ভাল নয়, বরং রাস্তা খারাপ হলেই দুর্ঘটনা কম ঘটে। এমনই তত্ত্ব খাড়া করলেন অসমের এক বিজেপি সাংসদ। প্রকাশ্য জনসভাতেই এমন মন্তব্য করে গোটা দেশেরই নজর কেড়ে নিয়েছেন তিনি। নিজের বক্তব্যের স্বপক্ষে অবশ্য যুক্তিও দিয়েছেন বিজেপি সাংসদ। 

অসমের ওই বিজেপি সাংসদের নাম পল্লব লোচন দাস। রাস্তা খারাপ নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় অসমের তেজপুরের একটি জনসভায় তিনি দাবি করেন, ভাল রাস্তা তৈরি করে আসলে কোনও লাভই নেই। কারণ ওই বিজেপি সাংসদের মতে, ভালো রাস্তাতেই দুর্ঘটনা বেশি ঘটে। ওই বিজেপি সাংসদের যুক্তি, রাস্তা যদি খারাপ হয় তাহলে কম বয়সিরাও গাড়ি আস্তে চালাতে বাধ্য হন। ফলে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা কমে। 

নিজের যুক্তি সাজাতে গিয়ে পল্লব লোচন দাস বলেন, 'রাস্তার অবস্থা বেহাল হলেই অল্পবয়সিরা কম গতিতে গাড়ি চালাতে বাধ্য হন। যার ফলে অসমে পথ দুর্ঘটনাও অনেক কমেছে।' ওই বিজেপি সাংসদ অবশ্য দাবি করেছেন, অসমের বিজেপি সরকার অনেক ভাল মানের রাস্তা তৈরি করেছে। কিন্তু তার ফলে পথ দুর্ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে বলেই দাবি ওই সাংসদের। 

অসমের তেজপুরের এই তরুণ বিজেপি সাংসদ এমন মন্তব্য করায় তা নিয়ে অসমের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলিতেই ব্যাপক চর্চা শুরু হয়েছে। খারাপ রাস্তা নিয়ে দায় এড়াতেই সাংসদ এমন মন্তব্য করলেন কি না, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। 

২০১৭ সালের ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর যে রিপোর্ট সম্প্রতি প্রকাশ পেয়েছে, তাতে দেখা গিয়েছে ওই বছরেও উত্তর পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলির মধ্যে অসমেই সবথেকে বেশি পথ দুর্ঘটনার ঘটেছে। একাধিক সংবাদমাধ্যমে অসমের সড়কগুলির বেহাল অবস্থা নিয়ে বার বার সমালোচনা করা হয়েছে। খানা, খন্দে ভরা রাস্তার কারণেই বার বার দুর্ঘটনায় সাধারণ মানুষের মৃত্যু হচ্ছে বলেও অভিযোগ।