শুক্রবার বিধানসভা অধিবেশন চলাকালীন মোবাইল ফোনে প্রাপ্তবয়স্ক ভিডিও ক্লিপ দেখছিলেন। এমনি গুরুতর অভিযোগ উঠল সেই রাজ্যের এক কংগ্রেস, বিধায়কের বিরুদ্ধে। যার ফলে চরম বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছে জাতীয় কংগ্রেস।

বেশ কিছু কন্নড় নিউজ চ্যানেল দাবি করেছে, কংগ্রেস এমএলসি (MLC) প্রকাশ রাঠোর অধিবেশনের কার্যক্রম চলাকালীনই অশ্লীল ভিডিও দেখছিলেন। নিউজ চ্যানেলগুলিতে এই বিষয়ে একটি ভিডিওও সম্প্রচার করা হয়েছে। সেই ভিডিও ক্লিপে প্রকাশ রাঠোর-কে বিধানসভা চলাকালীন মোবাইলে কিছু ভিডিও স্ক্রোল করতে দেখা গিয়েছে। ভিডিওগুলি পর্ন ভিডিও ছিল কিনা তা অবশ্য এই ভিডিও দেখে বোঝার উপায় নেই।  

অভিযুক্ত কংগ্রেস নেতা স্বাভাবিকভাবেই এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন। তাঁর সাফাই সরকারের কাছে প্রশ্ন করার উপকরণ সন্ধানের জন্য তিনি মোবাইলে একটি ভিডিও খুঁজছিলেন। সেইসঙ্গে তাঁর মোবাইল ফোনের স্টোরেজ ভর্তি হয়ে যাওয়ায় কিছু বার্তা মুছে ফেলছিলেন। তিনি বলেন, সংবাদমাধ্যম কী দেখেছে বা দেখিয়েছে, সেই সম্পর্কে তাঁর কোনও ধারণা নেই। তবে তাঁর বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে সেই ধরণের কাজ বিধানসভায় বসে তিনি কখনই করতে পারেন না বলেই দাবি করেছেন প্রকাশ রাঠোর।

এর আগে ২০১২ সালেও, কর্নাটক বিধানসভায় মোবাইল ফোনে অশ্লীল ভিডিও দেখার অভিযোগ উঠেছিল। সেইবার অভিযোগের আঙুল ছিল তত্কালীন বিজেপি সরকারের তিন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে। সেইবারও সংবাদমাধ্যমের ক্যামেরায় ধরা পড়েছিল তাঁদের কার্যকলাপ। সেই ঘটনায় রাজ্য তথা দেশ জুড়ে  তীব্র প্রতিক্রিয়া হয়েছিল। যার জেরে গেরুয়া শিবিরের ওই তিন মন্ত্রীকে পদত্যাগ করতে হয়।