ভারতীয় জনতা পার্টির প্রধান জেপি নাড্ডা আরও এক বার নিশানা করলেন প্রধান প্রতিপক্ষ কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। সোমবার সোশ্যাল মিডিয়ায় পরপর দুটি বার্তা দেন বিজেপির সর্বভারাতয়ী সভাপতি জেপি নাড্ডা। আর সেখানেই তিনি বলেন নেহেরু আর গান্ধী রাজবংশ কখনই সম্মান করেনা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কার্যালয়কে। পঞ্জাবে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদীর প্রতিমূর্তি পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল, তার নিন্দা করেন জেপি নাড্ডা। পাশাপাশি তিনি মনে করিয়ে দেন ২০০৪ -২০১৪ সাল পর্যন্ত ইউপিএ সরকারের আমলে এজাতীয় ঘটনা দেখা যায়নি। 

জেপি নাড্ডা কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী ও তাঁর পুত্র রাহুল গান্ধীর তীব্র সমালোচনা করেন।  তাঁর মতে পুত্র ঘৃণা, ক্রোধ, মিথ্যা আর আগ্রাসনের রাজনীতি করছে। আর মা রাজনৈতিক শালীনতা বিসর্জন দিয়েছে। এই ঘণার রাজনীতির কারণে কংগ্রেস জনপ্রিয়তা হারাচ্ছে বলেও দাবি করেন তিনি। পাশাপাশি তিনি বলেন কংগ্রেসের মিথ্যাচার সত্ত্বেও বিজেপি ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীার প্রতি জনসমর্থন অটুট রয়েছে। তিনি আরও বলেন দরিদ্র পরিবারে জন্মগ্রহণ করে একজন প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। আর সেটাই মেনে নিতে পারছে না একটি পরিবার। 

মোদী সরকারের আমলে বাক স্বাধীনতা নেই দেশের মানুষের। এই অভিযোগ বারবার করে কংগ্রেস। তারও জবাব দিয়েছেন জেপি নাড্ডা। তিনি বলেন বাক স্বাধীনতা নিয়ে কংগ্রেসের কিছু না বলাই ভালো। কারণ কংগ্রেসের আমলে কী ভাবে সাংবাদিক ও সাধারণ মানুষের স্বাধীনতা হরণ করা হয়েছিল তার কথা গোটা দেশের মানুষই জানে। তিনি আরও বলেন, ইন্দিরা গান্ধীর আমলে গোটা দেশ জরুরি অবস্থার সাক্ষী থেকেছে। আর রাজীব গান্ধীর আমলেও সংবাদপত্রে স্বাধীনতা খর্ব করা হয়েছিল বলে অভিযোগ করেন নাড্ডা। তিনি আরও বলেন কংগ্রেস এজাতীয় রাজনীতি করলে আগামী দিনে জনপ্রিয়তা আরও হারাবে।