করোনার প্রকোপ আরও বাড়ছে ভারতে। শনিবার নতুন করে আরও তিন জনের দেহে করোনার জীবানুর সন্ধান পাওয়া গেছে। এক জন তামিলনাড়ুর বাসিন্দা। অন্য দুই জন লাদাখের। আক্রান্ত তিন ভারতীয়র সাম্প্রতীক ইতিহাস ঘেঁটে দেখা গেছে লাদাখের দুই বাসিন্দা ইরান থেকে ফিরেছিলেন। তামিলনাড়ুর বাসিন্দা ফিরেছিলেন ওমান থেকে। ইরানে করোনা ভয়ঙ্কর আকার নিয়েছে। এপর্যন্ত ভারতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩৪। যার মধ্যে ১৬ জন ইতালির পর্যটক।  এই পরিস্থিতিতে করোনা নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পিএমও সূত্রে জানান হয়েছে এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী হর্ষ বর্ধন ও বিদেশ মন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। দুই মন্ত্রকের শীর্ষ কর্তারাও ছিলেন বৈঠকে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় দ্রুততার সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পাশাপাশি করোনা মোকাবিলায় সকল মন্ত্রককে এক যোগে কাজ করার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। 

অন্যদিকে  ইতালি থেকে আরও দুই নাগরিক দেশে ফিরেছেন। তাঁদের ভর্তি করা হয়েছে পঞ্জাবের একটি সরকারি হাসপাতালে। ইতিমধ্যেই আক্রান্তদের নমুনা সংগ্রহ করে পাঠানো হয়েছে পুনের ন্যাশানাল ইনস্টিটিউট অব ভায়রোলিতে। লাদাখে আক্রান্ত খবর পাওয়া গেলে চূড়ান্ত সতর্কতা নেওয়া হয়েছে জম্মু কাশ্মীরে। জম্মু ও সম্বা জেলার সব স্কুল বন্ধ রাখা হয়েছে। 

করোনা নিয়ে রীতিমত উদ্বিগ্ন অসম। কারণ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দুই জন পর্যটক ভূটান থেকে অসমে গিয়েছেন। তাঁদের সংস্পর্শে এসেছেন ১২৭ জন অসমীয়া। অসম সরকার জানিয়েছে ১২৭ জনকে আলাদা ভাবে রাখা হয়েছে। নিয়মিত খোঁজ নেওয়া হচ্ছে তাঁদের স্বাস্থ্যের। তবে করোনা মোকাবিলায় এখনও বিমান বন্দরে চলছে নজরদারী। বিদেশ থেকে ফেরা সন্দেহভাজনদের বিমান বন্দরেই পৃথক করে রাখা হচ্ছে। 

চিনেও নতুন করে বাড়ছে করোনার প্রকোপ। এদিন নতুন করে আরও ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায় আক্রান্ত হয়ে। হুবেই প্রদেশে আবারও বাড়ছে প্রকোপ। আরও ৯৯ জন সংক্রমিত হয়েছেন করোনার জীবানুতে। পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে চিন সরকারের। পাল্লা দিয়ে ইরানেও বাড়ছে করোনার প্রকোপ। গোটা বিশ্বেই মহামারির আকার নিয়ে করোনা। এপর্যন্ত বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১ লক্ষ।