রক্তদানের ক্ষেত্রে কি করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে, জেনে নিন এমন আরও ১০ প্রশ্নের উত্তর

First Published 16, May 2020, 2:06 PM

ইতিমধ্যেই বিশ্বের প্রায় সবকটি দেশেই চিকিৎসা ব্যবস্থার উপর আরও জোর দেওয়ার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি প্রতিটি দেশ তাদের বর্ডার সিল করেছে এই মহামারির হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য। এই মারণ ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে সংক্রমণের শিকার প্রায় ৪২ লক্ষ মানুষ, ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ৭০ হাজারেরও বেশি। একই সময়ে করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত বহু প্রশ্ন রয়েছে, যা সাধারণ মানুষের জেনে রাখা দরকার। এর আগেও এই সংক্রান্ত কিছু প্রশ্নের দেওয়া হয়েছিল। রইল এমনই আরও কিছু করোনা সংক্রান্ত প্রশ্ন এবং তার উত্তর যা অনেকের মনেই উঁকি দিচ্ছে।

<p>করোনভাইরাস রোগটি কীভাবে মানুষ উপর প্রভাব ফেলে?</p>

<p>এতদিন করা চিকিৎসার দ্বারা মনে করা হয়, এই রোগ কোনও গুরুতর জটিলতা না থাকলে এই রোগ থেকে সেরে ওঠে যায়। তবে কভিড -১৯ আক্রান্ত প্রতি ছয়জনের মধ্যে একজন গুরুতর অসুস্থ হয়ে উঠতে পারে। এর ফলে শ্বাস প্রশ্বাসের অসুবিধা এবং আরও গুরুতর ক্ষেত্রে, নিউমোনিয়া এবং অন্যান্য জটিলতা দেখা দিতে পারে যা কেবল সরকার নির্ধারিত হাসপাতালগুলিতেই এর চিকিৎসা সম্ভব।</p>

করোনভাইরাস রোগটি কীভাবে মানুষ উপর প্রভাব ফেলে?

এতদিন করা চিকিৎসার দ্বারা মনে করা হয়, এই রোগ কোনও গুরুতর জটিলতা না থাকলে এই রোগ থেকে সেরে ওঠে যায়। তবে কভিড -১৯ আক্রান্ত প্রতি ছয়জনের মধ্যে একজন গুরুতর অসুস্থ হয়ে উঠতে পারে। এর ফলে শ্বাস প্রশ্বাসের অসুবিধা এবং আরও গুরুতর ক্ষেত্রে, নিউমোনিয়া এবং অন্যান্য জটিলতা দেখা দিতে পারে যা কেবল সরকার নির্ধারিত হাসপাতালগুলিতেই এর চিকিৎসা সম্ভব।

<p>করোনভাইরাসের লক্ষণগুলি কী কী?</p>

<p>এই মারণ রোগের লক্ষণগুলির মধ্যে শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যা, জ্বর, কাশি দেখা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আরও গুরুতর ক্ষেত্রে, নিউমোনিয়া, গুরুতর এবং তীব্র রেসপিরেটরি সিন্ড্রোম দেখা দেয় এবং কখনও কখনও মৃত্যুও &nbsp;হতে পারে।</p>

করোনভাইরাসের লক্ষণগুলি কী কী?

এই মারণ রোগের লক্ষণগুলির মধ্যে শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যা, জ্বর, কাশি দেখা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আরও গুরুতর ক্ষেত্রে, নিউমোনিয়া, গুরুতর এবং তীব্র রেসপিরেটরি সিন্ড্রোম দেখা দেয় এবং কখনও কখনও মৃত্যুও  হতে পারে।

<p>করোনাভাইরাসের সবচেয়ে সাধারণ লক্ষণ কোনটি?</p>

<p>কোভিড-১৯ এর সর্বাধিক সাধারণ লক্ষণগুলি হল শুকনো কাশি, ক্লান্তি এবং জ্বর। কিছু ক্ষেত্রে এই রোগের আরও মারাত্মক পর্যায়ে বিকাশ করতে পারে যেমন নিউমোনিয়া।</p>

করোনাভাইরাসের সবচেয়ে সাধারণ লক্ষণ কোনটি?

কোভিড-১৯ এর সর্বাধিক সাধারণ লক্ষণগুলি হল শুকনো কাশি, ক্লান্তি এবং জ্বর। কিছু ক্ষেত্রে এই রোগের আরও মারাত্মক পর্যায়ে বিকাশ করতে পারে যেমন নিউমোনিয়া।

<p>বাচ্চাদের কি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি?</p>

<p>আমরা জানি যে কোনও বয়সের লোকেরাই এই ভাইরাসে সংক্রামিত হতে পারে। তবে এখনও অবধি তুলনামূলকভাবে কোভিড -১৯ এর বাচ্চাদের মধ্যে আক্রান্ত হওয়ার সংক্যা খুব কম ঘটেছে।</p>

বাচ্চাদের কি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি?

আমরা জানি যে কোনও বয়সের লোকেরাই এই ভাইরাসে সংক্রামিত হতে পারে। তবে এখনও অবধি তুলনামূলকভাবে কোভিড -১৯ এর বাচ্চাদের মধ্যে আক্রান্ত হওয়ার সংক্যা খুব কম ঘটেছে।

<p>ঠান্ডা আবহাওয়া এবং বরফ কি কোনও ভাবে করোন ভাইরাস রোগ প্রতিরোধ করতে পারে?</p>

<p>শীতল আবহাওয়া এবং তুষার কোনও ভাবেই করোনভাইরাস প্রতিরোধে সক্ষম নয়।<br />
তাই শীতল আবহাওয়ার ফলে করোনভাইরাস বা অন্যান্য রোগকে মেরে ফেলতে পারে বলে বিশ্বাস করার কোনও কারণ নেই।</p>

ঠান্ডা আবহাওয়া এবং বরফ কি কোনও ভাবে করোন ভাইরাস রোগ প্রতিরোধ করতে পারে?

