ভুরিভুরি নম্বরে ভর্তি-সঙ্কট, ৯০ শতাংশ নম্বর পেয়েও কলেজের আসন পাচ্ছে না পড়ুয়ারা

First Published 14, Sep 2020, 5:10 PM

 নম্বর পাওয়া থেকে চাকরী যাওয়া, সবার মূলেই দাড়িয়ে করোনা। তবে বিশেষ করে রাজ্য়ের উজ্জ্বল ভবিষ্য়তের কারিগরেরা ৯০ শতাংশ বা তার বেশি নম্বর পেয়েও ভর্তি নিয়ে ধুঁকতে হচ্ছে। এত ভাল নম্বর পেয়েও কেন তাহলে অসুবিধার মুখে পড়তে হচ্ছে পাশ করা ছাত্র-ছাত্রীদের। কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা।বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন নম্বর পেয়ে ভর্তি না হওয়া মূলে যে প্রধান কারণটা রয়েছে, তাহল সিবিএসই, আইএসসি-তে এই  ৯০ শতাংশ নম্বর একসঙ্গে অনেকে পেয়েছেন। যার জেরে কারোই সিট মিলছে না। উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্সিতে জীববিদ্য়ায় প্রথম দফার মেধা তালিকায় যার নাম , সবার নীচে সেও পেয়েছে ৪০০ এর মধ্যে ৩৯০.৭৮,পদার্থ বিদ্য়ায় ৩৯৮.২৫। 

<p><br />
&nbsp;নম্বর পাওয়া থেকে চাকরী যাওয়া, সবার মূলেই দাড়িয়ে করোনা। তবে বিশেষ করে রাজ্য়ের উজ্জ্ব ভবিষ্য়তের কারিগরেরা ৯০ শতাংশ বা তার বেশি নম্বর পেয়েও ভর্তি নিয়ে ধুঁকতে হচ্ছে। এত ভাল নম্বর পেয়েও কেন তাহলে অসুবিধার মুখে পড়তে হচ্ছে পাশ করা ছাত্র-ছাত্রীদের। কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা।</p>


 নম্বর পাওয়া থেকে চাকরী যাওয়া, সবার মূলেই দাড়িয়ে করোনা। তবে বিশেষ করে রাজ্য়ের উজ্জ্ব ভবিষ্য়তের কারিগরেরা ৯০ শতাংশ বা তার বেশি নম্বর পেয়েও ভর্তি নিয়ে ধুঁকতে হচ্ছে। এত ভাল নম্বর পেয়েও কেন তাহলে অসুবিধার মুখে পড়তে হচ্ছে পাশ করা ছাত্র-ছাত্রীদের। কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

<p><br />
বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন নম্বর পেয়ে ভর্তি না হওয়া মূলে যে প্রধান কারণটা রয়েছে, তাহল সিবিএসই, আইএসসি-তে এই &nbsp;৯০ শতাংশ নম্বর একসঙ্গে অনেকে পেয়েছেন। যার জেরে কারোই সিট মিলছে না।&nbsp;<br />
&nbsp;</p>


বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন নম্বর পেয়ে ভর্তি না হওয়া মূলে যে প্রধান কারণটা রয়েছে, তাহল সিবিএসই, আইএসসি-তে এই  ৯০ শতাংশ নম্বর একসঙ্গে অনেকে পেয়েছেন। যার জেরে কারোই সিট মিলছে না। 
 

<p><br />
তার উপর কোভিড পরিস্থিতিতে বেশিরভাগ পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। আগের হয়ে যাওয়া পরীক্ষার নম্বরের ভিত্তিতে তৈরি হয়েছে মার্কশিট। আর বেশির ছাত্র-ছাত্রী প্রচুর নম্বর পাওয়ায় তৈরি হয়ে ভর্তি নিয়ে টানাটানি।<br />
&nbsp;</p>


তার উপর কোভিড পরিস্থিতিতে বেশিরভাগ পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। আগের হয়ে যাওয়া পরীক্ষার নম্বরের ভিত্তিতে তৈরি হয়েছে মার্কশিট। আর বেশির ছাত্র-ছাত্রী প্রচুর নম্বর পাওয়ায় তৈরি হয়ে ভর্তি নিয়ে টানাটানি।
 

<p>যাদবপুরেও এখন ভর্তি প্রক্রিয়া চালু হয়নি। গত বছর কলাবিভাগে আবেদন পড়েছিল ১১ হাজার। এবার পড়েছে ২৭ হাজার। প্রচুর পরিমাণে ভালো নম্বরের জেরে এই সঙ্কট তৈরি হয়ছে।<br />
&nbsp;</p>

যাদবপুরেও এখন ভর্তি প্রক্রিয়া চালু হয়নি। গত বছর কলাবিভাগে আবেদন পড়েছিল ১১ হাজার। এবার পড়েছে ২৭ হাজার। প্রচুর পরিমাণে ভালো নম্বরের জেরে এই সঙ্কট তৈরি হয়ছে।
 

<p>অপরদিকে প্রেসিডেন্সিতে জীববিদ্য়ায় প্রথম দফার মেধা তালিকায় যার নাম , সবার নীচে সেও পেয়েছে ৪০০ এর মধ্যে ৩৯০.৭৮,পদার্থ বিদ্য়ায় ৩৯৮.২৫। বিশ্ব বিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জানিয়েছেন ৫৩ হাজার আবেদন জমা পড়েছে।</p>

অপরদিকে প্রেসিডেন্সিতে জীববিদ্য়ায় প্রথম দফার মেধা তালিকায় যার নাম , সবার নীচে সেও পেয়েছে ৪০০ এর মধ্যে ৩৯০.৭৮,পদার্থ বিদ্য়ায় ৩৯৮.২৫। বিশ্ব বিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জানিয়েছেন ৫৩ হাজার আবেদন জমা পড়েছে।

loader