এই মুহুর্তে দেশের সবচেয়ে দ্রুতগামী ট্রেন তেজস এক্সপ্রেস। আইআরসিটি নিয়ন্ত্রিত এই ট্রেন দেরি করলেই যাত্রীরা ক্ষতিপূরণ পাবেন বলে আগেই দাবি করেছিল ভারতীয় রেল। আর সেই দাবি মতোই আহমেদাবাদ-মুম্বই তেজস এক্সপ্রেস দেরী করতেই যাত্রীদের ক্ষতিপূরণ দিল রেল।

 নির্দিষ্ট সময়ে মুম্বইতে ঢুকতে পারেনি তেজস এক্সপ্রেস। আহমেদাবাদ থেকে মুম্বইয়ে পৌঁছতে প্রায় দেড় ঘণ্টা দেরি করেছে। আত তারপরেই  ট্রেনের ৬৩০ জন যাত্রীকে প্রাপ্য ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে রেল মন্ত্রক। 

আরও পড়ুন: ঘটনার দিন মহিলা ছিলেন নাকি তার স্ত্রী, দিল্লির আদালত বেকসুর খালাস দিল অভিযুক্তকে

ওভারহেডে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে ট্রেন পরিষেবায় বিঘ্ন ঘটেছিল। সেই কারণে আহমেদাবাদ-মুম্বই তেজস এক্সপ্রেস সহ ৪টি দূরপাল্লার ট্রেন দেরিতে চলে। ওভারহেড ইলেকট্রিক তারে সমস্যা থাকায় ট্রেনটি দেরিতে চলে বলে জানান আইআরসিটিসি-র জনসংযোগ আধিকারিক। 

 

 

জানুয়ারি মাসের ১৯ তারিখে ঘটা এই ঘটনার জন্য ট্রেনের যাত্রীদের অবশ্য সঠিক পরিচিতি দিয়ে রিফান্ডের জন্য আবেদন করতে হবে। আর তারপরেই মিলবে ক্ষতিপূরণের অর্থ। ট্রেনের প্রায় ৬৩০ জন যাত্রীকে ১০০ টাকা করে দেওয়া হবে ক্ষতিপূরণ। 

আরও পড়ুন: দল ছাড়লেও শুভেচ্ছ সঙ্গে থাকবে, পবনের খোলা চিঠির জবাব দিলেন বিজেপির জোটসঙ্গী নীতিশ

ভারতীয় রেলে তেজসই একমাত্র ট্রেন যেখানে দেরি করলে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয় যাত্রীদের। এক ঘণ্টার বেশি দেরিতে ১০০ টাকা করে এবং দু ঘণ্টার বেশি দেরিতে জনপ্রতি ২৫০ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল।

মুম্বই- আহমেদাবাদ তেজস এক্সপ্রেসে ক্ষতিপূরণের ঘটনা এই প্রথম ঘটল। তবে গত অক্টোবরে দিল্লি-লখনউ তেজস এক্সপ্রেস তিন ঘণ্টা দেরিতে গন্তব্যো পৌঁছনোয় ৯৫০ জয় যাত্রীকে জনপ্রতি ২৫০ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিয়েছিল রেল।