আশা ভোঁশলের গাওয়া সেই গানের কথা মনে পড়ে, 'ঝুমকা গিরা রে'? এবার সেই হারিয়ে যাওয়া ঝুমকো ফিরে পেতে চলেছে বরেলি।

মেরা সায়া ছবির সেই গানের সঙ্গে যে শহরের অনুষঙ্গ রয়ে গিয়েছে গত পাঁচ-ছয় দশক ধরে, সেই বরেলি  শহর এবার ৮ লাখ টাকা দিয়ে বানিয়েছে ১৪ ফুটের ঝুমকো। রঙিন পাথর আর এখানকার বিখ্য়াত জরি দিয়ে তৈরি করা হয়েছে ১৪ ফুটের একটি ঝুমকা। যার ওজন ২০০ কেজি।

জানা গিয়েছে, ২৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ওপর পারসাখেরা এলাকায় বরেলি ডেভলেপমেন্ট অথরিটির উদ্য়োগে এই অতিকায় ঝুমকোটি তৈরি করা হয়েছে। উদ্বোধন করেছেন সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সন্তোষ গাঙ্গোয়ার। ঝুমকোটি বানাতে খরচ হয়েছে ৮ লাখ টাকা।

ঝুমকোটি বসানোর সঙ্গে সঙ্গে গোটা এলাকাটি সাজিয়ে তোলা হয়েছে। বরেলি ডেভলেপমেন্ট অথারিটির তরফে সৌন্দর্যায়নের জন্য় খরচ করা হয়েছে  আরও ১০ লাখ টাকা। মনে করা হয়েছে, এই ঝুমকো দেখতে ভিড় করবেন মানুষ। এলাকায় পর্যটকদের যাতায়াত বাড়বে।

এদিকে 'হারিয়ে যাওয়া ঝুমকো' খুঁজে পেয়ে যারপরনাই খুশি বরেলি। 'মেয়া সায়া' ছবিতে সাধনার লিপে আশা ভোঁসলের গাওয়া সেই কালজয়ী গান আজও লোকের মুখে মুখে।   কবেকার সেই গান আজও মাতিয়ে রেখেছে তামাম দর্শক-শ্রোতাদের। এখন অবশ্য় অনেক জায়গাতেই এইভাবে স্থানীয় সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য়ের হাত ধরে পর্যটন বিকাশের উদ্য়োগ নেওয়া হচ্ছে। মূলত সেই পর্যটনের কথা ভেবেই এই অতিকায় ঝুমকা তৈরি হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। ষাটের দশকের ওই গানই বরেলি শহরের সঙ্গে ঝুমকোর যোগ ঘটিয়েছিল।