এবার থেকে কলেজে ভর্তি হতে গেলে শিক্ষার্থীদের বসতে হতে পারে সর্বভারতীয় প্রবেশিকা পরীক্ষাতে। আর সেই পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতেই স্নাতক স্তরে ভর্তির সুযোগ মিলতে পারে যেকোনও সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে। 

জানা গিয়েছে, সরকারের পক্ষ থেকে জাতীয় শিক্ষা নীতির এই খসড়া বলবৎ করা হলে আগামী শিক্ষাবর্ষ তথা ২০২০ থেকেই বলবৎ করা হবে এই নীতি। ফলে এরপর থেকে স্কুল পাশ করার পর কলেজে ভর্তি হওয়ার সময়ে এমনই নীতি প্রযুক্ত হতে পারে। তবে সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিও যাতে এই জাতীয় শিক্ষানীতি মেনে চলে সেই ব্যবস্থাও আবেদনও করা হয়েছে   

প্রসঙ্গত, এই নয়া পদ্ধতির সঙ্গে মিল রয়েছে স্যাট (SAT)-এর। মার্কিন মুলুকের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিেত ভর্তি হওয়ার ক্ষেত্রে এই নিয়ম প্রযুক্ত রয়েছে। সেক্ষেত্রেও শিক্ষার্থীদের জন্য এইরকম স্ট্যন্ডার্ডাইজড অ্যাপ্টিটিউট টেস্ট-এর ব্যবস্থা থাকে। এবার ভারতেও এই শিক্ষানীতি অবলম্বন করার পরিকল্পনা চলছে। তবে সেক্ষেত্রে পড়ুয়াদের স্কুলের প্রাপ্ত নম্বর বিচার করা হবে কিনা সেই নিয়েও এখনও কিছু জানা যায়নি।