কার্গিল বিজয় দিবস উপলক্ষে টুইটারে একটি পোস্ট শেয়ার করেন জাতীয় দলের ক্রিকেটার শিখর ধওয়ান। ভারতীয় জওয়ানদের আত্মত্যাগ এবং সাহসকে কুর্নিশ জানিয়ে তিনি বলেন যে, তিনি তাঁদের কাছে তিনি চিরকৃতজ্ঞ। তাঁর করা টুইটের রিপ্লাই দেন শচীন যাদব বলে  এক ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক জওয়ান, যা ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। 

শচীন যাদব নামের ওই জওয়ানের করা রিপ্লাইটিতে দেখা যাচ্ছে তিনি একটি বহুল প্রচলিত বলিউডের গানের সুরকে অবলম্বন করে নিজের লেখা দু-লাইন গাইছেন। আর এতেই বিমোহিত নেটিজেনরা।  কার্গিল দিবসের দিনে উর্দি পরে নিজের মনের কথা ব্যক্ত করার জন্য ইতিমধ্যেই শুভেচ্ছায় ভেসে গিয়েছেন শচীন। আরও দুইজন সতীর্থকে সঙ্গে নিয়ে তাঁর গাওয়া গানের তর্জমা করলে দাঁড়ায় দেশমাতৃকা যেন বিন্দু মাত্র বিচলিত না হন, তাঁকে রক্ষা করার জন্য সীমান্তে তাঁর সিংহ শাবকেরা সর্বদাই প্রস্তুত, এবং যেই সমস্ত বীর জওয়ান শহীদ হয়েছেন, তাঁদের প্রত্যেকের শূন্যস্থান পূরণ করবার জন্য ইতিমধ্যেই আরও কয়েকশত তরুণ প্রাণ প্রস্তুত।    

কার্গিল বিজয় দিবসের দিনই শচীনের এই গান  এক অন্যরকম আবেগের জন্ম দিয়েছে দেশজুড়ে। উর্দি পরে সমস্ত-ক্ষণ দেশের সীমান্ত রক্ষায় নিযুক্ত রয়েছেন যারা, তাঁদের সকলের মনের কথা মাত্র দুটি লাইনে অদ্ভুত সুন্দর ভাবে ব্যক্ত করেছেন শচীন। এবং তিনি যেই গানটি থেকে অনুপ্রাণিত হয়েছেন, সেইটি সারগারাহির যুদ্ধের অমর শহীদদের স্মৃতিতে লেখা। সারগারাহির সেই যুদ্ধে মাত্র ২১ জন শিখ জওয়ান ১০,০০০ হানাদার কে শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে ঠেকিয়ে রেখে নিশ্চিত পরাজয়ের হাত থেকে বাঁচায় ব্রিটিশ সেনাবাহিনীকে। পৃথিবীর সামরিক ইতিহাসে থার্মোপাইলির মত কিংবদন্তি 'লাস্ট ম্যান স্ট্যান্ডের' সঙ্গে একবাক্যে স্মরণ করা হয় সারগারাহির যোদ্ধাদের।   

সেই যুদ্ধের স্মৃতিতে রচিত একটি গানের সুরকে ব্যাবহার করে সারগারাহির যোদ্ধাদের মত শচীনদেরও অঙ্গীকার করতে দেখা যায় তাঁরাও নিজেদের শরীরের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে দেশমাতৃকার সেবা করবেন। যুগযুগ ধরে ভারত ভূমির অসংখ্য নাম না জানা বীর শহীদের উদ্দেশ্যে বিজয় দিবসে এক ফৌজির গাওয়া গানের থেকে বড় কোনও শ্রদ্ধার্ঘ বোধ হয় আর হয়না। ভালো থেকো শচীন, ভালো থাকুক শচীনেরা, ভালো থাকুক এই দেশ!