নভেম্বর থেকে রাজ্য সরকার পরিচালিত সমস্ত মাদ্রাসা বন্ধ করে দেবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে অসম সরকার। শনিবার এমনটাই জানিয়েছেন রাজ্য়ের স্বাস্থ্য ও শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। তিনি জানিয়েছেন, 'আমরা নভেম্বর থেকে অসমে সমস্ত রাজ্য সরকারি মাদ্রাসাগুলি বন্ধ করে দেব। সরকার এই বিষয়ে একটি বিজ্ঞাপ্তি প্রকাশ করবে।'

গত মঙ্গলবারই বিধানসভায় শিক্ষা বিভাগে বাজেট বরাদ্দের বিষয়ে আলোচনা চলাকালীন অসম সরকার মাদ্রাসা বন্ধের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছিল। অসমের শিক্ষামন্ত্রী আরও জানিয়েছেন মাদ্রাসার পাশাপাশি সংস্কৃত টোলগুলি-ও বন্ধ করে দেওয়া হবে। কারণ, জনসাধারণের অর্থে ধর্মীয় শিক্ষায় বন্ধ করতে চায় সরকার। সরকারি প্রতিবেদন অনুযায়ী অসমে ৬১৪টি স্বীকৃত মাদ্রাসা রয়েছে।

মাদ্রাসা ও টোল বন্ধের এই বড় ঘোষণার পাশাপাশি হিমন্ত বিশ্ব শর্মা এদিন, 'স্নেহা স্পর্শ' নামে  অনূর্ধ্ব ১২ বছরের কিশোর-কিশোরীদের অঙ্গ প্রতিস্থাপনের ব্যয় বহনকারী একটি সরকারি প্রল্প চালুর কথাও জানান। তিনি বলেন, 'আমরা একটি প্রকল্প চালু করেছি যার আওতায় ১২ বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের যাদের লিভার, কিডনি প্রতিস্থাপন বা অস্থি মজ্জা প্রতিস্থাপনের প্রয়োজন, তাদের এই সমস্ত পরিষেবা সরকার বিনামূল্যে প্রদান করবে।' তিনি আরও জানান, প্রতিমাসের ১০ তারিখে একটি করে শিবিরের আয়োজন করা হবে। যাতে এই প্রকল্পটির সুবিধা পায় সকলে।