রাতভর প্রবল বর্ষণে ধসে পড়ল একটি আবাসন-সংলগ্ন এক দেওয়াল। আর তাতেই চাপা পড়ে গিয়ে প্রাণ হারালেন প্রায় ১৫ জন। ঘটনাটি ঘটেছে পুনের খান্ডোয়াতে।

শনিবার সারারাত ধরে চলা প্রবল বর্ষণের জেরে পুনের খান্ডোয়াতে একটি আবাসনের পার্কিং এলাকার একটি দেওয়াল ধসে পড়েছে। সেই পার্কিং এলাকার লাগোয়া ছিল একটি বস্তি এলাকা। আচমকাই আবাসনের ওই পার্কিং লটের দেওয়াল ভেঙে পড়ার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বস্তির একাধিক ঘর। পুলিশ সূত্রে খবর, মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনার জেরে ইতিমধ্যেই প্রাণ গিয়েছে ১৫ জনের। 

পুলিশের দাবি, ঘটনাটি যখন ঘটে তখন অধিকাংশ মানুষই ঘুমিয়েছিলেন। যার ফলে ঘুমের মধ্যেই প্রাণ হারিয়েছেন তাঁরা। পুলিশের ধারণা এখনও পর্যন্ত, সকলের দেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। তবে পুলিশের অনুমান ধ্বংসস্তূপের নীচে এখনও বেশকিছু মৃতদেহ আটকে থাকতে পারে। মৃতদেহের পাশাপাশি ধ্বংসস্তূপের মধ্যে বেশকিছু গাড়িও রয়েছে। সূত্রের খবর, সেই  আবাসনের সংলগ্ন এলাকাতে তৈরি হচ্ছিল নির্মাণকার্য। আর সেইসব নির্মাণ কর্মীদের জন্যই ইঁটের গাঁথনি দিয়ে তৈরি করা হয়েছিল ওই অস্থায়ী বাসস্থান। 

 

ঘটনার খবর পেতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় উদ্ধারকারী দল এবং দমকল কর্মীরা। জানা গিয়েছে উদ্ধারকার্য এখনও চলছে। আহত ব্যক্তিদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আহত কর্মীদের মধ্যে বেশিরভাগই বিহার ও উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। পুলিশসূত্রে, গোটা বিষয়টি তদন্ত করে দেখার কথা বলা হচ্ছে। এও জানানো হচ্ছে যে,ওইসব অস্থায়ী ঘরগুলি সঠিক নিয়ম মেনে তৈরি করা হয়েছইল কি না তাও খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন তাঁরা।