৯ বছর বয়সে মুম্বই হমালার ক্ষত এখনও দগদগে, কাসভকে চিনিয়ে দিয়েও দেবিকার জোটেনি একটা বাড়ি

First Published 14, Sep 2020, 7:40 PM

২৬/১১-এর মুম্বই হামলার ক্ষত এখনও বয়ে বেড়াচ্ছেন। সেই গত তখন আরও গোভীর ছিল যখন তিনি ছিলেন মাত্র ৯ বছরের কিশোরী। কিন্তু তখনও সাহসে ঘাটতি ছিল না। ক্র্যাচ হাতে চিনিয়ে দিয়েছিলেন মুম্বই হামলার অন্যতম চক্রী পাকিস্তানের জঙ্গি আজমল কাসবকে। আদালতে দাঁড়িয়ে ক্র্যাচ দিয়েই দেখিয়েছিলেন আজমল কাসভকে। কিন্তু দেবিকা রোটাওয়ানেরই দিন কাটছে তীব্র আর্থিক সংকটে। সোমবার ২০ বছরের সেই বীরাঙ্গনা আর্থিক সাহায্য করেন বিধায়ক জিশান সিদ্দিক। তিনি জানিয়েছেন মহারাষ্ট্র সকরারের কাছে আবেদন করবেন যাতে আরও কিছু সুযোগ সুবিধে পান দেবিকা। 
 

<p><strong>মুম্বই হামলা মামলা আদালতে সাক্ষী দিয়েছিলেন ৯ বছরের দেবিকা। ভরা আদালতে দাঁড়িয়ে পাক জঙ্গি আজলম কাসভকে চিহ্নিত করেছিলেন তিনি।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

মুম্বই হামলা মামলা আদালতে সাক্ষী দিয়েছিলেন ৯ বছরের দেবিকা। ভরা আদালতে দাঁড়িয়ে পাক জঙ্গি আজলম কাসভকে চিহ্নিত করেছিলেন তিনি। 
 

<p><strong>কিন্তু সেই বীরাঙ্গনাকেই এখন তীব্র আর্থিক সংকটের মধ্যে দিয়ে দিন কাটাতে হচ্ছে। এখনও তিনি বয়ে বেড়াচ্ছেন মুম্বই হামলার সেই ভয়ঙ্কর ক্ষত। পায়ে গুলি লেগেছিল তাঁর।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

কিন্তু সেই বীরাঙ্গনাকেই এখন তীব্র আর্থিক সংকটের মধ্যে দিয়ে দিন কাটাতে হচ্ছে। এখনও তিনি বয়ে বেড়াচ্ছেন মুম্বই হামলার সেই ভয়ঙ্কর ক্ষত। পায়ে গুলি লেগেছিল তাঁর। 
 

<p><strong>দেবিকার আর্থিক অনটনের কথা শুনে তাঁর দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন কংগ্রেসের স্থানীয় বিধায়ক জিশান সিদ্দিক এদিন তাঁর পাশে দাঁড়ান। তুলেদেন একটি চেক।&nbsp;</strong></p>

দেবিকার আর্থিক অনটনের কথা শুনে তাঁর দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন কংগ্রেসের স্থানীয় বিধায়ক জিশান সিদ্দিক এদিন তাঁর পাশে দাঁড়ান। তুলেদেন একটি চেক। 

<p><strong>&nbsp;দীর্ঘ সময় কাটান দেবিকার বাড়িতে। ভয়ঙ্কর সেই হামলার কাহিনি শোনেন দেবিকার মুখে। দেবিকাই তাঁকে বলেছিল কাসভদের হামলায় কীভাবে রক্তাক্ত হয়েছিল শিবাজি টার্মিলান। জিশান জানিয়েছেন ১১ বছর আগের সেই ভয়ঙ্কর দিনের স্মৃতি এখনও টাটকা দেবিকার কাছে।&nbsp;</strong></p>

 দীর্ঘ সময় কাটান দেবিকার বাড়িতে। ভয়ঙ্কর সেই হামলার কাহিনি শোনেন দেবিকার মুখে। দেবিকাই তাঁকে বলেছিল কাসভদের হামলায় কীভাবে রক্তাক্ত হয়েছিল শিবাজি টার্মিলান। জিশান জানিয়েছেন ১১ বছর আগের সেই ভয়ঙ্কর দিনের স্মৃতি এখনও টাটকা দেবিকার কাছে। 

<p><strong>দেবিকা তাঁকে জানিয়েছেন জঙ্গিদের বিরুদ্ধে তিনি সাক্ষী দিয়েছিলেন। সেই জন্য বর্তমানে তিনি পরিবার থেকে বিতাড়িত। পূর্ব বান্দ্রায় একটি ছোট্ট বাড়িতে তিনি থাকেন।</strong></p>

দেবিকা তাঁকে জানিয়েছেন জঙ্গিদের বিরুদ্ধে তিনি সাক্ষী দিয়েছিলেন। সেই জন্য বর্তমানে তিনি পরিবার থেকে বিতাড়িত। পূর্ব বান্দ্রায় একটি ছোট্ট বাড়িতে তিনি থাকেন।

<p><strong>সরকার তাঁকে বাড়ি দেবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কিন্তু তা এখনও পুরণ হয়নি। বিধায়ক জানিয়েছেন মহারাষ্ট্র সরকারের কাছে দেবিকার জন্য একটি বাড়ির আবেদন তিনি জানাবেন।&nbsp;</strong><br />
&nbsp;</p>

সরকার তাঁকে বাড়ি দেবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কিন্তু তা এখনও পুরণ হয়নি। বিধায়ক জানিয়েছেন মহারাষ্ট্র সরকারের কাছে দেবিকার জন্য একটি বাড়ির আবেদন তিনি জানাবেন। 
 

<p><strong>দেবিকা বিধায়ককে জানিয়েছেন রেল স্টেশনে হামলা জঙ্গিদের ছোঁড়া গুলিতে তাঁরা পা জখম হয়েছিল। ডান পা ভেঙে গিয়েছিল। প্রবল যন্ত্রণা নিয়ে তিনি দেখিছিলেন দুই জঙ্গি নির্বিচারে মহিলা ও শিশুদের লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে যাচ্ছে। আর সেই থেকে তিনি জঙ্গিদের ঘৃণা করেন।&nbsp;</strong></p>

দেবিকা বিধায়ককে জানিয়েছেন রেল স্টেশনে হামলা জঙ্গিদের ছোঁড়া গুলিতে তাঁরা পা জখম হয়েছিল। ডান পা ভেঙে গিয়েছিল। প্রবল যন্ত্রণা নিয়ে তিনি দেখিছিলেন দুই জঙ্গি নির্বিচারে মহিলা ও শিশুদের লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে যাচ্ছে। আর সেই থেকে তিনি জঙ্গিদের ঘৃণা করেন। 

<p><strong>মহারাষ্ট্র সরকার যাতে এই বীরঙ্গনাকে সাহসিকতার জন্য পুরষ্কার দেয় সেই প্রস্তাবও তিনি করবেন বলে জানিয়েছে বিধায়ক।&nbsp;</strong></p>

মহারাষ্ট্র সরকার যাতে এই বীরঙ্গনাকে সাহসিকতার জন্য পুরষ্কার দেয় সেই প্রস্তাবও তিনি করবেন বলে জানিয়েছে বিধায়ক। 

loader