষ্ঠস্বরকে কাজে লাগিয়েই শুরু করতে পারেন আপনার ব্যবসা। এখন অনলাইনে খুব সহজেই নিজের ভয়েস ওভার পাঠানো যায়। যা থেকে ভালো উপার্জনও হয়।&nbsp;</p>

Voice Over Artist- যদি আপনি মনে করেন আপনার কন্ঠস্বর আকর্ষনীয়, যা মন কারবে সকলের তবে আপনি নিজের কষ্ঠস্বরকে কাজে লাগিয়েই শুরু করতে পারেন আপনার ব্যবসা। এখন অনলাইনে খুব সহজেই নিজের ভয়েস ওভার পাঠানো যায়। যা থেকে ভালো উপার্জনও হয়। 

<p>Child Care Provider- এখন বেশিরভাগ পরিবারেই মা-বাবা দুজনেই কাজে ব্যস্ত থাকেন। বাচ্চাদের তাঁরা তেমন সময় দিতে পারেননা বললেই চলে। সে ক্ষেত্রে অনেকেই নিজের বাচ্চা কোথাও রেখেই কর্মক্ষেত্রে যান। যদি আপনি এই&nbsp;বাচ্চাদের দেখাশোনার কাজ করেন তবে তা থেকেও&nbsp;আপনি ঘরে বসেই উপর্জন করতে পারবেন। যার জন্য আপনার নিজের অর্থ ব্যায়ের কোনও প্রয়োজন নেই।</p>

Child Care Provider- এখন বেশিরভাগ পরিবারেই মা-বাবা দুজনেই কাজে ব্যস্ত থাকেন। বাচ্চাদের তাঁরা তেমন সময় দিতে পারেননা বললেই চলে। সে ক্ষেত্রে অনেকেই নিজের বাচ্চা কোথাও রেখেই কর্মক্ষেত্রে যান। যদি আপনি এই বাচ্চাদের দেখাশোনার কাজ করেন তবে তা থেকেও আপনি ঘরে বসেই উপর্জন করতে পারবেন। যার জন্য আপনার নিজের অর্থ ব্যায়ের কোনও প্রয়োজন নেই।

<p>Recycle Handmade Seller- ফেলে দেওয়া জিনিস দিয়ে অনেকেই অনেক কিছু বানাতে পছন্দ করেন। আর সেই জিনিস বিক্রি করেই আপনি আয়ও করতে পারেন। অনলাইন বা অফলাইন আপনি হাতে তৈরি সেইসব জিনিস বিক্রি করতে পারেন। যা থেকে এখন ভালোই আয় হয়।&nbsp;&nbsp;</p>

Recycle Handmade Seller- ফেলে দেওয়া জিনিস দিয়ে অনেকেই অনেক কিছু বানাতে পছন্দ করেন। আর সেই জিনিস বিক্রি করেই আপনি আয়ও করতে পারেন। অনলাইন বা অফলাইন আপনি হাতে তৈরি সেইসব জিনিস বিক্রি করতে পারেন। যা থেকে এখন ভালোই আয় হয়।  

<p>Freelance Writer- লেখালেখিতে যদি আপনার আগ্রহ থাকে তবে অবসর সময়ে লেখা লেখা করেও অপনি আয় করতে পারেন। ফ্রিলান্স রাইটার হিসিবে এখন অনেকেই নিজের লেখা&nbsp;সংবাদমাধ্যম থেকে শুরু করে ম্যাগাজিনে পাঠিয়ে থাকেন। যা থেকে ঘরে বসেই ভালো আয় হয়।</p>

Freelance Writer- লেখালেখিতে যদি আপনার আগ্রহ থাকে তবে অবসর সময়ে লেখা লেখা করেও অপনি আয় করতে পারেন। ফ্রিলান্স রাইটার হিসিবে এখন অনেকেই নিজের লেখা সংবাদমাধ্যম থেকে শুরু করে ম্যাগাজিনে পাঠিয়ে থাকেন। যা থেকে ঘরে বসেই ভালো আয় হয়।

Today's Poll

একসঙ্গে কতজন প্লেয়ারের সঙ্গে খেলতে পছন্দ করেন