আকাশে ভাসছে সাদা মেঘের ভেলা, বাতাসে পুজো পুজো গন্ধ। আশ্বিনে চেনা রূপে সেজে উঠেছে প্রকৃতি। পুজোয় কি এবার ঘুরে ঘুরে ঠাকুর দেখা যাবে? যদি আপনার গন্তব্য হয় বেলুড় মঠ, তাহলে উত্তরটা 'না'। নিজস্ব ওয়েবসাইটে এবছর আমজনতার জন্য দুর্গাপুজোর খুঁটিনাটি দেখার ব্যবস্থা করেছে মঠ কর্তৃপক্ষ। এমনকী, পুজোর ভোগও খেতে পারবেন না প্রায় দু'লক্ষ মানুষ।

আরও পড়ুন: পিনকন চিটফান্ড মামলার রায় ঘোষণা, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড সংস্থার কর্ণধার-সহ আটজনের

করোনা আতঙ্কের মাঝে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক ছন্দ ফিরছে জনজীবন। আনলক ওয়ান পর্বে প্রায় আড়াই মাস খুলেছিল বেলুড় মঠও।  বিধি নিষেধের কড়াকড়ির মাঝেও ভক্তদের আনাগোনা বাড়ছিল। আর তাতেই কি ঘটল বিপত্তি? সংক্রমণের আশঙ্কা ফের তালা পড়েছে মন্দিরে। আর এখন যা পরিস্থিতি, তাতে পুজোর সময়েও বেলুড়ে গিয়ে পুজো দেখার উপায় রইল না। বেলুড় মঠের তরফে জানানো হয়েছে, আয়োজনে কোনও খামতি থাকবে না। প্রতিবছর যেমন হয়, এবছরও তেমনি বৈদিক মতে দুর্গাপুজো হবে। সন্ধিপুজো-কুমারী পুজো, বাদ যাবে না কিছুই। তবে করোনা প্রকোপের কারণে পুজো আয়োজন করা হচ্ছে মূল মন্দিরে। বাইরে কোনও মণ্ডপ তৈরি করা হবে না। ফলে সশরীরে উপস্থিত থেকে দর্শনার্থীরা পুজো দেখতে পারবেন না। পুজো দেখতে প্রযুক্তি চোখে, মঠের নিজস্ব ওয়েবসাইটে।

আরও পড়ুন: তুলির টানে পটচিত্রের আদলে সাজছে মাস্ক, এক নজরে দেখে নিন পটচিত্র মাস্ক

উল্লেখ্য, বেলুড় মঠে আগে কিন্তু দুর্গাপুজো হত নাটমন্দিরেই। কিন্তু দিনে দিনে যেভাবে ভক্তদের ভিড় বাড়ছিল, তাতে মন্দিরের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা ছিল। ইঞ্জিনিয়ারদের পরামর্শ মেনে ২০০০ সালে থেকে মন্দিরের বাইরে পুজো শুরু হয়।  করোনা আতঙ্কে কারণে ফের কুড়ি বছর আগের রীতি ফিরল বেলুড় মঠে।