জি৭ সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ফ্রান্সের বিয়ারিতজ শহরে অনুষ্ঠিত এই সম্মেলনের বাইরে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে আলোচনা বৈঠকে বসলেন নরেন্দ্র মোদী। আজ ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে আলোচনায় বসে নরেন্দ্র মোদী বলেন, ভারত পাকিস্তানের মধ্যেকার যেকোনও ইস্য়ুই দ্বিপাক্ষিক প্রকৃতির। সেইসঙ্গে মোদী আরও যোগ করেন কাশ্মীর ইস্যুও ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যেকার দ্বিপাক্ষিক বিষয়।

নরেন্দ্র মোদী এদিন আরও বলেন, ১৯৮৭ সালের আগে ভারত ও পাকিস্তান এক ছিল, সেই সময়ে নিজেদের সমস্যা তারা নিজেরাই মিটিয়ে নিতে পারত। এখনও তারা নিজেরাই সমাধান করতে পারবে। এদিন কার্যত এভাবেই ডোনাল্ড ট্রাম্পের সামনে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে মন্তব্য করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

 

পাশাপাশি এদিন মোদীর সঙ্গে যৌথ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'গতকাল রাতেই আমরা কাশ্মীর নিয়ে আলোচনা করেছি।' একথা বলাই চলে যে, জম্মু ও কাশ্মীরের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি এবং দু দেশের মধ্যে বাণিজ্যিক সম্পর্কই ছিল এই বৈঠকের অন্যতম আলোচ্য বিষয়। 

 

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র  মোদী বলেন যে, 'ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে আরও অনেক দ্বিপাক্ষিক বিষয় রয়েছে। তাই তৃতীয় কোনও দেশকে এর মধ্যে চাই না। আমরা দ্বিপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমেই তা মিটিয়ে ফেলা সম্ভব'। তবে ওয়াশিংটনের তরফে জম্মু ও কাশ্মীর ইস্যু ভারত ও পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক বিষয় বলে মনে করা হলেও এর আগে দুবার এই বিষয়ে মধ্যস্থতা করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।