খুব শীঘ্রই ভারতীয় বায়ু সেনার হাতে চাঁদ আসতে চলেছে। সেপ্টেম্বরের শুরুতেই ভারতে আসতে চলেছে আরও চারটি অত্যাধুনিক মার্কিন কপ্টার 'অ্যাপাচে'। কিছুদিন আগেই প্রথমবার ভারতের হাতে আসে এই কপ্টার। সেপ্টম্বারে দ্বিতীয়বার আসতে চলেছে এই অত্যাধুনিক কপ্টারটি। যা নিয়ে বেশ উৎসাহিত ভারত সরকার। ভারতকে নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে রক্ষাকবচ হিসাবেই তড়িঘড়ি আনাহচ্ছে এই কপ্টার গুলি।  

এই 'অ্যাপাচে' -র সর্বাধুনিক হেলিকপ্টার এএইচ-৬৪ই সবথেকে আক্রমণাত্মক মডেল। এর চারটি ব্লেডের আছে অ্যাটাকিং কপ্টার যা সরাসরি লক্ষ্যে আঘাত হানতে পারে। এর গতিবেগ ঘন্টায় ৩০০ কিলোমিটার এছাড়াও এর অত্যাধুনিক সিস্টেমের মধ্যে আছে নাইট ভিশন সিস্টেমও। এমনকি এটি একবারে অন্তত ৪৭৬কিমি পথ অতিক্রম করতে পারে। এই আত্যাধুনিক অ্যাটাকিং হেলিকপ্টারটি প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহের হাত ধরেই ভারতীয় বায়ু সেনার হাতে আসতে চলেছে। ৩ সেপ্টেম্বর পাঠানকোটে আনুষ্ঠানিকভাবে বিমান বাহিনীর হাতে অ্যাপাচি তুলে দেওয়ার কথা রয়েছে তাঁর।  

২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ২২ টি অ্যাপচে কেনার জন্য মার্কিন সরকার -এর সঙ্গে চুক্তি সই করেছিল নয়াদিল্লি। এই ২২ টি কপ্টারের জন্য ভারতকে ব্যায় করতে হচ্ছে ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।  ভারতের হাতে মোট  ৪ টি অ্যাপাচে হেলিকপ্টার আসতে চলেছে। তবে অবশ্য এখন ভারতের হতে ৮টি কপ্টার আছে। আরও হেলিকপ্টার এসে গেলেই তাদের নিয়ে বানানো হবে একটি বাহিনি। ২০২০ সালের মধ্যে ২২টি অ্যাপাচেই ভারতের হাতে তুলে দেবে বলে জনিয়েছে মার্কিন সরকার।