গড়বা এবং ডান্ডিয়ার অনুষ্ঠানে প্রবেশ করতে গেলে দেখাতে হবে আধার কার্ড, এমনই ফতোয়া জারি করা হল বজরঙ্গ দলের তরফে। অ-হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষদের চিহ্নিত করতেই এই নির্দেশ জারি করা হয়েছে। বজরঙ্গ দলের তরফে নবরাত্রি উপলক্ষে সকল 'গড়বা' এবং 'ডান্ডিয়া'র উদ্যোক্তাদের উদ্দেশে জানানো হয়েছে যে, গড়বা ও ডান্ডিয়ার অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যারা আসবেন তাদের সকলের আধার কার্ড যেন অতি অবশ্যই খতিয়ে দেখা হয়। 

বজরঙ্গ দলের মিডিয়া কনভেনার এস কৈলাস জানিয়েছেন, 'আমরা অনুষ্ঠানের আয়োজদের জানিয়েছিযে, যাঁরা যাঁরা এই অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন তাঁদের মধ্যে অহিন্দুদের শনাক্ত করতে তাঁদের আধার কার্ড যাচাই করে দেখা আবশ্যক।' শুধু তাই নয় কোনও অহিন্দু ব্যক্তিকে বাউন্সার হিসাবে না নিয়োগ করার কথাও বলা হয়েছে বজরঙ্গি দলের তরফে। 

 

কেন এই নিষধাজ্ঞা? এস কৈলাস জানিয়েছেন, গত দুই বছর ধরে দেখা গিয়েছে যে অ-হিন্দু সম্প্রদায়ের যুবকরা এইধরণের অনুষ্ঠানে প্রবেশ করেছে। তাঁর দাবি পবিত্র এই অনুষ্ঠানের প্রতি তাঁদের বিশেষ কোনও উদ্বেগ নেই। বরং এর আগে বেশ কয়েকবার তারা এই অনুষ্ঠানে এসে গড়বা এবং ডান্ডিয়ায় অংশগ্রহণকারী মহিলাদের সঙ্গে অশালীন আচরণ করেছে। এমনকী যারা তাদের বাঁচাতে এসেছে, তাদেরকেও আক্রমণ করা হয়েছে বলে জানান তিনি। 

তিনি আরও বলেন,  ইভেন্ট ম্যানেজাররা বহু অ-হিন্দু বাউন্সারদের নিয়োগ করছেন, যা এই ধরণের সমস্যাকে আরও ইন্ধন যোগাচ্ছে। পাশাপাশি পর্যাপ্ত নিয়ন্ত্রণের অভাবেই এই সমস্যা আরও বেশি করে হচ্ছে বলে মত প্রকাশ করেন তিনি।  এস কৈলাস আরও জানান, বজরঙ্গ দলের সদস্যরা এইসব ইভেন্টগুলিতে উপস্থিত থাকবেন, যদি কোনও অ-হিন্দু ব্যক্তি কোনও অনুষ্ঠানে ঢুকে অনুষ্ঠান পণ্ড করার চেষ্টা করেন তাহলে তাঁদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে বজরঙ্গ দল।