লোকসভা নির্বাচনের আগেই তাঁকে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির পদ থেকে সরানো হয়েছিল। এবার দিল্লিতে অবশ্য আরও বড় দায়িত্ব পেলে বহরমপুরের সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী। এবার লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা হচ্ছেন অধীরবাবু। মঙ্গলবারই দিল্লিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

বিগত লোকসভায় লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতার দায়িত্ব সামলেছিলেন মল্লিকার্জুন খাড়গে। কিন্তু এবারের নির্বাচনে তিনি পরাজিত হয়েছেন। ফলে দলের পক্ষ থেকে রাহুলকেই লোকসভার নেতা হওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। 

কিন্তু ভোটে কংগ্রেসের বিপর্যয়ের পর থেকেই দলের সভাপতির পদ ছাড়ার সিদ্ধান্তে অনড় রয়েছেন রাহুল গাঁধী। যদিও দল তাঁর সেই প্রস্তাব গ্রহণ করেনি। স্বভাবতই নতুন করে আর লোকসভার দলনেতা হতে রাজি হননি রাহুল। এর পরেই লোকসভার নেতা হিসেবে অধীর চৌধুরীকেই বেছে নেয় কংগ্রেস। ইতিমধ্যেই চিঠি দিয়ে সংসদের অফিসে তা জানিয়েও দিয়েছে কংগ্রেস। সেখানে বলা হয়েছে লোকসভার সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে কংগ্রেসের নেতা হিসেবে অধীরই প্রতিনিধিত্ব করবেন। 

জানা গিয়েছে, মনীশ তিওয়ারি, শশী তারুরের মতো কংগ্রেসের প্রথম সারির নেতারাও এই দৌড়ে ছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত অধীরের উপরেই ভরসা রাখল দল। যেহেতু অধীর পাঁচ বারের সাংসদ এবং তাঁর অভিজ্ঞতাও প্রচুর, সেই কারণেই তাঁকে বেছে নেওয়া হল বলে মনে করা হচ্ছে।