আজ করোনাভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা কত? মৃত্যু হয়েছে কতো জনের? দিন শুরুর আগে অধিকাংশ কর্নাটক বাসিন্দার এটাই প্রশ্ন। আর তাই নিয়েই শুরু হয়ে গেছে বেটিং। স্থানীয় একটি সূত্র জানাচ্ছে প্রায় নিত্যদিন সকালে মধ্যবয়স্ক ব্যক্তিদের কথাবার্তা করোনাভাইরাসের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে। কেউ বলেন আজ আক্রান্ত ১৫০০ ছাড়াবে। কেউ আবার বলে আক্রান্তের সংখ্যা ২০০০ ছাড়িয়ে যাবে। যার আর নিয়ে পয়সা দিয়ে বাজিও রাখছেন অনেকে।  কর্নাটকে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা আবারও বাড়তে শুরু করেছে। আর প্রতিদিনই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা নিয়ে পূর্বভাস দিতে শুরু করেছে স্থানীয়রা। মহামারির কারণে আইপিএল সহ একাধিক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট বাতিল হয়েছে। তাই স্থানীয়রা কোভিড নিয়ে বেটিং শুরু করেছেন। তবে কোভিড নিয়ে বেটিংং করায় পুলিশের চোখে ধুলোও দিতে  সুবিধে বলে জানিয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বুকি। তিনি বলেছেন কোভিড নিয়ে বেটিং হলেও এর অর্থমূল্য খুব কম। তাই পুলিশের চোখে ধুলো নিয়ে অনলাইনের মাধ্যমেই টাকা আদানপ্রদান করা যায়। পুলিশ জানতে পারলেও বিষয়টি নিয়ে তেমন কড়া পদক্ষেপ নিতে পারবে না বলেও দাবি করেছেন তিনি। কারণ তাঁর কথায় কোভিড নিয়ে বেটিং চলছে মাত্র ৫০০ থেকে ১০০০ টাকার বিনিয়ম। 

প্রতিটি দেশের ২০ শতাংশ মানুষকে করোনার প্রতিষেধক দেওয়াই লক্ষ্য, ২ বিলিয়ন ডোজ তৈরিতে জোর ...

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী কর্নাটকে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩১ হাজারেও বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছে ২২২৮ জন। মৃতের সংখ্যা ৪৮৬। আর্থিক কর্যাকলাপ শুরু হলেও অপ্রয়োজনে স্থানীয় বাসিন্দাদের বাড়ির বাইরে বার হতে নিষেধ করেছে প্রশাসন। কিন্তু তাও আটকানো যাচ্ছে না সংক্রমণ। 

বিধায়ক হওয়ার সাধ অপূর্ণই থেকে গেল গ্যাংস্টার বিকাশ দুবের, রাজনীতির ছত্রছায়ায় বহুবলী হয়ে ওঠার গল্প ...

ব্যবসা রাখতে চিনের সঙ্গে দূরত্ব বাড়াতে মরিয়া টিকটক, ট্রাম্পের মত পেতে একাধিক পদক্ষেপ ...

এদিনে অফিসের এক কর্মী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় আবারও সেল্ফ আইসোলেশনে গেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা। বাড়ি সংলগ্ন অফিস কৃষ্ণাতে বসেই প্রয়োজনী প্রশাসনিক কাজ সারতের তিনি। আবারও তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বাড়িতেই সেল্ফ কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা করা হয়েছে তাঁর। সপ্তাহখানের আগেই এই অফিসে ফিরেছিলেন ফিরেছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর আসার আগেই এই কার্যালয়টি স্যানিটাইজ করা হয়েছে। তবে মুখ্যমন্ত্রী এই রোগ নিয়ে আতঙ্ক ছড়াতে নিষেধ করেছেন। তবে ইয়েদুরাপ্পা জানিয়েছেন তিনি ও তাঁর বর্তমান সহযোগী, গাড়ির চালক ও নিরাপত্তা রক্ষীরা সুস্থ রয়েছেন।