মার্কিন-ভারত ৩ বিলিয়ন ডলার প্রতিরক্ষা চুক্তি, ভারতের হাতে অত্যাধুনিক অ্যাপাচে চপার

First Published 25, Feb 2020, 6:00 PM

বাণিজ্য চুক্তি নিয়ে দর কষাকষির  মাঝেই আমেরিকার সঙ্গে প্রতিরক্ষা চুক্তি  সারল ভারত। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে ৩ বিলিয়ন ডলারের অত্যাধুনিক যুদ্ধের সরঞ্জাম কেনার চুক্তি করল ভারত। যার দৌলতে এবার ভারতের অস্ত্রাগারে এল অ্যাপাচে-র মতো মার্কিন যুদ্ধ চপার। কী বৈশিষ্ট্য আছে এই অত্যাধুনিক হেলিকপ্টারে ?

একাধিক সমরাস্ত্র মজুত থাকে এই চপারের  মধ্য়ে। আকাশ থেকে মাটি  ছুঁতে পারে এমন ঘাতক মিসাইল বইতে পারে এই শক্তিশালী হেলিকপ্টার।

একাধিক সমরাস্ত্র মজুত থাকে এই চপারের মধ্য়ে। আকাশ থেকে মাটি ছুঁতে পারে এমন ঘাতক মিসাইল বইতে পারে এই শক্তিশালী হেলিকপ্টার।

৭০ এমএম হাইড্রা রকেট ছাড়াও আকাশ থেকে আকাশে স্টিনজার মিসাইল ছোড়ার ক্ষমতা ধরে এই চপার। অ্যাপাচে দেশের অস্ত্রাগারে সেই প্রথম চপার, যা এয়ার  টু এয়ার ক্ষেপনাস্ত্র হামলা করতে সক্ষম।

৭০ এমএম হাইড্রা রকেট ছাড়াও আকাশ থেকে আকাশে স্টিনজার মিসাইল ছোড়ার ক্ষমতা ধরে এই চপার। অ্যাপাচে দেশের অস্ত্রাগারে সেই প্রথম চপার, যা এয়ার টু এয়ার ক্ষেপনাস্ত্র হামলা করতে সক্ষম।

অ্যাপাচে-র মধ্য়ে রয়েছে ৩০ এমএম-এর একটি চেন গান। যেই চেন-এ ১২০০ রাউন্ড গুলি  থাকে। অর্থাৎ শত্রুপক্ষের হামলা সামলাতে এই বিপুল সংখ্যক গুলি যথেষ্ট কাজের।

অ্যাপাচে-র মধ্য়ে রয়েছে ৩০ এমএম-এর একটি চেন গান। যেই চেন-এ ১২০০ রাউন্ড গুলি থাকে। অর্থাৎ শত্রুপক্ষের হামলা সামলাতে এই বিপুল সংখ্যক গুলি যথেষ্ট কাজের।

শুধু দিনের বেলাই নয়,রাতেও সহজেই বিপক্ষের  ওপর হামলা চালাতে সক্ষম এই অ্যাপাচে। নাইট ভিশন ক্যামেরা থাকায় সহজেই শত্রুদের চিহ্নিত করতে পারে  চপার।

শুধু দিনের বেলাই নয়,রাতেও সহজেই বিপক্ষের ওপর হামলা চালাতে সক্ষম এই অ্যাপাচে। নাইট ভিশন ক্যামেরা থাকায় সহজেই শত্রুদের চিহ্নিত করতে পারে চপার।

হেলিকপ্টারের সামনে রয়েছে একটা কৃত্তিম নাক। জানলে অবাক হবেন, মানুষের মতো ঘ্রাণ শক্তির কাজ  করে এই নাক। আসলে এটি একটি শক্তিশালী সেন্সর। ক্ষেপনাস্ত্রের নিশানা ঠিক করতেই এই নাক কাজ  করে।

হেলিকপ্টারের সামনে রয়েছে একটা কৃত্তিম নাক। জানলে অবাক হবেন, মানুষের মতো ঘ্রাণ শক্তির কাজ করে এই নাক। আসলে এটি একটি শক্তিশালী সেন্সর। ক্ষেপনাস্ত্রের নিশানা ঠিক করতেই এই নাক কাজ করে।

সবথেকে চমকপ্রদ বিষয়, অ্যাপাচে  হেলিকপ্টারের ককপিট বা  অন্দরমহল পুরোপুরি বুলেট প্রুফ। যার দৌলতে সহজেই ট্যাঙ্ক  ছাড়াও হামলাকারী গাড়ির মুখোমিখি হতে ভয় পায়না এই চপার।

সবথেকে চমকপ্রদ বিষয়, অ্যাপাচে হেলিকপ্টারের ককপিট বা অন্দরমহল পুরোপুরি বুলেট প্রুফ। যার দৌলতে সহজেই ট্যাঙ্ক ছাড়াও হামলাকারী গাড়ির মুখোমিখি হতে ভয় পায়না এই চপার।

আমেরিকার থেকে এই অত্যাধুনিক  হেলিকপ্টার পেতে ৮০০ মিলিয়ন  ডলারের চুক্তি করেছে ভারত।

আমেরিকার থেকে এই অত্যাধুনিক হেলিকপ্টার পেতে ৮০০ মিলিয়ন ডলারের চুক্তি করেছে ভারত।

মার্কিন  যুক্তরাষ্ট্রের থেকে ৬টি AH-64E অ্যাপাচে হেলিকপ্টার কিনছে ভারত। মঙ্গলবারই স্বাক্ষর হয়েছে সেই লেনদেনের।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের থেকে ৬টি AH-64E অ্যাপাচে হেলিকপ্টার কিনছে ভারত। মঙ্গলবারই স্বাক্ষর হয়েছে সেই লেনদেনের।

loader