রাজ্যপালের ভূমিকায় অসন্তুষ্ট কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। প্রকাশ্যে তাঁর সমালোচনা করতেও ছাড়লেন না বিজেপির প্রাক্তন  সর্বভারতীয় সভাপতি। সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে মন্দির খোলা নিয়ে একটি চিঠি দিয়েছিলেন সেই রাজ্যের রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারি। সেই চিঠির বয়ান নিয়ে জাতীয় স্তরে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। সেই চিঠির বিষয়ে শনিবার এক সর্বভারতীয় টিভি চ্যানেলে সাক্ষাতকার দিতে গিয়ে সেই টিছির বিষয়ে অমিত শাহ বলেন, চিঠির শব্দচয়নে কোশিয়ারির আরও সংযম দেখানো উচিত ছিল।

কোভিড মহামারি ঠেকাতে এখন মহারাষ্ট্রের মন্দিরগুলি বন্ধ রেখেছে উদ্ধব ঠাকরে সরকার। যা নিয়ে রাজ্যে গত কয়েকদিন ধরে মন্দিরগুলির সামনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। গত মঙ্গলবার রাজ্যপাল কোশিয়ারি উদ্ধবকে ঠাকরেকে দেওয়া চিঠিতে সরাসরি বলেছিলেন,'আপনি কি ধর্মনিরপেক্ষ হয়ে গেলেন?' যা নিয়ে কড়া প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে শিবসেননা। রাজ্যপাল কোশিয়ারির 'ধর্মনিরপেক্ষ' মন্তব্য নিয়ে প্রশ্নের জবাবে অমিত শাহ বলেন, 'আমি চিঠিটি পড়েছি। রাজ্যপাল একটি  প্রাসঙ্গিক বিষয়ে তুলে ধরেছেন। তবে, আমার মতে শব্দ চয়নের ক্ষেত্রে তাঁর আরও সংযত হওয়া উচিত ছিল।'

বলি অভিনেতা সুশান্ত সিং আকস্মিক মৃত্যু এবং তার পরবর্তী সময়ে তদন্ত নিয়ে বিতর্কের বিষয়ে অমিত শাহ বলেন, মহারাষ্ট্র সরকার যদি বলিউড অভিনেতার মৃত্যুর তদন্ত পরিচালনায় আরও যত্নবান হত, তবে কোনও বিতর্কই হতো না। তিনি আরও বলেন, রাজ্য সরকারের উচিত ছিল শুরু থেকেই বিষয়টি সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেওয়া। কারণ যে কোনও ক্ষেত্রেই সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত হওয়া উচিত। সুশান্তের মামলার ক্ষেত্রেই নয়, অস্বাভাবিক মৃত্যুর সমস্ত ঘটনাতেই সতর্কতার এবং সংবেদনশীলতার সঙ্গে তদন্ত করা উচিত, বলে মন্তব্য করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী। বলিউডের মাদকচক্র প্রসঙ্গে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর শাসনকালে মাদক পাচার করাটা খুব কঠিন হয়ে পড়েছে। এর জন্য তাঁদের সরকার কিছু পরিকাঠামোগত পরিবর্তন করছে বলে জানান তিনি।