পুলওয়ামার সন্ত্রাসবাদি হামলার পর ২৬ ফেব্রুয়ারি বালাকোটে জইস-ই-মহম্মদের প্রশিক্ষণ শিবিরে বোমাবর্ষণ করেছিলেন ভারতীয় বায়ুসেনার যে পাঁচ বিমানচালক, তাঁদের বায়ুসেনা পদক (গ্যালান্ট্রি) দেওয়া হল। এই পাঁচজন হলেন, উইং কমান্ডার অমিত রঞ্জন, স্কোয়াড্রন লিডার রাহুল বাসোয়া, পঙ্কজ ভূজাদে, বিকেএন রেড্ডি এবং শশাঙ্ক সিং। প্রত্যেকেই মিরাজ ২০০০ যুদ্ধবিমানের চালক।

চলতি বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি জম্মু কাশ্মীরের পুলওযামায় জইস-ই-মহম্মদ জঙ্গিরা ভারতীয় সেনাবাহিনীর কনভয়ে আত্মঘাতি হামলা চালায়। তাতে ৪০জন সিআরপিএফ জওয়ানের মৃত্যু হয়েছিল। এর দুই সপ্তাহ পরেই ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোরবেলা মিররাজ ২০০০ বিমান নিয়ে ভারতীয় বায়ুসেনার এই পাঁচ বিমানচালক জম্মু কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে বালাকোটে গাইডেড মিসাইল দিয়ে হামলা চালায় জইশ শিবিরে।

পুলওয়ামারা হামলার পর থেকেই ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে কুটনৈতিক উত্তেজনা বাড়ছিল। বালাকোটের হামলার পর তা চুড়ান্ত অবস্থায় পৌঁছায়। দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ বাঁ(ধার পরিস্থিতিও তৈরি হয়েছিল। পরদিনই পাক বায়ুসেনা পাল্টা হামলার চেষ্টা করে ভারতে। তবে ভারতীয় বায়ুসেনা তাদের প্রতিহত করে। এই ঘটনাতেই পাকিস্তানের হাতে বন্দী হয়েছিলেন উইং কমান্ডার অভিনব বর্তমান। তাঁকে বীরচক্র উপাধিতে ভুষিত করা হচ্ছে। স্বাধীনতা দিবসের দিনই তাঁকে এই সম্মান জানানো হবে।