বাসের সঙ্গে অটো রিকশার ভয়াবহ সংঘর্ষে মহারাষ্ট্রের নাসিকে অন্তত ছাব্বিশ জনের মৃত্যু হলো। দুর্ঘটনার পর বাস এবং অটো দু'টিই একটি কুয়োর মধ্যে পড়ে যায়। যার ফলে হতাহতের সংখ্যা আরও বেড়েছে। হাসপাতালে ৩২ জনের চিকিৎসা চলছে। 

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ  সরকারি একটি বাসের সঙ্গে একটি অটো রিকশার সংঘর্ষ হয়। উত্তর মহারাষ্ট্রের দেওয়া এলাকার মেসি ঘাটের কাছে দুর্ঘটনাটি ঘটে। দুর্ঘটনার পরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের একটি ষাট ফুট গভীর কুয়োর মধ্যে ঢুকে যায় বাস এবং অটো দু'টি। জানা গিয়েছে, বাসের মধ্যে বিয়াল্লিশ জন যাত্রী ছিলেন। অন্যদিকে অটোতে ছিলেন দশজন যাত্রী। 

নাসিক গ্রামীণ এলাকার ডিএসপি সদাশিব ওয়াঘমারে জানান, কুয়োর মধ্যে থেকে অন্তত পনেরোটি দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আহতদের মালেগাঁও এবং দেওলার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

জানা গিয়েছে, মহারাষ্ট্র স্টেট রোড ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের বাসটি ধুলে জেলা থেকে নাসিকের কলওয়ান-এ যাচ্ছিল। আর অটোটি আসছিল তার উল্টো দিক থেকে। কুয়োর মধ্যে আর কোনও দেহ নেই বলেই জানিয়েছে পুলিশ এবং উদ্ধারকারীরা। এ দিন সকালেও কুয়োর ভিতর থেকে দু' বছর বয়সি দু'টি শিশুর দেহ উদ্ধার করা হয়। তার আগেই ক্রেনের সাহায্য়ে দুর্ঘটনাগ্রস্ত বাস ও অটো দু'টি কুয়ো থেকে তোলা হয়।