শহরের স্টেশন জুড়ে প্রস্তুতি তুঙ্গে, কবে থেকে চালু লোকাল ট্রেন, দেখুন ছবি

First Published 3, Sep 2020, 9:28 AM


বাংলার অনেকেই ইতিমধ্যে যাতায়াত ব্যবস্থার অসুবিধার জন্য কাজ হারিয়েছে। বিশেষ করে বাংলার শ্রমিক মানুষ যারা লোকাল ট্রেনের ভ্য়ান্ডারে নিত্য়দিন মাল নিয়ে যেত, সেখানে চড়া দামে গাড়ি বুক করে যেতে গিয়ে ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। আর যাদের সামর্থ নেই, তাঁরা এখন ভগ্নপ্রায়। তাই লোকাল ট্রেন চালু হলে পেটের যোগানও আসবে বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে রেল মন্ত্রককে রাজ্যের তরফে চিঠি পাঠানোর পর থেকেই লোকাল ট্রেন চালুর আশায় বুক বেধেছে বাংলার মানুষ।

<p>সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে রেল স্টেশনের প্লাটফর্মে চলছে সাদা রঙ দিয়ে শূন্য বা বৃত্ত আঁকার কাজ। আর করোনা বিধি এই সামাজিক দূরত্ব বিধি চোখে পড়তেই ট্রেন চলার আশার আলো দেখেছে ট্রেন যাত্রী থেকে ব্যবসায়ীরা।&nbsp;</p>

সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে রেল স্টেশনের প্লাটফর্মে চলছে সাদা রঙ দিয়ে শূন্য বা বৃত্ত আঁকার কাজ। আর করোনা বিধি এই সামাজিক দূরত্ব বিধি চোখে পড়তেই ট্রেন চলার আশার আলো দেখেছে ট্রেন যাত্রী থেকে ব্যবসায়ীরা। 

<p><br />
আনলক ৪-এ &nbsp;লোকাল ট্রেন পরিষেবা শুরুর আগেই চলছে জোর কদমে প্রস্তুতি। &nbsp;সোমবার থেকে শিয়ালদহ-বনগাঁ ও বসিরহাট শাখার একাধিক স্টেশনে কিন্তু গোল গোল করে দাগ কাটার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। যাতে দূরত্ব বিধি মানা হয়।শিয়ালদা থেকে বারাসত,বনগাঁ,হাসনাবাদ,হাবরা,গোবরডাঙা সহ একাধিক স্টেশনে ধরা পড়েছে একই ছবি।</p>


আনলক ৪-এ  লোকাল ট্রেন পরিষেবা শুরুর আগেই চলছে জোর কদমে প্রস্তুতি।  সোমবার থেকে শিয়ালদহ-বনগাঁ ও বসিরহাট শাখার একাধিক স্টেশনে কিন্তু গোল গোল করে দাগ কাটার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। যাতে দূরত্ব বিধি মানা হয়।শিয়ালদা থেকে বারাসত,বনগাঁ,হাসনাবাদ,হাবরা,গোবরডাঙা সহ একাধিক স্টেশনে ধরা পড়েছে একই ছবি।

<p><br />
&nbsp;কর্মক্ষেত্র,স্কুল-কলেজ সূত্রে প্রতিদিন লোকাল ট্রেন ধরে কলকাতায় আসেন শহরতলির লক্ষ্য লক্ষ্য মানুষ। তাই রেলের এই প্রস্তুতি দেখে অনেকেই আশায় বুক বাঁধছেন।&nbsp;</p>


 কর্মক্ষেত্র,স্কুল-কলেজ সূত্রে প্রতিদিন লোকাল ট্রেন ধরে কলকাতায় আসেন শহরতলির লক্ষ্য লক্ষ্য মানুষ। তাই রেলের এই প্রস্তুতি দেখে অনেকেই আশায় বুক বাঁধছেন। 

<p>&nbsp;</p>

<p><br />
মূলত রেল মন্ত্রককে রাজ্যের তরফে চিঠি পাঠানোর পর থেকেই লোকাল ট্রেন চালুর আশায় বুক বেধেছে বাংলার মানুষ। রেল বোর্ডের চেয়ারম্যানকে চিঠি দিয়েছিলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে সেপ্টেম্বর থেকে &nbsp;রাজ্যে &nbsp;করোনা সতর্কতা মেনে লোকাল ট্রেনর চালু করার অনুরোধ জানানো হয়েছে।&nbsp;</p>

 


মূলত রেল মন্ত্রককে রাজ্যের তরফে চিঠি পাঠানোর পর থেকেই লোকাল ট্রেন চালুর আশায় বুক বেধেছে বাংলার মানুষ। রেল বোর্ডের চেয়ারম্যানকে চিঠি দিয়েছিলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে সেপ্টেম্বর থেকে  রাজ্যে  করোনা সতর্কতা মেনে লোকাল ট্রেনর চালু করার অনুরোধ জানানো হয়েছে। 

<p>ট্রেনে অসংখ্য মানুষ হকারি করেন। স্টেশনে স্থায়ী অস্থায়ী দোকান রয়েছে। স্টেশন চত্বরেও রয়েছে একাধিক ব্যবসা। ট্রেন বন্ধ থাকায় সবকিছুই স্তব্ধ। লোকাল ট্রেন চালু হলে দুর্দশা কমবে, আশায় ব্যবসায়ীরা।</p>

ট্রেনে অসংখ্য মানুষ হকারি করেন। স্টেশনে স্থায়ী অস্থায়ী দোকান রয়েছে। স্টেশন চত্বরেও রয়েছে একাধিক ব্যবসা। ট্রেন বন্ধ থাকায় সবকিছুই স্তব্ধ। লোকাল ট্রেন চালু হলে দুর্দশা কমবে, আশায় ব্যবসায়ীরা।

<p><br />
আশার আলোর উল্টোদিকে রয়েছে দুশ্চিন্তাও। বছরের পর বছর বনগাঁ লোকালের ভিড় হার মানিয়ে দেয় সব ট্রেনকেই। বাদুর ঝোলা অবস্থায় সবাই গন্তব্য়ে পৌছয়। তাই লোকাল ট্রেন চালু হলে সামাজিক দূরত্ব কতটা বজায় রাখা যাবে এ নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। তাই লোকাল ট্রেন ঘিরে আশা এবং আশঙ্কা দুইই বেড়ে যাচ্ছে।</p>


আশার আলোর উল্টোদিকে রয়েছে দুশ্চিন্তাও। বছরের পর বছর বনগাঁ লোকালের ভিড় হার মানিয়ে দেয় সব ট্রেনকেই। বাদুর ঝোলা অবস্থায় সবাই গন্তব্য়ে পৌছয়। তাই লোকাল ট্রেন চালু হলে সামাজিক দূরত্ব কতটা বজায় রাখা যাবে এ নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। তাই লোকাল ট্রেন ঘিরে আশা এবং আশঙ্কা দুইই বেড়ে যাচ্ছে।

loader