অসমের এনআরসি-র চুড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ পড়তে চলেছে প্রায় ১০ হাজার জনের নাম। রাজ্যের কোঅর্ডিনেটর হিতেশ দেব বর্মার কথায়, যে তালিকা অবশেষে চূড়ান্ত করা হয়েছে সেখানেই প্রায় দশ হাজার জন আবেদনকারীর নাম বাদ পড়বে। গত বছর অগাস্টে ন্যাশনাল রেজিস্টার অফ সিটিজেনসএর আওতায় অসমে বৈধ নাগরিকদের তালিকা প্রকাশ্যে আসে। সেই তালিকার বিরুদ্ধে আপত্তি জানায় প্রায় সমস্ত রাজনৈতিক দল। সেখান থেকেই বাদ পড়তে চলেছে প্রায় দশ হাজারের নাম। 

এমনটাই বলছে সূত্র। মঙ্গলবার, এই বিষয় নির্দেশ দিলেন হিতেশ দেব বর্মা। আধিকারিকদের চিঠি লিখে তিনি জানান, আধিকারিকরা যে কোনও মুহূর্তে, যে কোনও নাম বাদ দিতে পারেন এবং যুক্তও করতে পারেন। এই প্রক্রিয়া ততক্ষণই চলতে পারে যতক্ষণ না এনআরসি-র তালিকা প্রকাশ পাচ্ছে। এছাড়া যাদের নাম এনআরসি-র তালিকায় থাকবে না তাদেরও একটি আলাদা তালিকা তৈরি করা হবে। 

এই তালিকার বিষয় একটি অ্যাপ শীঘ্রই সকলের কাছে পৌঁছে যাবে। কোনও ব্যক্তির পরিচয়পত্র নিয়ে যাতে কোনও ন্যূনতম ভুল না হয় সে বিষয়ও খতিয়ে দেখতে বলা হয়েছে। সমস্ত সম্প্রদায়ের মানুষের নামই থাকতে পারে এই তালিকায়। জানা যাচ্ছে, তিনটি শ্রেণিভুক্ত মানুষের ক্ষেত্রে তালিকা প্রস্তুতিতে ভুল পাওয়া গিয়েছে। গত বছর এনআরসি তালিকায় থেকে বাদ গিয়েছে ১৯.০৬ লাখ মানুষ। ৩.৩ লাখের কোটি মানুষের নাম ছিল সেই তালিকায়। এই তালিকায় ভুল রয়েছে বলে দাবি তোলে একাধিক রাজনৈতিক দল। যার পর এই বছর প্রকাশ্যে আসবে নতুন তালিকা।