কলকাতা বিমানবন্দরে জীবাণুমুক্ত করতে বসল নয়া যন্ত্র, পিপিই কিট নিয়েও নয়া উদ্য়োগ

First Published 5, Oct 2020, 10:53 AM

 জীবাণুমুক্তকরণে নতুন যন্ত্র আনা হয়েছে কলকাতা বিমানবন্দরে।  ডোমেস্টিক অ্য়ারাইভেলে ২ নম্বর ব্য়াগেজ বেল্টে এই যন্ত্র বসেছে। ডিপারচার গেটে এখন হাতে হাতে লাগেজ জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে। অক্টোবরেই ডিপারচার গেটেও বসানো হবে এই যন্ত্র।বিমানবন্দরের অধিকর্তা কৌশিক ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, যাত্রীদের হাতেহাতে মালপত্র জীবাণুমুক্ত করতে অনেক সময় লাগছিল। তবে এবার স্বয়ংক্রিয়ভাবে জীবাণুমুক্ত হয়ে বেরিয়ে আসবে। পদ্ধতি সফল হলে বিমানবন্দরের আরও ৪টি গেটেও বসানো হবে এই যন্ত্র বলে তিনি জানিয়েছেন। বিমানবন্দর সূত্রের খবর এই যন্ত্রের প্রতিটির দাম ৭ লক্ষ টাকা।


 

<p><br />
&nbsp;জীবাণুমুক্তকরণে নতুন যন্ত্র আনা হয়েছে কলকাতা বিমানবন্দরে। &nbsp;ডোমেস্টিক অ্য়ারাইভেলে ২ নম্বর ব্য়াগেজ বেল্টে এই যন্ত্র বসেছে। ডিপারচার গেটে এখন হাতে হাতে লাগেজ জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে। অক্টোবরেই ডিপারচার গেটেও বসানো হবে এই যন্ত্র।</p>


 জীবাণুমুক্তকরণে নতুন যন্ত্র আনা হয়েছে কলকাতা বিমানবন্দরে।  ডোমেস্টিক অ্য়ারাইভেলে ২ নম্বর ব্য়াগেজ বেল্টে এই যন্ত্র বসেছে। ডিপারচার গেটে এখন হাতে হাতে লাগেজ জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে। অক্টোবরেই ডিপারচার গেটেও বসানো হবে এই যন্ত্র।

<p><br />
বিমানবন্দরের অধিকর্তা কৌশিক ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, যাত্রীদের হাতেহাতে মালপত্র জীবাণুমুক্ত করতে অনেক সময় লাগছিল। তবে এবার স্বয়ংক্রিয়ভাবে জীবাণুমুক্ত হয়ে বেরিয়ে আসবে। পদ্ধতি সফল হলে বিমানবন্দরের আরও ৪টি গেটেও বসানো হবে এই যন্ত্র বলে তিনি জানিয়েছেন।</p>


বিমানবন্দরের অধিকর্তা কৌশিক ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, যাত্রীদের হাতেহাতে মালপত্র জীবাণুমুক্ত করতে অনেক সময় লাগছিল। তবে এবার স্বয়ংক্রিয়ভাবে জীবাণুমুক্ত হয়ে বেরিয়ে আসবে। পদ্ধতি সফল হলে বিমানবন্দরের আরও ৪টি গেটেও বসানো হবে এই যন্ত্র বলে তিনি জানিয়েছেন।

<p>তবে &nbsp;জীবাণুমুক্তকরণে নতুন এই যন্ত্রের দাম নেহাত কম নয়। বিমানবন্দর সূত্রের খবর এই যন্ত্রের প্রতিটির দাম ৭ লক্ষ টাকা।<br />
&nbsp;</p>

তবে  জীবাণুমুক্তকরণে নতুন এই যন্ত্রের দাম নেহাত কম নয়। বিমানবন্দর সূত্রের খবর এই যন্ত্রের প্রতিটির দাম ৭ লক্ষ টাকা।
 

<p>সুরক্ষার কথা মাথায় রেখেই বিমানবন্দরের অন্দরে বসানো হয়েছে, &nbsp;পার্সোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট ফেলার বিশেষ পাত্র। ডিজিসিএ এর নির্দেশিকা অনুযায়ী, যাত্রীদের পিপিই কিট পরে যাত্রী করতে হচ্ছে। সেগুলিই ওই পাত্রে ফেলার ব্যবস্থা করা হয়েছে।</p>

সুরক্ষার কথা মাথায় রেখেই বিমানবন্দরের অন্দরে বসানো হয়েছে,  পার্সোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট ফেলার বিশেষ পাত্র। ডিজিসিএ এর নির্দেশিকা অনুযায়ী, যাত্রীদের পিপিই কিট পরে যাত্রী করতে হচ্ছে। সেগুলিই ওই পাত্রে ফেলার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

<p>পাশপাশি আগের মতোই জারি আছে থার্মাল চেকিং। স্য়ানিটাইজার, সাবান সবই রয়েছে যাত্রীদের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে।&nbsp;</p>

পাশপাশি আগের মতোই জারি আছে থার্মাল চেকিং। স্য়ানিটাইজার, সাবান সবই রয়েছে যাত্রীদের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে। 

loader