Asianet News BanglaAsianet News Bangla

'ব্যান' নিয়ে বিবৃতি এশিয়ানেট নিউজের, দেশ ও দশের কাছে সত্যকে পৌঁছে দেওয়ার নয়া অঙ্গিকার

  • নির্ভিক ও সত্য সংবাদ পরিবেশনার নাম এশিয়ানেট নিউজ 
  • দেশের আজ এক নম্বর বৃহৎ নিউজ নেটওয়ার্ক এটি
  • দেশ ও দশের জন্য সংবাদ পরিবেশনে ব্রতি এই নিউজ নেটওয়ার্ক
  • এহেন এমন একটি নিউজ নেটওয়ার্ক ফের নিল সত্য ও স্বচ্ছতার শপথ
Asianet News has issued a statement on charges of Information and Broadcasting Ministry
Author
Kolkata, First Published Mar 7, 2020, 9:01 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

২৫ বছর ধরে দেশবাসীর সামনে নির্ভিকভাবে সংবাদ পরিবেশন করে আসছে এশিয়ানেট নিউজ। আজ দেশের সবচেয়ে বড় এক নম্বর নিউজ নেটওয়ার্কের নাম এশিয়ানেট নিউজ। সংবাদ পরিবেশনের প্রতিটি মাধ্যম এবং ধারার সঙ্গে যুক্ত হয়ে রয়েছে এই সংস্থার নাম। দক্ষিণ থেকে উত্তর এবং পূর্ব ভারত ছাড়িয়ে উত্তর-পূর্ব ভারতেও ছড়িয়ে রয়েছে এশিয়ানেট নিউজের সংবাদ পরিবেশনের ব্যপ্তি। এশিয়ানেট নিউজ প্রতিটি মহূর্তে, প্রতিটি ঘণ্টা ও মিনিটের সঙ্গে চ্যালেঞ্জ নিয়ে ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয় সত্যিকারের খবর। যা দেশ ও দেশবাসীর মনে তৈরি করে এক নয়া আশার আলো, দেখায় নয়া দিশা। 

কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের সিদ্ধান্তে এশিয়ানেট নিউজ-এর তরফে প্রকাশ করা হয়েছে একটি বিবৃতি। তার বাংলা অনুবাদ রইল পাঠকদের জন্য- 

'২৫ বছর ধরে চূড়ান্ত পর্যায়ে সংবাদ পরিবেশনা এবং সাংবাদিকতায় কাজ করে চলেছে এশিয়ানেট নিউজ। 
গতকাল কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের একটি দুর্ভাগ্যজনক সিদ্ধান্তে আমাদের অফ-এয়ার হয়ে যেতে হয়, বিগত ২৫ বছরে কোনও কিছুই আমাদের থামিয়ে রাখতে পারেনি মানুষের কাছে নিরন্তর খবর পৌঁছে দেওয়ার জন্য।
এই দেশের প্রতিটি মানুষ এবং প্রতিষ্ঠানের মতোই আমরাও দেশের প্রতিটি নিয়ম-কানুন মেনে চলি। সচেতনভাবে কোনওদিনই আমরা এই অবস্থান থেকে সরে আসিনি। যদি কখনও জ্ঞানে বা অজ্ঞানে আমরা এই অবস্থান থেকে সরে আসি তাহলে তার জন্য যে পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে হবে, আমরা তার জন্য প্রস্তুত এবং গণতন্ত্রের দায়িত্বশীল চতুর্থ স্তম্ভ হিসাবে আমরা নিজেদের ভুল-ত্রুটি শুধরে নিতেও কার্পণ্য করবো না। আমরা আমাদের দায়বদ্ধতা পুরোপুরি এবং পূর্ণমাত্রায় বুঝতে সমর্থ। 
তথাপি, কাউকে দোষী বা নির্দোষ বলার আগে আমাদের গণতন্ত্র প্রতি জনকেই আইনগতভাবে লড়াইয়ের সুযোগ দেয়। দুঃখের বিষয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক আমাদেরকে ৪৮ ঘণ্টা অফ এয়ারের যে নির্দেশ শুনিয়েছিল তার আগে আমরা আমাদের অবস্থান স্পষ্ট করার সুযোগই পাইনি যা স্বাভাবিক বিচার প্রক্রিয়ার পদ্ধতি হিসাবে আমাদের প্রাপ্য ছিল এবং এতে হয়তো আমরা আমাদের পরিস্থিতিটা বোঝাতে সমর্থ হতাম ও কোনও ভুল হয়ে থাকলে নির্দেশকের পরামর্শমতো সংশোধন করে নেওয়ার সুযোগ পেতাম। 
২৫ বছরের দীর্ঘ যাত্রায় এশিয়ানেট নিউজের শক্তি বৃদ্ধি পেয়ে জন্ম নিয়েছে এশিয়ানেট নিউজ ডট কম এবং সুর্বণা নিউজ যা আমাদের দর্শকদের আমাদের প্রতি তাদের অটুট বিশ্বাসকেই প্রমাণিত করে। সোজাসাপটা, সাহসী এবং নিরবিচ্ছিন্ন- এটা আমাদের শুধু স্লোগান নয় এটা আমাদের পেশাদারিত্বের শপথ এবং মূল্যবোধ যা আমাদের রোজকার সাংবাদিকতার অভ্যাস। আমরা আমাদের দর্শক এবং পাঠকদের জন্যই কাজ করি এবং তাদের জন্য আমরা বারবার অমিমাংসিত সত্যকে তুলে নিয়ে আসব। 
সংবিধানের ১৯ নম্বর ধারা আমাদের মত প্রকাশের স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে। মুক্ত এবং স্বাধীন সংবাদমাধ্যম গণতন্ত্রের একটি স্তম্ভ। কোনওভাবে এই স্বাধীনতাকে সংকুচিত করলে তা গণতন্ত্রের সংজ্ঞায় এবং সংবিধানে বর্ণিত মৌলিক অধিকার ও মূল্যবোধে সঙ্কট তৈরি করবে। 
কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর জানিয়েছেন, ব্যান-এর যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল তা ভুল। বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাসও তিনি দিয়েছেন। সেই সঙ্গে আশ্বস্ত করেছেন যে এই ঘটনার সঙ্গে কোনও অসৎ কর্ম জড়িত থাকলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি জানিয়েছেন, সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতায় সরকারের হস্তক্ষেপের কোনও বাসনা নেই। এমনকী, তিনি জানিয়েছেন, এই বিষয়টি নিয়েও প্রধানমন্ত্রী যথেষ্ট ওয়াকিবহাল। 

এশিয়ানেট নিউজের প্রতিটি সদস্য প্রতিটি দর্শক এবং পাঠককে অভিনন্দন জানাচ্ছে। আপনারা যেভাবে পাথরের মতো আমাদেরকে আগলে রেখেছিলেন তাতে আমরা অভিভূত। আমরা আমাদের প্রতিটি দর্শক এবং পাঠক ও তৎসহ সরকারকে আশ্বস্ত করছি আমরা আমাদের দায়িত্ব সততা এবং স্বচ্ছতার সঙ্গে পালন করব এবং অবশ্যই দেশের আইন-শৃঙ্খলার গণ্ডীর মধ্যে থেকেই আমরা আমাদের দায়িত্ব পালন করছি এবং করব বলেই আরও একবার ঘোষণা করছি।'---- এম জি রাধাকৃষ্ণণ, এডিটর  

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios