কোভিড পরবর্তী সময়ে ভারতের শহরাঞ্চলের খোল-নলচে বদলে ফেলতে চাইছে নরেন্দ্র মোদী সরকার। বুধবার কেন্দ্রীয় আবাসন ও নগর বিষয়ক মন্ত্রক ভারতের বিভিন্ন শহরের মেক ওভারের জন্য একটি সামগ্রিক পরিকল্পনা তৈরির বিষয়ে সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রসাসিত অঞ্চলগুলিকে একটি নির্দেশ পাঠিয়েছে। তাতে বাজারগুলিকে আরও পথচারী-বান্ধব করে তোলা, সাইকেল চালানো এবং হাঁটার রাস্তার সম্প্রসারণ করার মতো কিছু পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।  

এর জন্য বিক্রেতা, পৌর অফিসার, ট্রাফিক পুলিশ, পার্কিং এলাকার মালিক, দোকান মালিক এবং উপভোক্তাদের মতো সংশ্লিষ্ট সব মহলের সঙ্গে কথা বলে প্রাথমিকভাবে এই মেকওভারের জন্য কিছু বাজার এলাকা বেছে নিতে বলা হয়েছে। ১০ লক্ষের কম জনবসতির শহরে কমপক্ষে একটি বাজার অঞ্চল নির্বাচন করতে হবে এবং ১০ লক্ষের বেশি জনসংখ্যার শহরগুলিতে অন্তত তিনটি বাজার বেছে নিয়ে তাদের পথচারী-বান্ধব করে তুলতে হবে। এই স্থান নির্বাচনের কাজ ৩০ জুন অর্থাৎ চলতি মাসের শেষের মধ্যেইএ করে ফেলতে হবে। আর সামগ্রিক পরিকল্পনার কাজ শেষ করতে হবে চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে।

মন্ত্রকের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, পরিকল্পনাটি তৈরি হয়ে গেলে, শহরগুলিতে স্বল্পমেয়াদী ও দীর্ঘমেয়াদী - দুটি পর্যায়ে সেই পরিকল্পনার বাস্তবায়নের কাজ শুরু করা হবে।

স্বল্প-মেয়াদী পদক্ষেপের সুপারিশগুলি দ্রুত, অস্থায়ী, বাস্তবায়ন করা সহজ এবং লকডাউনের পরে যাত্রীদের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ব্যারিকেড ব্যবহার করে সামাজিক দূরক্বের বিধি মানা নিশ্চিত করা, যানবাহনের রাস্তা বন্ধ করে মানুষ চলার বেশি জায়গা তৈরি করার মতো বিষয়। এমনকী রাস্তায় যে পার্কিংয়ের জায়গা থাকে বা ক্যারেজওয়ে লেনগুলিকে আরও বেশি করে হাঁটার এবং অপেক্ষার করার জায়গা হিসাবে নতুন করে সাজানো যেতে পারে। সাইকেল চালকদের নির্দিষ্ট বা চিহ্নিত নতুন পথ তৈরি করা যেতে পারে। সেইসঙ্গে পৌরসভাগুলি বাজারগামী রাস্তাগুলির ফুটপাথের প্রস্থ বাড়িয়ে তুলতে পারে। নাগরিকরা যাতে সহজে বাজারে আসতে পারেন, তার জন্য ঘনঘন জনপরিবহনের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা রা যেতে পারে।

আর স্বল্পমেয়াদী ব্যবস্থাগুলি কেমন কাজ করছে তা হাতে কলমে দেখে নিয়ে তারপর পথচারীকরণের জন্য দীর্ঘমেয়াদী স্থায়ী কাঠামোগুলি তৈরির কথা ভাবা যেতে পারে। সরকারে পক্ষ থেকে এদিন বলা হয়, কোভিড মহামারি মানুষের জন্য রাস্তাগুলি নতুন করে পরিকল্পনা করার একটি দারুণ সুযোগ এনে দিয়েছে। বাজার অঞ্চল-কে কোভিড'এর হাত থেকে নিরাপদ করা এবং জনবান্ধব করে তোলার জন্য ভারতের শহরগুলিকে পথচারীদের চলার জন্য উপযুক্ত করে তোলার কথা ভাবতে হবে। কোভিড-১৯ মহামারির পর সাইকেলের মতো ব্যক্তিগত যানবাহনের ব্যবহার বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। বিশ্বের অন্যান্য শহরেও সাইকেল চালানোর পথ বাড়ানো হচ্ছে।