একটা বা দুটো নয়, গত ২০ দিনের প্রায়  ৩০০ টা তরাস্তার কুকুরকে বিষ দিয়ে মারল অন্ধ্রপ্রদেশের কয়েকটি গ্রাম পঞ্চায়েতের বাসিন্দারা। ঘটনা সামনে আসতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। কী করে এতগুলো কুকুরকে মেরে  ফেলতে পারে, সেই নিয়ে সমালোচনার ঝড় বয়ে গিয়েছে। এই পরিস্থিতি পশুপ্রেমী একটি সংস্থা বুধবার সন্ধ্যার সময় স্থানীয় থানায় ওই গ্রাম পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে বলে জানা গিয়েছে। 

অন্ধ্রপ্রদেশের কেন্টেরু  গ্রামে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে। তাদিকোন্দা থানার অন্তর্গত গ্রামটি। তাদিনকোন্দা থানার পুলিশ আধিকারিক রাজশেখর জানিয়েছেন, 'হেল্প ফর অ্যানিমাল সোসাইটি' নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, তেজওয়াত নামের এক ব্যক্তি এই অভিযোগ করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, অভিযোগে গ্রাম পঞ্চায়েতের সেক্রেটারি রমেশ এবং কোটেশ্বর রাওয়ের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।  দাবি করা হয়েছে, ২০ দিনের মধ্যে ওই গ্রামপঞ্চায়েতের তরফে ৩০০টি কুকুরকে বিষ খাইয়ে মেরে ফেলা হয়েছে। 

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, সেকশন ৪২৯ -এ  হেল্প ফর সোসাইটির অভিযোগ নেওয়া হয়েছে।  বৃহস্পতিবার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাবে বলে জানা গিয়েছে। পুলিশের তরফে দাবি করা হয়েছে, মৃত কুকুরের দেহগুলোকে ময়নাতদন্তে পাঠানো হবে। পরীক্ষা করে দেখা হবে, বিষ প্রয়োগের ফলেই কুকুরের মৃত্যু হয়েছে কি না। যদি বিষ প্রয়োগের ফলেই কুকুরের মৃত্যু হয়, সেক্ষেত্রে দেখা হবে, কী ধরনের বিষ প্রয়োগ করা হয়েছে কুকুরগুলোর ওপর।