শীতল আবহাওয়া এবং তুষার কোনও ভাবেই করোনভাইরাস প্রতিরোধে সক্ষম নয়।
তাই শীতল আবহাওয়ার ফলে করোনভাইরাস বা অন্যান্য রোগকে মেরে ফেলতে পারে বলে বিশ্বাস করার কোনও কারণ নেই।

<p>করোনভাইরাসে সংক্রামিত হওয়ার পর কি প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়?</p>

<p>এখনও অবধি এমন কোনও প্রমাণিত তথ্য মেলেনি যে, যারা এই ভাইরাসে ইতিমধ্যে আক্রান্ত হয়েছেন তাদের রোগ &nbsp;প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে। উল্টে এমন বহু ঘটনা দেখা গিয়েছে যে একই ব্যক্তি দ্বিতীয় বার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাই এটি প্রমানিত সত্য নয়।</p>

করোনভাইরাসে সংক্রামিত হওয়ার পর কি প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়?

এখনও অবধি এমন কোনও প্রমাণিত তথ্য মেলেনি যে, যারা এই ভাইরাসে ইতিমধ্যে আক্রান্ত হয়েছেন তাদের রোগ  প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে। উল্টে এমন বহু ঘটনা দেখা গিয়েছে যে একই ব্যক্তি দ্বিতীয় বার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাই এটি প্রমানিত সত্য নয়।

<p>করোনভাইরাস কি &nbsp;সরাসরি যোগাযোগের মাধ্যমে সংক্রামিত হয়?</p>

<p>সংক্রামিত ব্যক্তির হাঁচি বা কাশির সঙ্গে ড্রপলেটগুলি বাতাসে ছড়িয়ে পড়ে। ফলে সরাসরি যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাস সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। কোনও ব্যক্তির হাতে দরজার হ্যান্ডেল বা কোনও বস্তু থেকে ভাইরাস ছড়িয়ে তা চোখ, মুখ ও নাকের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করতে পারে।</p>

করোনভাইরাস কি  সরাসরি যোগাযোগের মাধ্যমে সংক্রামিত হয়?

সংক্রামিত ব্যক্তির হাঁচি বা কাশির সঙ্গে ড্রপলেটগুলি বাতাসে ছড়িয়ে পড়ে। ফলে সরাসরি যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাস সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। কোনও ব্যক্তির হাতে দরজার হ্যান্ডেল বা কোনও বস্তু থেকে ভাইরাস ছড়িয়ে তা চোখ, মুখ ও নাকের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করতে পারে।

<p>রক্তদানের সময় কি করোনভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে?</p>

<p>রক্তদান প্রক্রিয়া বা রক্ত সঞ্চালনের মাধ্যমে ব্যক্তির করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে কি না সে বিষয়ে এখনও কোনও প্রমানিত সত্য মেলেনি। এই ভাইরাসের ফলে শ্বাসতন্ত্র আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি দেখা গিয়েছে তবে রক্তদানের ফলে কোনও ব্যক্তি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এমন ঘটনা শোনা যায়নি।</p>

রক্তদানের সময় কি করোনভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে?

রক্তদান প্রক্রিয়া বা রক্ত সঞ্চালনের মাধ্যমে ব্যক্তির করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে কি না সে বিষয়ে এখনও কোনও প্রমানিত সত্য মেলেনি। এই ভাইরাসের ফলে শ্বাসতন্ত্র আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি দেখা গিয়েছে তবে রক্তদানের ফলে কোনও ব্যক্তি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এমন ঘটনা শোনা যায়নি।

<p>কোভিড-১৯ এর অর্থ কী?</p>

<p>কোভিড-১৯ করোনাভাইরাস দ্বারা সৃষ্ট একটি রোগ একটি নতুন রোগ। 'সিও' বলতে করোনাকে বোঝায়, ভাইরাসের জন্য 'ভিআই' এবং রোগের জন্য 'ডি'। পূর্বে, এই রোগটিকে '২০১৯ নোবেল করোনভাইরাস' বা '২০১৯ এনকোভিড' হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছিল।</p>

কোভিড-১৯ এর অর্থ কী?

কোভিড-১৯ করোনাভাইরাস দ্বারা সৃষ্ট একটি রোগ একটি নতুন রোগ। 'সিও' বলতে করোনাকে বোঝায়, ভাইরাসের জন্য 'ভিআই' এবং রোগের জন্য 'ডি'। পূর্বে, এই রোগটিকে '২০১৯ নোবেল করোনভাইরাস' বা '২০১৯ এনকোভিড' হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছিল।

<p>কিভাবে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর ঘর জীবাণুমুক্ত করা যায়?</p>

<p>সন্দেহজনক বা নিশ্চিত হওয়া সংক্রমণের পরেই রোগীদের বাড়ির পরিবেশগত পরিষ্কারের জন্য বাড়িতে জীবাণুনাশক ব্যবহার করা উচিত যা '২০১৯ এনকোভিড' এবং অন্যান্য করোন ভাইরাস নাশ করতে উপযুক্ত।&nbsp;</p>

কিভাবে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর ঘর জীবাণুমুক্ত করা যায়?

সন্দেহজনক বা নিশ্চিত হওয়া সংক্রমণের পরেই রোগীদের বাড়ির পরিবেশগত পরিষ্কারের জন্য বাড়িতে জীবাণুনাশক ব্যবহার করা উচিত যা '২০১৯ এনকোভিড' এবং অন্যান্য করোন ভাইরাস নাশ করতে উপযুক্ত। 

loader