করোনার সংক্রমণ রুখতে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাঁর আহ্বানে সাড়া দিয়েছেন সার্কভুক্ত দেশগুলি। সেই মতই রবিবার বিকেলে ভিডিও কনফারেন্স হওয়ার কথা। আর সেই বিষয় নিয়ে সকালেই ট্যুইট করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রথমেই তিনি বলেছিলেন স্বাস্থ্যকর গ্রহের জন্য সময়োপযোগী পদক্ষেপ প্রয়োজন। তারপরই তিনি বলেন আজ বিকেল পাঁচটায়  সার্ক নেতত্বের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কথা হবে। করোনাভাইরাস মোকাবিলায় কী কী পদক্ষেপ নেওয়া হবে তা নিয়ে আলোচনা হবে। সার্কভুক্ত দেশগুলি যদি যৌথ উদ্যোগে কাজ করে তাহলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা অনেক সহজ হবে। উপকার পাবেন আমাদের নাগরিকরা। 

 

দুদিন আগেই প্রধানমন্ত্রী সার্কভুক্ত দেশগুলির  সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের আশা প্রকাশ করেছিলেন। করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে কথা বলতে চান বলেও জানিয়েছেন। তাঁর আহ্বানে সাড়া দিয়েছে সবকটি দেশে। কথা বলতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে পাকিস্তানও। তবে পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রকের মুখ্যপাত্র জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান কনফারেন্স অংশ নেবেননা। পরিবর্তে অংশ নেমেব পাক প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্য বিষয়ক পরামর্শদাতা। সেইমত রবিবার বিকেল পাঁচটায় সার্কভুক্ত দেশগুলির সঙ্গে হবে। 

ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, নেপাল, ভূটান, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা- দক্ষিণ এশিয়ার এই আটটি দেশ সার্কভুক্ত দেশের আওয়াত পড়েছে। এরমধ্যে এখনও পর্যন্ত ভারতেও করোনার প্রকোপ সবথেকে বেশি। তবে প্রত্যেকটি দেশই সচেতনতা অবলম্বন করতে শুরু করেছে। বেশ কয়েকদিন আগেই করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় পাকিস্তান আফগান সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছিলে। সার্কভুক্ত সবকটি দেশের শিয়া তীর্থ যাত্রীরা এই সময় ইরানে যায়। আর ইরানে করোনায় প্রকোপ বাড়ায় সেই দেশ থেকে তড়িঘড়ি তীর্থ যাত্রীদের ফিরিয়ে আনা হয়েছে। 

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট  অনুযায়ী সার্কভুক্ত দেশগুলিতে ১২৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন করোনা ভাইরাসে। যার মধ্যে পাকিস্তানে সংখ্যা হল ২০।