'কালী পুজোয় বাজি নিষিদ্ধ', হাইকোর্টের নির্দেশিকা মনে করাতে শহরে পুলিশের মাইকিং

First Published 10, Nov 2020, 2:28 PM


দুর্গা পুজো এল, চলে গেল, কিন্তু করোনা গেল না। তবে প্য়ান্ডেলে নো-এন্ট্রি দিয়ে সংক্রমণে বড়সড় বেড়ি পরাল হাইকোর্ট। আর এবার অমস্যায় মা কালী আর্বিভাবের আগে বাজি পোড়াতে নিষেধ করল কলকাতা হাইকোর্ট। এবার সেই নির্দেশিকাই আরও একবার মনে করাতে আবাসনে আবাসনে চলছে পুলিশের মাইকিং।

<p><br />
করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এবছর কালীপুজো, ছট পুজো, কার্তিক পুজো ও দীপাবলিতে বাজি পুরোপুরি নিষিদ্ধ করল কলকাতা হাইকোর্ট। এবার সেই মনে করাতে লেকটাউন থানা এলাকায় &nbsp;আবাসনে আবাসনে চলছে পুলিশের মাইকিং।</p>


করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এবছর কালীপুজো, ছট পুজো, কার্তিক পুজো ও দীপাবলিতে বাজি পুরোপুরি নিষিদ্ধ করল কলকাতা হাইকোর্ট। এবার সেই মনে করাতে লেকটাউন থানা এলাকায়  আবাসনে আবাসনে চলছে পুলিশের মাইকিং।

<p><br />
বাজি পোড়ানো ও বিক্রির ক্ষেত্রে পুরোপুরি নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। &nbsp;পাশাপাশি, দুর্গাপুজোর মতই কালী পুজোতেও থাকছে দর্শক শূন্য পুজো মণ্ডপ। যাতে সেই নির্দেশিকা শহরবাসীর কাছে স্মৃতি না হয়ে যায় তাই দুপুরের রোদে আবাসনগুলিতে নোটিশও লাগাল পুলিশ।<br />
&nbsp;</p>


বাজি পোড়ানো ও বিক্রির ক্ষেত্রে পুরোপুরি নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ।  পাশাপাশি, দুর্গাপুজোর মতই কালী পুজোতেও থাকছে দর্শক শূন্য পুজো মণ্ডপ। যাতে সেই নির্দেশিকা শহরবাসীর কাছে স্মৃতি না হয়ে যায় তাই দুপুরের রোদে আবাসনগুলিতে নোটিশও লাগাল পুলিশ।
 

<p>এ ব্য়াপারে পুলিশকে গোটা বিষটিকে নিশ্চিত রাখতে হবে। অন্যদিকে, সমস্ত পুজো মণ্ডপে মাস্ক ও স্যানিটাইজার রাখা বাধ্যতামূলক বলে জানিয়েছে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। আর সেই সব নির্দেশকেই সক্রিয় করতে বিধান নগর কমিশনারেটের অন্তর্গত থানা এলাকায় ইতিমধ্য়েই কাজ শুরু হয়েছে।<br />
&nbsp;</p>

এ ব্য়াপারে পুলিশকে গোটা বিষটিকে নিশ্চিত রাখতে হবে। অন্যদিকে, সমস্ত পুজো মণ্ডপে মাস্ক ও স্যানিটাইজার রাখা বাধ্যতামূলক বলে জানিয়েছে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। আর সেই সব নির্দেশকেই সক্রিয় করতে বিধান নগর কমিশনারেটের অন্তর্গত থানা এলাকায় ইতিমধ্য়েই কাজ শুরু হয়েছে।
 

<p><br />
কালীপুজোতেও বিসর্জনের শোভাযাত্রা বন্ধ রাখতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিসর্জনের সময় আলোকসজ্জা ও &nbsp;বাজনা ব্যবহার করা যাবে না। বিসর্জনের জন্য নূন্যতম আয়োজন করতে হবে। বিসর্জনের ঘাটে বেশি লোকও থাকতে পারবেন না। বৃহস্পতিবার নির্দেশ বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্য়ায় ও বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্য়ায় ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের ডিভিশন বেঞ্চের।&nbsp;</p>


কালীপুজোতেও বিসর্জনের শোভাযাত্রা বন্ধ রাখতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিসর্জনের সময় আলোকসজ্জা ও  বাজনা ব্যবহার করা যাবে না। বিসর্জনের জন্য নূন্যতম আয়োজন করতে হবে। বিসর্জনের ঘাটে বেশি লোকও থাকতে পারবেন না। বৃহস্পতিবার নির্দেশ বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্য়ায় ও বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্য়ায় ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের ডিভিশন বেঞ্চের। 

<p>কালীঘাট, দক্ষিণেশ্বর, তাপাপীঠ, আসানসোলের কল্যাণেশ্বরী বড় মন্দিরগুলিতে ভিড় কীভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যায় তা নিশ্চিত করবে পুলিশ। কোভিড সুরক্ষা বিধি মেনে মন্দিরগুলিতে কতজন প্রবেশ করবে, তা ঠিক করবে পুলিশ। &nbsp; কালীপুজোর ভিড় নিয়ন্ত্রণের নিয়ে পুলিশের উপর যথেষ্ট আস্থা আছে বলে জানিয়েছে আদালত। &nbsp;</p>

কালীঘাট, দক্ষিণেশ্বর, তাপাপীঠ, আসানসোলের কল্যাণেশ্বরী বড় মন্দিরগুলিতে ভিড় কীভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যায় তা নিশ্চিত করবে পুলিশ। কোভিড সুরক্ষা বিধি মেনে মন্দিরগুলিতে কতজন প্রবেশ করবে, তা ঠিক করবে পুলিশ।   কালীপুজোর ভিড় নিয়ন্ত্রণের নিয়ে পুলিশের উপর যথেষ্ট আস্থা আছে বলে জানিয়েছে আদালত।