'আজ, এরা মহাত্মা গান্ধীকে গালি দিচ্ছে। এরা রাবণের সন্তান। তারা রামের পূজারী-কে অপমান করছে'। লোকসভায় বিস্ফোরক মেজাজে বিজেপি-কে আক্রমণ করলেন কংগ্রেস পরিষদীয় দলের নেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী। একদিন আগেই প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা অনন্তকুমার হেগড়ে জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীকে নিশানা করেছিলেন। তারপর এদিন এই নিয়ে বিরোধীরা সরব হবেন লোকসভায়, এটা প্রত্য়াশিতই ছিল। বিজেপি অবশ্য ওই ঘটনার পর অনন্ত কুমার হেগরে-কে জবাবদিহি করেছে বলে শোনা গিয়েছে।

সোমবারই লোকসভায় অধীর চৌধুরী বিজেপি নেতাদের ভুয়ো হিন্দু বলে আক্রমণ করেছিলেন। তিনি বলেন, 'সিএএ কার্যকর হওয়ার পর সারা দেশজুড়ে মানুষ বিক্ষোভ করছে। তারা সংবিধান ও জাতীয় পতাকা হাতে নিয়ে সেই বিক্ষোভ দেখাচ্ছে। তারপর, তাদের উপর গুলি চালানো হচ্ছে। মানুষ-কে নির্মমভাবে হত্যা করা হচ্ছে। সরকার জনগণকে চুপ করতে পারে না। তারা (বিজেপি) ভুয়ো হিন্দু, আসল হিন্দু নয়'।

গত রবিবার বেঙ্গালুরুতে একটি জনসভায় বক্তৃতা দিতে গিয়ে উত্তর কানারা-র সাংসদ অনন্তকুমার হেগড়ে বলেছিলেন, 'এই তথাকথিত নেতাদের (গান্ধী ও তৎকালীন অন্যান্য কংগ্রেস নেতা) কাউকেই একবারও পুলিশ মারধর করেনি। তাদের স্বাধীনতা আন্দোলন ছিল একটি বড় নাটক। এটি ব্রিটিশদের অনুমোদনে এই নেতারা মঞ্চস্থ করেছিলেন। এটি সত্যিকারের লড়াই ছিল না। এটি ছিল বোঝাপড়া করা স্বাধীনতা সংগ্রাম। কংগ্রেস সমর্থকরা বলে গান্ধীর অনশন ও সত্যাগ্রহের কারণেই ভারত স্বাধীনতা পেয়েছে। কিন্তু, এটা সত্যি নয়। সত্যাগ্রহের কারণে ব্রিটিশরা দেশত্যাগ করেনি। হতাশার থেকেই তারা ভারতকে স্বাধীনতা দিয়েছিল। স্বাধীনতার ইতিহাস পড়লে আমার রক্ত টগবগ করে ফুটতে থাকে। অথচ, এইসব নেতাদেরই ভারতে মহাত্মা আখ্যা দেওয়া হয়েছে'।