জম্মু ও কাশ্মীরের বুকে ফের বুলেটের গন্ধ এবং রক্তের বন্যা। যার শিকার হলেন এবার এক বিজেপি যুব নেতা এবং আরও দুই বিজেপি পার্টি সদস্য। দাবি করা হচ্ছে এই ঘটনার পিছনে জঙ্গি যোগ থাকার। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কাশ্মীরের কুলগ্রাম জেলায় এই হামলা হয়। জানা গিয়েছে, খুন হওয়া তিন বিজেপি-র কর্মীর পরিচয়। এরা হলেন- ফিদা হোসেন বাট্টু, উমর রামজান হাজাম এবং উমর রশিদ বেগ। এদের মধ্যে ফিদা ও উমর কুলগ্রামের কোয়াজিগুন্দ এলাকার ওয়াই কে পুরার বাসিন্দা। অন্যজন উমর রশিদ বেগ কোয়াজিগুন্দ এলাকার সোপাতের বাসিন্দা। 

ফিদা কুলগ্রাম জেলার বিজেপি যুব মোর্চার সাধারণ সম্পাদক। বাকি দুজন বিজেপি-র সক্রিয় কর্মী বলে এলাকায় পরিচিত ছিলেন। স্থানীয় পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, জঙ্গিরা এই তিননকে গুলি করে। এরপরই এদের কোয়াজিগুন্দ এলাকার সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। পুলিশ জানিয়েছে, সেখানেই তিন জনের মৃত্যু হয়। যদিও, হাসপাতালের সুপার আসিমা নজির, যিনি সেই সময় জরুরি বিভাগে ডিউটি করছিলেন, তিনি জানিয়েছেন, তিন জনকেই মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল। 

এই ঘটনায় পুলিশ ইতিমধ্যে জঙ্গি হামলার আওতায় মামলা দায়ের করেছে। ঘটনার প্রাথমিক তদন্তে লেগে রয়েছেন পুলিশ আধিকারিকরা। পুরো ক্রাইম সিন-কে ভালো করে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। বিশেষ করে বিজেপি-র যুবনেতা এবং তাঁর দুই সঙ্গীর উপরে এই হামলায় জঙ্গিদের যোগ কীভাবে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পাশাপাশি খতিয়ে দেখা হচ্ছে খুনের অন্যান্য সম্ভাব্য কারণও। ঘটনাস্থলকে ঘিরে দেওয়া হয়েছে। এলাকা নাকাবন্দি করেছে পুলিশ। সন্দেহভাজনদের খোঁজে চলছে তল্লাশি অভিযান।