উত্তরপ্রদেশের আলিগড় শহর জুড়ে পোস্টার পড়েছে। একেবারে প্রকাশ্যেই সপরিবারে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে রুবি আসিফ খান নামে বিজেপি-র এক মহিলা মুসলিম নেত্রীকে। তাঁর অপরাধ অযোধ্যায় রাম মন্দিরের 'ভূমি পূজা' অনুষ্ঠানের সময় তিনি রামলাল্লার আরতি করেছিলেন এবং রক্ষাবন্ধন উপলক্ষে হিন্দু দেবতাকে 'রাখি' পাঠছিয়েছিলেন। ওই বিজেপি নেত্রী এদিন কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে আলিগড়ের দিল্লি গেট থানায় এই বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন। পুলিশ এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে।

আলীগড়ের এডিএ কলোনি এলাকার শাহ জামাল-এর বাসিন্দা, রুবি আসিফ খান মহাবীরগঞ্জ বিজেপি মহিলা মোর্চার সভাপতি। গত ৩০ জুলাই রুবি রামলাল্লা-কে একটি রাখি পাঠিয়েছিলেন। এরপর ৫ অগাস্ট অযোধ্যায় যখন 'ভূমি পূজা' অনুষ্ঠিত হচ্ছিল, তখন তিনি আরও কয়েকজন মুসলিম মহিলাকে নিয়ে আলিগড়ের বাড়িতে রামলাল্লার পুজো করেছিলেন। অযোধ্যার রামমন্দির নির্মাণের জন্য শ্রী রাম জন্মভূমি তীর্থ ক্ষেত্র ট্রাস্টকে তিনি ৫,১০০ টাকা অনুদানও দিয়েছেন।

এরপরই তাঁকে জীবিত পুড়িয়ে মারার হুমকি দেওয়া হয়েছে। পুরো দিল্লি গেট এলাকায় রুবি এবং অন্য এক মুসলিম মহিলা নার্গিস-এর নাম করে পোস্টার দিয়ে বলা হয়েছে শরিয়ত আইনের আওতায় তাদের ইসলাম থেকে বহিষ্কার করা হবে। এই অবস্থায় জেলা প্রশাসনের কাছে প্রাণের হুমকির আশঙ্কা প্রকাশ করে সুরক্ষা চেয়েছেন ওই বিজেপি নেত্রী। তাঁর স্বামী মহম্মদ আসিফ বলেছেন, বেশ কয়েকজন হিন্দু বিজেপি কর্মী রুবি-র পাশে আছে। তাঁরাই তাঁকে পাহারা দিচ্ছেন।