চিকেন ও ডিম খেলে কি বার্ড ফ্লু ছড়িয়ে পড়তে পারে, জেনে নিন এই বিষয়ে কি বলছেন বিশেষজ্ঞরা

First Published Jan 13, 2021, 3:48 PM IST

গত দশ দিনে হাঁস, মুরগি কাক, ছাড়াও নানান প্রজাতির লক্ষ লক্ষ পাখি বার্ড ফ্লুর কারণে মারা যাচ্ছে। করোনা ভাইরাস মহামারীর সময় এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা দেশে মুরগি এবং ডিম খাওয়ার বিষয়ে উদ্বেগ বাড়িয়েছে। এখন এই বিষয়ে অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগছে চিকেন বা এই ধরণের মাংস খেয়ে কি বার্ড ফ্লু ছড়িয়ে যেতে পারে? পোল্ট্রি বা হাঁস-মুরগির ডিম খাওয়া কি নিরাপদ?  জেনে নিন এই বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের মতামত-

<p><strong>মাংস খেয়ে কি বার্ড ফ্লু ছড়িয়ে যেতে পারে-</strong></p>

<p>বিশেষজ্ঞদের মতে, এই এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা রোগটি প্রধানত পাখিগুলিকে প্রভাবিত করে। তবে মানুষ আক্রান্ত পাখির সরাসরি যোগাযোগের ফলে সংক্রামিত হওয়ার আশঙ্কা আছে কি না তাতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।&nbsp;<br />
&nbsp;</p>

মাংস খেয়ে কি বার্ড ফ্লু ছড়িয়ে যেতে পারে-

বিশেষজ্ঞদের মতে, এই এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা রোগটি প্রধানত পাখিগুলিকে প্রভাবিত করে। তবে মানুষ আক্রান্ত পাখির সরাসরি যোগাযোগের ফলে সংক্রামিত হওয়ার আশঙ্কা আছে কি না তাতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। 
 

<p>তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, এই বিষয়ে আতঙ্কিত হওয়ার দরকার নেই। কারণ, মানুষ থেকে মানুষের মধ্যে সংক্রমণের বিস্তার খুব স্পষ্ট নয়। সঠিকভাবে রান্না করা হাঁস-মুরগি বা ডিম খাওয়ার খাওয়ার পরে এখনও কাউকে সংক্রামিত হয়নি।&nbsp;</p>

তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, এই বিষয়ে আতঙ্কিত হওয়ার দরকার নেই। কারণ, মানুষ থেকে মানুষের মধ্যে সংক্রমণের বিস্তার খুব স্পষ্ট নয়। সঠিকভাবে রান্না করা হাঁস-মুরগি বা ডিম খাওয়ার খাওয়ার পরে এখনও কাউকে সংক্রামিত হয়নি। 

<p>এই বিষয়ে ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন সুপারিশ করেছে যে, কাঁচা মাংস ৭০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের তাপমাত্রায় ৩০ মিনিটের জন্য রান্না করলে এই ভাইরাসটি নিষ্ক্রিয় হয়ে যায়।&nbsp;</p>

এই বিষয়ে ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন সুপারিশ করেছে যে, কাঁচা মাংস ৭০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের তাপমাত্রায় ৩০ মিনিটের জন্য রান্না করলে এই ভাইরাসটি নিষ্ক্রিয় হয়ে যায়। 

<p>&nbsp;</p>

<p>হাঁস-মুরগির মাংস ভালো করে পরিষ্কার করে নিয়ে রান্না করলে তা নিরাপদ। একই পদ্ধতিতে ডিম খাওয়া নিরাপদ। বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে সরাসরি দোকান থেকে মাংস কেনার সময় কয়েকটি বিষয়ে যত্ন নিতে হবে।</p>

<p>&nbsp;</p>

 

হাঁস-মুরগির মাংস ভালো করে পরিষ্কার করে নিয়ে রান্না করলে তা নিরাপদ। একই পদ্ধতিতে ডিম খাওয়া নিরাপদ। বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে সরাসরি দোকান থেকে মাংস কেনার সময় কয়েকটি বিষয়ে যত্ন নিতে হবে।

 

<p>স্টেইনলেস স্টিলের পাত্র নিন এবং এতে মাংস সংগ্রহ করুন।</p>

স্টেইনলেস স্টিলের পাত্র নিন এবং এতে মাংস সংগ্রহ করুন।

<p>দোকানে মাংস প্যাক করতে প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহার করবেন না।</p>

দোকানে মাংস প্যাক করতে প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহার করবেন না।

<p>বাড়িতে পৌঁছানোর সঙ্গে সঙ্গে মাংস পরিষ্কার করা শুরু করুন।</p>

বাড়িতে পৌঁছানোর সঙ্গে সঙ্গে মাংস পরিষ্কার করা শুরু করুন।

<p>যতদূর সম্ভব, বাজারে হাঁস-মুরগির দোকানে যাওয়া এড়িয়ে চলুন।</p>

যতদূর সম্ভব, বাজারে হাঁস-মুরগির দোকানে যাওয়া এড়িয়ে চলুন।

<p style="text-align: justify;">পোল্ট্রি ফার্ম বা মাংসের বাজারে যেতে হলে, মাস্ক ও গ্লাভস পরুন।</p>

পোল্ট্রি ফার্ম বা মাংসের বাজারে যেতে হলে, মাস্ক ও গ্লাভস পরুন।

<p>পাখির পালকের ছোঁয়া এড়িয়ে চলুন। অসুস্থ এবং মৃত পাখির কাছাকাছি যাবেন না।</p>

পাখির পালকের ছোঁয়া এড়িয়ে চলুন। অসুস্থ এবং মৃত পাখির কাছাকাছি যাবেন না।

<p>প্রয়োজনে হালকা গরম জলে মাংস ধুয়ে নিন</p>

প্রয়োজনে হালকা গরম জলে মাংস ধুয়ে নিন

<p>মাংস ধোওয়ার পর সাবান দিয়ে আপনার হাত পরিষ্কার বা স্যানিটাইজ করুন।</p>

মাংস ধোওয়ার পর সাবান দিয়ে আপনার হাত পরিষ্কার বা স্যানিটাইজ করুন।

Today's Poll

একসঙ্গে কতজন প্লেয়ারের সঙ্গে খেলতে পছন্দ করেন