সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ২০১৯-এর  যাঁরা বিরোধিতা করছেন তাঁদের এক ঘন্টার মধ্যেই 'সম্পূর্ণ বিলুপ্ত' করা দেওয়া যেতে পারে। ভরা সভায় দাঁড়িয়ে এমনি উত্তেজক হুমকি দিলেন হরিয়ানার এক বিজেপি বিধায়ক। সংশ্লিষ্ট মহল মনে করছে তিনি নিশানা করেছেন বিশেষ এক সম্প্রদায়কেই।

মঙ্গলবার কৈথাল-এর বিধায়ক লীলারাম গুর্জর সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে তাঁর নির্বাচনী এলাকায় এক সভায় যোগ দেন। সেখানেই বক্তৃতা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, জওহরলাল নেহেরু ও গান্ধীর ভারত আজ আর নেই। এটা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ-এর ভারত। তিনি বলেন কিছু লোক হুমকি দিচ্ছে। যদি নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ সবুজ সঙ্কেত দেন, তবে এইসব লোকদের (নাগরিকত্ব আইনের বিরোধী) এক ঘন্টার মধ্যে সাফ করে দেওয়া হবে।

ওই সভায় তিনি আরও বলেন, নরেন্দ্র মোদী এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। তবে মুসলমানদের ভয় পাওয়ার কিছু নেই। এই আইনে তাঁদের দেশছাড়া করার কোনও ষড়যন্ত্র করা হয়নি। কিন্তু অবৈধভাবে যাঁরা ভারতে প্রবেশ করেছেন, তাঁদের দেশ ছাড়তেই হবে। এরপরই তিনি বলেন, মনে রাখতে হবে, এটা মনমোহন সিং, জওহরলাল নেহেরু বা গান্ধীর ভারত নয়। আজকের ভারত মোদীজি ও অমিত শাহ-এর।

সদ্য আয়োজিত হরিয়ানা বিধানসভা নির্বাচনে বিশিষ্ট কংগ্রেস নেতা রনদীপ সিং সুরযেওয়ালা-কে পরাজিত করেছেন লীলারাম। কিন্তু তাঁর এই মন্তব্য নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই বিতর্ক মাথাচাড়া দিয়েছে।