চন্দ্রযান ২-এর অরবাইটর খুব ভালভাবে কাজ করছে। বৃহস্পতিবার টুইট করে জানালো ইসরো। তবে একই সঙ্গে ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে যে চিরকালের মতো যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে তারও ইঙ্গিত দিল তারা।

এদিন ইসরো জানিয়েছে চন্দ্রযান ২ -এর অরবাইটরে যেকয়টি পেলোড বা পরীক্ষামূলক যন্ত্র রয়েছে, তার সবগুলিই একেবারে যথাযথভাবে কাজ করছে। প্রত্যেকটিই এই মুহূর্তে চালু করা হয়েছে এবং প্রাথমিক পরীক্ষায় দেখা গিয়েছে কোনও যন্ত্রেই কোনও সমস্য়া নেই। বিবিন্ন রকম বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা নিরীক্ষা শুরু করেছে সেগুলি।

তবে যার কথা প্রায় বলাই হয়নি, তা হল বিক্রম ল্যান্ডার। গত ৭ সেপ্টেম্বরের পর থেকে এতদিন পর্যন্ত ইসরো বলছিল ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ করার সবরকম প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে। এদিন কিন্তু যোগাযোগের কোনও কথাই তারা তোলেনি। বলা হয়েছে, ইসরোর বিজ্ঞানীদের পাশাপাশি জাতীয় স্তরের একটি কমিটি কেন সফট ল্যান্ডিং করতে ব্যর্থ হল বিক্রম, তা খতিয়ে দেখছেন।

এই বক্তব্য থেকে স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে, বিক্রমের সঙ্গে আর যোগাযোগ যে করা যাবে না তা একপ্রকার মেনে নিয়েছে ইসরো। ২২ সেপ্টেম্বর তারিখে চাঁদের দক্ষিণ মেরু অঞ্চলে রাত নেমে যাবে। সেই সময় শুধু যে সূর্যের আলো মিলবে না তাই নয়, রাতে তাপমাত্রাও নেমে দাঁড়াবে হিমাঙ্কের ২০০ ডিগ্রি নিচে। বিক্রমে কোনও গরম করার যন্ত্র না থাকায়, ঠান্ডাতেই তার যন্ত্রাদি কাজ করা বন্ধ করে দেবে। তাই বিক্রমের খোঁজ ছেড়ে তাঁরা এখন অরবাইটরেই বেশি মন দিয়েছেন।